পেরেরার ব্যাটে ছুটছে শ্রীলঙ্কা

পেরেরার ব্যাটে ছুটছে শ্রীলঙ্কা

ব্যাটিংয়ে কুশল পেরেরা। ছবি: বিসিবি

পেরেরার ফিফটিতে ভর করে ২০ ওভার শেষে ২ উইকেটে ১২০ রাং তুলেছে লঙ্কানরা।

সিরিজে তৃতীয় ম্যাচে এসে প্রথম বারের মতো টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক কুশল পেরেরা।

নিজের সিদ্ধান্তকে নিজেই যেন সঠিক প্রমাণ করতে চাইছেন তিনি। তার ফিফটিতে ভর করে ২৩ ওভার শেষে ২ উইকেটে ১৩১ রান তুলেছে লঙ্কানরা।

শুরুটা দুর্দান্ত করেছিল সফরকারীরা। দুই ওপেনার কুশল পেরেরা ও দানুশকা গুনাথিলাকা মিলে ১১ ওভারেই তুলে ফেলেছিলেন ৭৯ রান।

কিন্তু ১২তম ওভারেই জোড়া আঘাত হানেন তাসকিন আহমেদ। ওভারের দ্বিতীয় বলে বোল্ড করেন গুনাথিলাকাকে। শেষ বলে উইকেটের পেছনে মুশফিকুর রহিমের ক্যাচ বানান পাথুম নিসাঙ্কাকে।

তাতে তৃতীয় দ্রুততম বাংলাদেশি বোলার হিসেবে ওয়ানডেতে ৫০ উইকেট তুলে নেন তাসকিন। উইকেটের হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করতে তাসকিনের লেগেছে ৩৯ ম্যাচ।

অন্য প্রান্তে ফিফটি তুলে নেন কুশল পেরেরা। আট চারের সহায়তায় তিনি ফিফটি তুলে নেন মাত্র ৪৪ বলে।

এর আগে দিনের শুরুতে একাদশে দুটি পরিবর্তন আনে বাংলাদেশ। লিটন দাসের বদলে একাদশে সুযোগ পেয়েছেন নাইম শেখ। দ্বিতীয় ম্যাচে মাথায় আঘাত পাওয়া মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের বদলে একাদশে এসেছেন তাসকিন আহমেদ।

একাদশে চারটি পরিবর্তন এনেছে শ্রীলঙ্কা। ওয়ানডে অভিষেক হচ্ছে রমেশ মেন্ডিস, চামিকা করুনারত্নে ও বিনুরা ফার্নান্দোর। এছাড়া একাদশে এসেছেন নিরোশান ডিকওয়েলা। বাদ পড়েছেন ইসুরুর উদানা, আশেন বান্দারা, লাকশান সান্দাকান ও দাসুন শানাকা।

আরও পড়ুন:
লঙ্কার ঝড়ো শুরুর পর তাসকিনের জোড়া আঘাত
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ লিটন
শেষ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট আর ৩-০ চায় বাংলাদেশ

শেয়ার করুন

মন্তব্য

বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক থাকছেন না কোহলি

বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক থাকছেন না কোহলি

ভারতের অধিনায়ক ভিরাট কোহলি। ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ব্যস্ত সূচির প্রেক্ষিতে ও টেস্ট ও ওয়ানডে দলের অধিনায়ক হিসেবে আরও বেশি সময় দিতে ও সম্পৃক্ত হতে চান তিনি। 

যেমন জল্পনা-কল্পনা চলছিল তেমনটা সত্যি হলো। ভারতীয় টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডের অধিনায়কত্ব থেকে নিজেকে সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিলেন ভিরাট কোহলি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর দলের অধিনায়ক আর থাকছেন না বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান।

বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এক টুইটার বার্তায় নিজের এই সিদ্ধান্ত জানান কোহলি। কোহলি জানান দলের সিনিয়র সদস্য রোহিত শর্মা ও কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে নিজের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তিনি লেখেন, ‘সিদ্ধান্তটা নিতে সময় লেগেছে। রোহিত ও রবি ভাইয়ের মতো নেতৃস্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে দুবাইয়েরটি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়াব।’

কারণ হিসেবে কোহলি তুলে ধরেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ব্যস্ত সূচির প্রেক্ষিতে ও টেস্ট ও ওয়ানডে দলের অধিনায়ক হিসেবে আরও বেশি সময় দিতে ও সম্পৃক্ত হতে চান তিনি।

