করোনায় জিম্বাবুয়েতে লকডাউন, শঙ্কায় বাংলাদেশ সিরিজ

করোনায় জিম্বাবুয়েতে লকডাউন, শঙ্কায় বাংলাদেশ সিরিজ

ফাইল ছবি

জিম্বাবুয়েতে নতুন করে লকডাউন দিয়েছে দেশটির সরকার। ফলে স্থগিত করা হয়েছে যেকোনো ধরনের আউটডোর ইভেন্ট। যার মধ্যে রয়েছে ক্রীড়া ইভেন্টও।

করোনাভাইরাস মহামারির পরিস্থিতি খারাপ হওয়াতে জিম্বাবুয়েতে নতুন করে লকডাউন দিয়েছে দেশটির সরকার। ফলে স্থগিত করা হয়েছে যেকোনো ধরনের আউটডোর ইভেন্ট। যার মধ্যে রয়েছে ক্রীড়া ইভেন্টও।

হারারতে চলমান জিম্বাবুয়ে-এ ও সাউথ আফ্রিকা-এ দলের মধ্যেকার আনঅফিশিয়াল টেস্ট ম্যাচটিও বাতিল করা হয়েছে।
জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট এক টুইট বার্তায় জানায় দেশটিতে লকডাউনের কারণে সকল ক্রিকেট ম্যাচ স্থগিত করা হয়েছে।

লকডাউনের কারণে শঙ্কায় পড়েছে আসন্ন জিম্বাবুয়ে-বাংলাদেশ সিরিজও। এই মাসের শেষে ডিপিএলের পর ২৯ অথবা ৩০ জুন জিম্বাবুয়েতে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ দলের।

সাত জুলাই থেকে শুরু হওয়া সিরিজে একটি টেস্ট, তিন ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলার কথা দুই দলের। লকডাউন বেশিদিন চললে স্থগিত হতে পারে সিরিজ। তবে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড আনুষ্ঠানিকভাবে সিরিজ বাতিল বা স্থগিত নিয়ে কিছু বলেনি।

গত বছর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে স্থগিত হয় বাংলাদেশ-পাকিস্তান চলমান সিরিজ। এরপর করোনাভাইরাসের কারণে বাংলাদেশের নির্দিষ্ট সফরে আসেনি শ্রীলঙ্কা, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও কিছু জানায়নি।

এর আগে, গুঞ্জন ছিল জিম্বাবুয়ে সফরে যেতে চান না জাতীয় দলের কিছু অভিজ্ঞ খেলোয়াড়। এমন কিছু পরিকল্পনায় নেই বলেই পরে সংবাদমাধ্যমকে জানান বিসিবির নির্বাচক হাবিবুল বাশার। নিউজবাংলাকে তিনি বলেন, সম্ভাব্য সেরা দলটিই তারা পাঠাতে চান জিম্বাবুয়ে সফরে।

জিম্বাবুয়ে সফর যদি হয়, সেখানে র কোয়ারেন্টিন নিয়ে এখনও আসেনি কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। গত সপ্তাহে বিসিবি জানায় ৫-৭ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হতে পারে টাইগারদের। সেটি হলে ৭ জুলাই শুরু হতে যাওয়া সিরিজের আগে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচটি খেলা হবে না বাংলাদেশ দলের।

শেয়ার করুন

মন্তব্য