× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

ক্রিকেট
চোটের কারণে বাদ ওয়ার্নার বিশ্রামে কামিন্স
google_news print-icon

চোটের কারণে বাদ ওয়ার্নার, বিশ্রামে কামিন্স

চোটের-কারণে-বাদ-ওয়ার্নার-বিশ্রামে-কামিন্স
দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ফিল্ডিংয়ের সময় কুঁচকিতে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয় ওয়ার্নারকে। পুনর্বাসনে পাঠানোর কারণে তাকে শেষ ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের স্কোয়াডে রাখেনি অস্ট্রেলিয়া। আর টেস্ট সিরিজের আগে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে প্যাট কামিন্সকে।

ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতে সিরিজ নিশ্চিত করার পর শেষ ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে পরিবর্তন এনেছে অস্ট্রেলিয়া। অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার ও পেসার প্যাট কামিন্সকে রাখা হয়নি সাদা বলের স্কোয়াডে।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ফিল্ডিংয়ের সময় কুঁচকিতে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয় ওয়ার্নারকে। পুনর্বাসনে পাঠানোর কারণে তাকে শেষ ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের স্কোয়াডে রাখেনি অস্ট্রেলিয়া।

আর টেস্ট সিরিজের আগে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে প্যাট কামিন্সকে। দুই গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারের বাদ পড়া নিয়ে অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার গণমাধ্যমকে বলেন, 'টেস্ট সিরিজে আমাদের টিমের দু’জন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার প্যাট এবং ডেভিড। ডেভিডকে চোটের জন্য পুনর্বাসনে পাঠানো হয়েছে। এই গরমে মানসিক এবং শারীরিক ভাবে তরতাজা রাখার জন্য প্যাটকেও তুলে নেওয়ার হল।

ওয়ার্নারের জায়গায় অস্ট্রেলিয়া ডেকে পাঠিয়েছে ব্যাটসম্যান ডার্সি শর্টকে। কামিন্সের বদলে কে খেলবে সেটা এখনও জানায়নি অস্ট্রেলিয়া ক্যাম্প।

২ ডিসেম্বর ক্যানবেরায় তৃতীয় এক দিনের ম্যাচ। ৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ১৭ ডিসেম্বর থেকে শুরু প্রথম টেস্ট।

আরও পড়ুন:
ব্যাটিং তাণ্ডবে সিরিজ অস্ট্রেলিয়ার
স্মিথ-ফিঞ্চের সেঞ্চুরিতে ভারতকে হারাল অস্ট্রেলিয়া

মন্তব্য

আরও পড়ুন

ক্রিকেট
Despite flying Mustafiz did not get a chance in Delhis XI

উড়ে গিয়েও দিল্লির একাদশে সুযোগ পেলেন না মোস্তাফিজ

উড়ে গিয়েও দিল্লির একাদশে সুযোগ পেলেন না মোস্তাফিজ দিল্লি ক্যাপিটালসের জার্সিতে মোস্তাফিজুর রহমান। ছবি: সংগৃহীত

লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ দিল্লি ক্যাপিটালসের। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হওয়া ওই ম্যাচের আগেই সকাল ৮টায় কাল এক চার্টার্ড বিমানে করে দেশ ছাড়েন দিল্লি ক্যাপিটালসের পেসার মোস্তাফিজুর রহমান।

তড়িঘড়ি করে এই উড়ে যাওয়ায় অনেকেই মনে করেছিলেন প্রথম ম্যাচেও হয়তো দেখা যেতে পারে বাংলাদেশের কাটার মাস্টারকে। কিন্তু তাকে ছাড়াই একাদশ সাজিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস।

উড়ে গিয়ে দুপুরেই লখনউয়ে দিল্লি ক্যাপিটালসে যোগ দেন মোস্তাফিজ। দলটিতে খলিল আহমেদ, মুকেশ কুমার, চেতন সাকারিয়ার মতো পেসার থাকায় হয়তো ভ্রমনক্লান্তিতে থাকা মোস্তাফিজকে একাদেশ রাখেননি দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার।

মন্তব্য

ক্রিকেট
Test team announced keeping Shakib Litton

সাকিব-লিটনকে রেখে টেস্ট দল ঘোষণা

সাকিব-লিটনকে রেখে টেস্ট দল ঘোষণা টেস্ট দলের অধিনায়ক সাকিব ও সহ-অধিনায়ক লিটন। ছবি: সংগৃহীত
টেস্ট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস চলতি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) দল পেয়েছেন। তাদের খেলার কথা রয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে। টেস্ট চুক্তির বাইরে থাকা পেসার মোস্তাফিজুর রহমান দল আইপিএলে যাওয়ার অনাপত্তিপত্র (এনওসি) পেলেও সাকিব ও লিটনকে ছুটি দেয়নি বিসিবি।