তিনি লেখেন, ‘আমার মনে হয়েছে ভারতীয় দলকে ওয়ানডে ও টেস্টে অধিনায়কত্ব করার জন্য আরও বেশি সময় প্রয়োজন। অধিনায়ক হিসেবে আমি টি-টোয়েন্টি দলকে সবকিছু উজাড় করে দিয়েছি। ব্যাটসম্যান হিসেবেও তাই করতে চাই।’

গত সোমবার টাইমস অফ ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে জানায় যে অধিনায়কত্ব ছাড়ার বিষয়ে বিসিসিআইয়ের সঙ্গে আলোচনা সেরেছেন কোহলি।

২০১৪ সালে মহেন্দ্র ধোনির কাছ থেকে টেস্ট অধিনায়কত্ব পান কোহলি। আর ২০১৭ সাল থেকে ভারতকে তিন ফরম্যাটে নেতৃত্ব দিচ্ছেন নভেম্বরে ৩৩ পূর্ণ করতে যাওয়া এই ব্যাটসম্যান।

তার অধীনে ভারত ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ও ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ট্রফি জিততে ব্যর্থ হয় ভারত।

আরও পড়ুন:
লঙ্কার ঝড়ো শুরুর পর তাসকিনের জোড়া আঘাত
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ লিটন
শেষ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট আর ৩-০ চায় বাংলাদেশ

শেয়ার করুন

প্রথম দিনে শান্তর সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ

প্রথম দিনে শান্তর সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ

এ-দল ও এইচপির মধ্যেকার ম্যাচের প্রথম দিনের একটি মুহূর্ত। ছবি: বিসিবি

নাজমুল হোসেন শান্তর নৈপূণ্যে এইচপির বিপক্ষে দিনশেষে পাঁচ উইকেটে ২৬০ রান সংগ্রহ করেছে এ-দল। শান্ত ৯৬ ও সাদমান ৫৮ রান করেন।

বিসিবির হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের (এইচপি) বিপক্ষে প্রথম চারদিনের ম্যাচের প্রথম দিন ভালো অবস্থানে আছে বাংলাদেশ এ-দল। নাজমুল হোসেন শান্তর নৈপূণ্যে দিনশেষে পাঁচ উইকেটে ২৬০ রান সংগ্রহ করেছে তারা।

সকালে টস জিতে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এ-দলকে টস জিতে ব্যাট করতে পাঠায় এইচপি দল।

শুরুতে সাফল্য পায় এইচপি। দলীয় ২৪ রানে সাইফ হাসানকে আউট করেন সুমন খান। সাইফের ব্যাট থেকে আসে ১৫।

এরপরই এ-দলের পক্ষে আসে দিনের সবচেয়ে বড় জুটি। দ্বিতীয় উইকেটে ১২৩ রান যোগ করেন সাদমান ইসলাম ও নাজমুল হোসেন শান্ত।

নিজের ফিফটি তুলে নেন দুই ব্যাটসম্যানই। বড় জুটি ভাঙেন হাসান মুরাদ। তার বলে ৫৮ রান করে ফেরেন সাদমান।

অন্যপ্রান্তে সেঞ্চুরির কাছে পৌঁছে যান শান্ত। তবে ৯৬ রানে তাকে আউট করে সেঞ্চুরিবঞ্চিত করেন মাহমুদুল হাসান।

এরপর বেশিক্ষণ টেকেননি এ-দলের অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন। নয় রান করে আউট হন এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

শেষ সেশনে আরও আউট হন ইয়াসির আলি। রেজাউর রহমানের বলে আউট হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ২১।

দিনশেষে ইরফান শুক্কুর ২৮ ও মুনিম শাহরিয়ার ১৫ রানে অপরাজিত ছিলেন।

নভেম্বরে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে, টেস্ট স্পেশালিস্টদের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে খেলা হচ্ছে এই সিরিজ।

বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল খেলছেন না ম্যাচে। পারিবারিক কারণে মুমিনুল এই ম্যাচে নেই।

