ডিপিএলে আবাহনীর বৃষ্টিভেজা জয়

ডিপিএলে আবাহনীর বৃষ্টিভেজা জয়

বোলার শহীদুলের সঙ্গে উইকেট উদযাপন করছেন আবাহনীর অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ছবি: বিসিবি

পারটেক্সকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে আবাহনী। পরিত্যক্ত হয়েছে ওল্ড ডিওএইচএস স্পোর্টস ক্লাব ও লেজেন্ডস অফ রূপগঞ্জের ম্যাচ। বৃষ্টির কারণে ফল আসেনি ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও প্রাইম দোলেশ্বরের ম্যাচেও।

প্রায় দেড় বছরের বিরতির পর আবারও শুরু হয়েছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল)। শুরুর দিনে বৃষ্টির বাধায় পড়েছে ঢাকার সবচেয়ে বড় এই ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। সকালে শুরু হওয়া তিন ম্যাচের মধ্যে ফল এসেছে একটির।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে আবাহনী বৃষ্টি আইনে জয় পেয়েছে আবাহনী লিমিটেড। পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে সাত উইকেটে হারায় ধানমণ্ডির জায়ান্টরা।

শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন পারটেক্সের অধিনায়ক তাসামুল হক। ব্যাট করতে নেমে বিপাকে পড়ে পারটেক্স।

নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে বড় স্কোরের আশা শেষ হয়ে যায় তাদের। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৫* রান আসে অধিনায়ক তাসামুলের ব্যাট থেকে। মইন খান করেন ২২ আর আব্বাস মুসা আউট হন ১৭ রান করে।

আর কেউই দুই অঙ্কের রান পাননি। ফলে নির্ধারিত ২০ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ১২০ রানের বেশি করতে পারেনি পারটেক্স। আবাহনীর হয়ে তাইজুল ইসলাম ১২ রানে ও মেহেদী রানা ৩১ রানে দুটি করে উইকেট নেন।

পারটেক্সের ইনিংস শেষ হওয়ার পর বৃষ্টির কারণে আবাহনীর ইনিংস শুরু হতে দেরি হয়। বৃষ্টির কারণে এক ঘণ্টার মতো খেলা নষ্ট হলে ম্যাচ রেফারি ডাকওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে টার্গেট দেন আবাহনীকে। এতে জয়ের জন্য তাদের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১০ ওভারে ৭০ রান।

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৪৭ রানে নাঈম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত ও আফিফ হোসেনের উইকেট হারায় আবাহনী।

তবে আকাশী-হলুদদের অধিনায়ক ও অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম অপরাজিত থেকে জয় পাইয়ে দেন দলকে। ২৬ বলে ৩৮* রান আসে তার ব্যাট থেকে। মুশফিকের ইনিংসে ছিল একটি ছয় ও তিনটি চার।

অধিনায়কের ইনিংসে চার বল আগেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আবাহনী। সাত উইকেটের জয়ে আসর শুরু করে তারা।

বৃষ্টির কারণে ফল আসেনি ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও প্রাইম দোলেশ্বরের ম্যাচে। বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে ব্রাদার্সের ইনিংসের ১৮.৪ ওভার পর্যন্ত খেলা হওয়ার পর বৃষ্টির কারণে আর খেলা মাঠে গড়ায়নি। ফলে রেফারি পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন ম্যাচ।

এর আগে ব্রাদার্স টস জিতে ব্যাট করতে নেমে সাত উইকেটে ১২৭ রান সংগ্রহ করে ১৮.৪ ওভারে। অধিনায়ক মিজানুর রহমান ২৩ বলে ৩১ ও জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিকী ৫০ বলে ৪৮ রান করেন।

একই ভাবে পরিত্যক্ত হয়েছে ওল্ড ডিওএইচএস স্পোর্টস ক্লাব ও লেজেন্ডস অফ রূপগঞ্জের ম্যাচ। বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে ডিওএইচএসের ইনিংস সম্পন্ন হওয়ার পর বৃষ্টির কারণে আর খেলা সম্ভব হয়নি।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে মাহমুদুল হাসান ও রাকিন আহমেদের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেটে ১৭১ রান করে ওল্ড ডিওএইচএস। রাকিন ৩৩ বলে ৪৬ রান করেন। আর জয়ের ব্যাট থেকে আসে ৫৫ বলে ৭৮।

আরও পড়ুন:
জিতেই শুরু করতে চায় আবাহনী, মোহামেডানের চোখ শিরোপায়
কাল শুরু ডিপিএলের বায়ো বাবল, বিসিবির কড়াকড়ি
নতুন ফরম্যাটে ডিপিএল শুরু ৩১ মে

শেয়ার করুন

মন্তব্য