শাকিল জেতালেন শেখ জামালকে, শেষ বলে জিতল প্রাইম ব্যাংক

শাকিল জেতালেন শেখ জামালকে, শেষ বলে জিতল প্রাইম ব্যাংক

সতীর্থদের সঙ্গে উদযাপনে শাকিল। ছবি: ডিপিএল

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ও প্রাইম দোলেশ্বরের মধ্যকার ম্যাচ যেখানে গড়িয়েছে শেষ বলে, শেখ জামাল সেখানে সহজ জয় পেয়েছে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে।

বিকেএসপিতে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) দুই ম্যাচ দেখেছে দুই ভিন্ন চিত্র। প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ও প্রাইম দোলেশ্বরের মধ্যকার ম্যাচ যেখানে গড়িয়েছে শেষ বলে, সেখানে শেখ জামাল সেখানে সহজ জয় পেয়েছে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে।

প্রাইম দোলেশ্বরকে ৩ রানে হারিয়েছে প্রাইম ব্যাংক। এবারের আসরে এটিই প্রাইম দোলেশ্বরের প্রথম হার। এই জয়ে ৬ ম্যাচে ৫ জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে পৌছে গেছে প্রাইম ব্যাংক।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মোহাম্মদ মিঠুনের ৫৫ ও অলক কাপালির ঝড়ো ১৪ বলে ২৬ রানের ইনিংসে ভর করে ১৫১ রান সংগ্রহ করে প্রাইম ব্যাংক।

জবাবে শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো প্রাইম দোলেশ্বর ম্যাচ থেকে ছিটকেই গিয়েছিল অনেকটা। ম্যাচে তাদের ফিরিয়ে আনেন কামরুল ইসলাম রাব্বি।

২ চার ও ৪ ছয়ে মাত্র ১২ বলে ৩৮ রান করেন রাব্বি। তাতে জয়ের কাছাকাছি চলে গিয়েছিল প্রাইম দোলেশ্বর। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদের থামতে হয় ১৪৮ রানে, তাতে জোটে ৩ রানের হার।

এর আগে বল হাতেও দুই উইকেট পান রাব্বি। দল হারায় ম্যাচসেরার পুরস্কার পাননি তিনি, পেয়েছেন মিঠুন।

আরেক ম্যাচে পারটেক্সের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে শেখ জামাল। সালাউদ্দিন শাকিলের বোলিং তোপে মাত্র ১০৪ রানেই গুটিয়ে যায় পারটেক্স। মাত্র ১৬ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট তুলে নেন শাকিল। এটি এবারের লিগের সেরা বোলিং পারফর্মেন্স।

পারটেক্সের হয়ে সর্বোচ্চ ২০ রানের ইনিংস আসে ওপেনার আব্বাস মুসার ব্যাট থেকে।

১০৫ রানের লক্ষ্য সহজেই পেরিয়ে যায় শেখ জামাল। সর্বোচ্চ ৩০ রানের ইনিংস আসে অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের ব্যাট থেকে। সঙ্গে অপরাজিত ২৭ রান করেন ইলিয়াস সানি।

তাতে ৬ উইকেট ও ১৬ বল অক্ষত রেখে জয় পায় শেখ জামাল।

আরও পড়ুন:
জয়ের দুর্দান্ত ইনিংসও থামাতে পারল না গাজী গ্রুপকে
বায়ো বাবল ভাঙায় শাস্তি পাচ্ছেন না সাকিবরা
মুশফিক-মোসাদ্দেকের ব্যাটে সহজ জয় আবাহনীর
টানা দ্বিতীয় হার সাকিবদের
রুবেলের বোলিং তোপে বড় জয় প্রাইম ব্যাংকের

শেয়ার করুন

মন্তব্য