আর জাতীয় দলের অলরাউন্ডার মেহেদী মিরাজ ম্যাচ খেলছেন না করোনা আক্রান্ত হওয়ায়।

আরও পড়ুন:
লঙ্কার ঝড়ো শুরুর পর তাসকিনের জোড়া আঘাত
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ লিটন
শেষ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট আর ৩-০ চায় বাংলাদেশ

শেয়ার করুন

নিজের ভক্তদের শ্রেষ্ঠ বললেন সাকিব

নিজের ভক্তদের শ্রেষ্ঠ বললেন সাকিব

সাকিব আল হাসান। ফাইল ছবি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাকিবের ফলোয়ার সংখ্যা ছাড়িয়েছে দেড় কোটি। এই উপলক্ষে এক বার্তায় সাকিব দাবি করেছেন তার সমর্থকেরাই শ্রেষ্ঠ।

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে নানা পুরস্কার ও ট্রফি জিতেছেন সাকিব আল হাসান। বিশ্বসেরা ক্রিকেটারদের একজন হয়ে ওঠার পাশাপাশি অর্জন করেছেন তারকাখ্যাতি।

বাংলাদেশের সীমানা ছাড়িয়ে তার জনপ্রিয়তা ছাড়িয়ে গেছে বিশ্বজুড়ে। বিশ্বের যে কোনো প্রান্তেই সাকিব আল হাসান নামটি ক্রিকেট ভক্তদের কাছে অত্যন্ত প্রিয়। আর বিশ্বজুড়ে নিজের ভক্তদের শ্রেষ্ঠ বলেছেন বাংলাদেশের এই আইকন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাকিবের ফলোয়ার সংখ্যা ছাড়িয়েছে দেড় কোটি। এই উপলক্ষে এক বার্তায় সাকিব দাবি করেছেন এমনটা।

নিজের ভ্যারিফাইড পেজে সাকিব লেখেন, ‘আমি বিশ্বাস করি আমার সমর্থকরা পৃথিবীর সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ সমর্থক। ধন্যবাদ সবাইকে সবসময় এতোটা দোয়া ও ভালোবাসা দেওয়ার জন্য ও আমার প্রতিটি সুখ-দুঃখে সাথে থাকার জন্য। আপনাদের সকলকে ভালোবাসি।’

সাকিব এই মুহূর্তে দুবাইয়ে কোয়ারেন্টিন করছেন। কোয়ারেন্টিন শেষে আইপিএলে নিজ দল কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) হয়ে মাঠে নামবেন তিনি।

সাকিবদের প্রথম ম্যাচটি হবে দ্বিতীয় দিন ২০ সেপ্টেম্বর। কোহলির দল বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে মাঠে নামবে সাকিবের কলকাতা নাইট রাইডার্স।

বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে সাকিবের ফলোয়ার সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি। সাকিবের পর ফলোয়ারের সংখ্যায় এগিয়ে মুশফিকুর রহিম।

বাংলাদেশের এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের ফলোয়ার এক কোটি ৩০ লাখ। দেশের অন্য তিন সেরা তারকা তামিম ইকবাল, মাশরাফি মোর্ত্তজা ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ভক্ত সংখ্যা এক কোটি ছাড়ায়নি।

আরও পড়ুন:
লঙ্কার ঝড়ো শুরুর পর তাসকিনের জোড়া আঘাত
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ লিটন
শেষ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট আর ৩-০ চায় বাংলাদেশ

শেয়ার করুন

মোহামেডান তারকাখচিত হওয়ায় ‘আনন্দিত’ আবাহনী

মোহামেডান তারকাখচিত হওয়ায় ‘আনন্দিত’ আবাহনী

হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়ের উল্লাস আবাহনীর ক্রিকেটারদের। ফাইল ছবি

দলে তারকা ক্রিকেটার না থাকার পরও চিন্তিত নয় আবাহনী। বরং মোহামেডানের শক্তিশালী দল গোছানোকে ইতিবাচক ভাবে দেখছে ধানমন্ডির জায়ান্টরা। বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এমনটাই জানান আবাহনীর পরিচালক জালাল ইউনুস।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগকে (ডিপিএল) সামনে রেখে তারকাখচিত দল বানাচ্ছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। এরই মধ্যে তারা দলে ভিড়িয়েছে মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সৌম্য সরকারের মতো তারকাদের। বিশ্বসেরা সাকিব আল হাসানের যোগ দেয়াটাও প্রায় নিশ্চিত।

তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনী লিমিটেডের অবস্থা বিপরীত। তারকা খেলোয়াড় না পাওয়ায় তরুণদের নিয়ে দল তৈরি করছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। তারকাদের অনুপস্থিতি সত্ত্বেও তরুণদের নিয়ে ভালো করায় আশাবাদী আবাহনীর পরিচালক জালাল ইউনুস।

দলে তারকা ক্রিকেটার না থাকার পরও চিন্তিত নন তারা। বরং মোহামেডানের শক্তিশালী দল গোছানোকে ইতিবাচক ভাবে দেখছে ধানমন্ডির জায়ান্টরা। বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এমনটাই জানান আবাহনীর পরিচালক।

তিনি বলেন, ‘আবাহনীর দল তৈরি আছে যতদূর জানি। যেসব খেলোয়াড় দরকার তাদের রেখেছি। মোহামেডান দল শক্তিশালী হয়েছে তাতে আমরা আনন্দিত। মোহামেডান-আবাহনীর খেলায় যে আকর্ষণ থাকে, প্রতিযোগিতা থাকে সেটি বজায় থাকলে তো ভালোই লাগে। শক্তিশালী দলের সঙ্গে আমরা প্রতিযোগিতা করব।’

জালাল ইউনুসের দাবি কাগজে কলমে কখনই শক্তিশালী দল সাজাননা তারা। তারপরও শিরোপা নিয়ে মৌসুম শেষ করে আবাহনী। আর সে কারণেই মোহামেডানের তারকাখচিত দল থেকে চিন্তিত নন জালাল।

তিনি বলেন, ‘আমরা আগেও সেরা দল না বানিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। সবসময় কাগজে কলমে তিন নম্বর দল বানিয়েছি; এক নম্বর না। তারপরও চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। এর একটা না, কয়েকটা উদাহরণ আছে। এই জন্য আমরা চিন্তিত নই।

‘যেই থাকুক, যত শক্তিশালী হোক না কেন, মাঠে বোঝা যাবে কার কত শক্তি। এটা খেলা দিয়ে বোঝা যাবে। মোহামেডান কখনো চ্যাম্পিয়ন হয় না। প্রায় ১০ বছরের উপরে হয়ে গেছে। সামনে তারা শিরোপা লড়াইয়ের চেষ্টা করবে এটা ভালো কথা।’

আরও পড়ুন:
লঙ্কার ঝড়ো শুরুর পর তাসকিনের জোড়া আঘাত
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ লিটন
শেষ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট আর ৩-০ চায় বাংলাদেশ

শেয়ার করুন

বাংলাদেশের কাছে হার প্রভাব ফেলবে না: ম্যাক্সওয়েল

বাংলাদেশের কাছে হার প্রভাব ফেলবে না: ম্যাক্সওয়েল

অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতে ব্যাট করছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ছবি: এএফপি

বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে বিকল্প দল পাঠিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপ দলের তারকাদের আলাদা করে অনুশীলন করিয়েছে অজিরা। ম্যাক্সওয়েল ছাড়াও স্টিভেন স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, ডেভিড ওয়ার্নাররা ফিরছেন জাতীয় দলের জার্সিতে। এমন দল নিয়ে শিরোপা উঁচিয়ে ধরতে আশাবাদী ম্যাক্সওয়েল।

আগস্টে বাংলাদেশের কাছে টি-টোয়েন্টি সিরিজ ৪-১ ব্যবধানে হেরে যায় অস্ট্রেলিয়া। ঐ সিরিজ হার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কোনো প্রভাব ফেলবে না বলে মনে করেন অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

এই হার্ডহিটারের প্রত্যাশা তার দল বিশ্বকাপের শিরোপার জন্য লড়াই করবে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ম্যাক্সওয়েল বলেন বিশ্বকাপে সবকিছু নতুনভাবে শুরু করতে প্রস্তুত অজিরা।

তিনি বলেন, ‘বিশ্বকাপে দল ভালো করবে। অস্ট্রেলিয়া শিরোপার লড়বে। বাংলাদেশের কাছে সিরিজ হার আমাদের ওপর কোনো প্রভাব ফেলবে না। কারন বড় মঞ্চে ভিন্ন কন্ডিশনে সবকিছু আমরা নতুনভাবে শুরু করব।’

সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জেতা হয়নি অস্ট্রেলিয়ার। ২০১০ সালে ফাইনালে উঠলেও, রার্নাস-আপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের।

ওয়ানডে ক্রিকেটের পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দলের চোখ এখন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। দলের সবাই প্রথমবার শিরোপা জিততে মুখিয়ে আছে বলে জানান ম্যাক্সওয়েল।

বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জয় করা হয়নি এখনও। এবার সেটা আমরা জিততে চাই। বিশ্বকাপ নিয়ে সকলের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। সবার লক্ষ্য ভালো টুর্নামেন্ট খেলে শিরোপা জেতা।’

বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে বিকল্প দল পাঠিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপ দলের তারকাদের আলাদা করে অনুশীলন করিয়েছে অজিরা। ম্যাক্সওয়েল ছাড়াও স্টিভেন স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, ডেভিড ওয়ার্নাররা ফিরছেন জাতীয় দলের জার্সিতে। এমন দল নিয়ে শিরোপা উঁচিয়ে ধরতে আশাবাদী ম্যাক্সওয়েল।

তিনি বলেন, ‘আমাদের স্কোয়াডের দিকে তাকালে দেখবেন ম্যাচ জেতানোর মতো অনেক ক্রিকেটার আছেন। এমন সব ক্রিকেটার আছে, যারা যেকোন সময় জ্বলে উঠতে পারে। যদি সেরাটা খেলতে পারি, তবে শিরোপা জয় অসম্ভব কিছু না। আমাদের থামানো যে কোন দলের জন্যই কঠিন হবে।’

বিশ্বকাপের আগে আমরাতে আইপিএল খেলবেন ম্যাক্সওয়েল। আইপিএলে খেলার অভিজ্ঞতা বিশ্বকাপে কাজে লাগবে বলে মনে করেন তিনি।

বলেন, ‘আইপিএলের শেষ অংশ হবে আরব আমিরাতে। এরপরই আমরা বিশ্বকাপ খেলব। এখানেই হবে বিশ্বকাপ। আইপিএলের অভিজ্ঞতা বিশ্বকাপে অনেক কাজে আসবে।’

আরও পড়ুন:
লঙ্কার ঝড়ো শুরুর পর তাসকিনের জোড়া আঘাত
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ লিটন
শেষ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট আর ৩-০ চায় বাংলাদেশ

শেয়ার করুন

বিশ্বকাপের আগে ওমরাহ করতে গেলেন তাসকিন-সোহানরা

বিশ্বকাপের আগে ওমরাহ করতে গেলেন তাসকিন-সোহানরা

ওমরাহ করতে যাওয়ার আগে বিমানবন্দরে সাত ক্রিকেটার। ছবি: সংগৃহীত

বিসিবি জানিয়েছে ২১ সেপ্টেম্বর ওমরাহ শেষে দেশে ফিরে আসবেন তারা। এর পর কিছুদিন পরিবারকে সময় দিয়ে শুরু করবেন বিশ্বকাপের প্রস্তুতি।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের পর বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের আগে আর কোনো ম্যাচ নেই জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের। আর সেই বিরতিকে কাজে লাগিয়ে ওমরাহ পালন করতে গেছেন জাতীয় দলের সাত ক্রিকেটার।

আর এই সাতজনের ভেতর পাঁচজনই রয়েছেন বিশ্বকাপ দলে। বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটায় সৌদি আরবের উদ্দেশে রওনা দেন তারা।

ওমরাহ করতে যাওয়া সাত ক্রিকেটার হলেন, নাঈম শেখ, নুরুল হাসান সোহান, তাইজুল ইসলাম, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, জাকির হোসেন, আফিফ হোসেন ও তাসকিন আহমেদ।

বিসিবি জানিয়েছে ২১ সেপ্টেম্বর ওমরাহ শেষে দেশে ফিরে আসবেন তারা। এরপর কিছুদিন পরিবারকে সময় দিয়ে শুরু করবেন বিশ্বকাপের প্রস্তুতি।

৪ অক্টোবর ওমান যাচ্ছে মাহমুদুল্লাহ বাহিনী। সেখানকার কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে বাংলাদেশ তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে।

১৭ অক্টোবর থেকে শুরু বাংলাদেশের বিশ্বকাপের মূল পর্বে জায়গা করে নেয়ার লড়াই। স্কটল্যান্ড, ওমান এবং পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে পরীক্ষা দিয়ে জায়গা করে নিতে হবে টাইগারদের বিশ্বকাপের মূল মঞ্চে।

আরও পড়ুন:
লঙ্কার ঝড়ো শুরুর পর তাসকিনের জোড়া আঘাত
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ লিটন
শেষ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট আর ৩-০ চায় বাংলাদেশ

শেয়ার করুন

ধারাভাষ্যকে বিদায় জানাচ্ছেন হোল্ডিং

ধারাভাষ্যকে বিদায় জানাচ্ছেন হোল্ডিং

মাইকেল হোল্ডিং। ছবি: সংগৃহীত

কমেন্ট্রি বক্স থেকে বিদায় নিতে চেয়েছিলেন গত বছর। কিন্তু স্কাই স্পোর্টসের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এক বছর বাড়তি কাজ করার সিদ্ধান্ত নেন ৬৬ বছর বয়সী হোল্ডিং 

কমেন্ট্রি বক্সে আর শোনা যাবে না মাইকেল হোল্ডিংয়ের কণ্ঠ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি এই ফাস্ট বোলার ধারাভাষ্য থেকে বিদায় নিচ্ছেন। এ বছরই শেষ হতে যাচ্ছে স্কাই স্পোর্টসের সঙ্গে তার চুক্তি। এতে করে শেষ হতে যাচ্ছে হোল্ডিংয়ের ৩০ বছরের ধারাভাষ্য ক্যারিয়ার।

১৯৮৭ সালে ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ার পর ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ শুরু করেন এই ফাস্ট বোলিং গ্রেট। ১৯৯০ সালে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট ম্যাচ দিয়ে শুরু হয় তার আন্তর্জাতিক ধারাভাষ্যের ক্যারিয়ার।

সেই থেকে শুরু। দুর্দান্ত বিশ্লেষণ ও স্পষ্ট বক্তব্যের কারণে দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তিনি। দর্শক দারুণ পছন্দ করেন তার জ্যামাইকান ইংরেজি বাচনভঙ্গি।

২০০০ সালে স্কাই স্পোর্টসের প্যানেল ধারাভাষ্যকার হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হন হোল্ডিং।

কমেন্ট্রি বক্স থেকে বিদায় নিতে চেয়েছিলেন গত বছর। কিন্তু স্কাই স্পোর্টসের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এক বছর বাড়তি কাজ করার সিদ্ধান্ত নেন ৬৬ বছর বয়সী এই জ্যামাইকান।

এ বছর আর চুক্তি নবায়ন করতে চান না তিনি। যার ফলে শেষ হচ্ছে হোল্ডিংয়ের তিন দশকের ধারাভাষ্যের ক্যারিয়ার।

আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা না দিলেও ভারতের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম পিটিআইকে এক সাক্ষাৎকারে ধারাভাষ্য ছাড়ার ইঙ্গিত দেন তিনি।

হোল্ডিং বলেন, ‘আমি আসলে নিশ্চিত ছিলাম না ২০২০ সালে ধারাভাষ্যটা কতখানি চালিয়ে যেতে পারব। আমার যে বয়স তাতে বেশিদিন এই কাজটা করতে পারব বলে মনে হচ্ছে না। আমার বয়স এখন ৬৬। এটা ৩৬, ৪৬ কিংবা ৫৬ নয়। ২০২০ সালে স্কাই স্পোর্টসকে বলেছিলাম যে এক বছরের বেশি আর চালিয়ে যেতে পারব না। যদি ক্রিকেট খুব বেশি না হয় তাহলে হয়তো ২০২১ সালটাতে কিছু কাজ করব।’

সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক ও বর্তমানে ধারাভাষ্যকার মাইকেল ভন হোল্ডিংয়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে টুইটারে লেখেন, ‘মাইকেল হোল্ডিং একজন কিংবদন্তি বোলার, ধারাভাষ্যকার ও বন্ধু। এর চেয়েও বড় কথা, তিনি এমন একজন ব্যক্তি, যাকে কমেন্ট্রি বক্সে মিস করব।’

আরও পড়ুন:
লঙ্কার ঝড়ো শুরুর পর তাসকিনের জোড়া আঘাত
টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বাদ লিটন
শেষ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট আর ৩-০ চায় বাংলাদেশ

শেয়ার করুন