আয়ারল্যান্ডের টেস্টের জন্য ১৪ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ৪ এপ্রিল থেকে রাজধানীর মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সফরের একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে আয়ারল্যান্ড।

সফরকারী দলটির বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে সাফল্যের পর এখন টেস্টে চোখ বাংলাদেশের। সে ম্যাচের জন্য ঘোষিত দলে রয়েছেন তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস।

টেস্ট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস চলতি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) দল পেয়েছেন। তাদের খেলার কথা রয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে। টেস্ট চুক্তির বাইরে থাকা পেসার মোস্তাফিজুর রহমান দল আইপিএলে যাওয়ার অনাপত্তিপত্র (এনওসি) পেলেও সাকিব ও লিটনকে ছুটি দেয়নি বিসিবি।

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট দলে রাখা হয়েছে তাদের দুজনকেই। ভারতের বিপক্ষে সবশেষ টেস্ট সিরিজের দলে থাকলেও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ডাক পাননি স্পিনার নাসুম আহমেদ, উইকেটকিপার নুরুল হাসান সোহান, এনামুল হক বিজয় ও ইয়াসির আলী রাব্বি। দলে প্রবেশ করেছেন ওপেনার তামিম ইকবাল ও সাদমান ইসলাম।

বাংলাদেশ দল: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), লিটন দাস (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, খালেদ আহমেদ, ইবাদত হোসেন, শরীফুল ইসলাম ও মাহমুদুল হাসান।

আরও পড়ুন:
টি-টোয়েন্টিতে হোয়াইটওয়াশ এড়াল আইরিশরা
১৮ বলে ফিফটির রেকর্ড লিটনের
আয়ারল্যান্ডকে ২২ রানে হারাল বাংলাদেশ
৮ ওভারে আয়ারল্যান্ডকে করতে হবে ১০৪
২০৭ রানে বৃষ্টি থামাল বাংলাদেশকে

মন্তব্য

ক্রিকেট
Sri Lankas dream of directly playing in the World Cup was broken

বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার স্বপ্ন ভাঙল শ্রীলঙ্কার

বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার স্বপ্ন ভাঙল শ্রীলঙ্কার ফাইল ছবি
১০ দলের বাছাই পর্ব থেকে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে সুযোগ পাবে দুটি দল। শ্রীলঙ্কা ছিটকে যাওয়ায় অষ্টম ও শেষ দল হিসেবে বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার লড়াইয়ে এখন আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকা ও আয়ারল্যান্ড। ইতোমধ্যে বাংলাাদেশসহ সাত দল বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করেছে।

তিন ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে নিউজিল্যান্ডের কাছে ৬ উইকেটে হেরেে গেছে শ্রীলঙ্কা। এই হারে আগামী ওয়ানডে বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার স্বপ্ন ভঙ্গ হলো লঙ্কানদের।

২৪ ম্যাচে ৮১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের নবম স্থানে থেকে বিশ্বকাপ সুপার লিগ শেষ করলো শ্রীলঙ্কা। আগামী ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলতে হলে এ বছরের জুন-জুলাইয়ে জিম্বাবুয়ের মাটিতে বাছাইপর্ব খেলতে হবে ১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন এ দেশকে। খবর বাসসের

১০ দলের বাছাই পর্ব থেকে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে সুযোগ পাবে দুটি দল। শ্রীলঙ্কা ছিটকে যাওয়ায় অষ্টম ও শেষ দল হিসেবে বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার লড়াইয়ে এখন আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকা ও আয়ারল্যান্ড। ইতোমধ্যে বাংলাাদেশসহ সাত দল বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করেছে।

বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে জয়ের বিকল্প ছিলো না শ্রীলঙ্কার। হ্যামিল্টনে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে শ্রীলঙ্কা।

নিউজিল্যান্ডের বোলারদের তোপে ব্যাট হাতে সুবিধা করতে না পারায় ৪১ দশমিক ৩ ওভারে ১৫৭ রানে অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা। ২৪ ওভার পর্যন্ত লড়াই করে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেন ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কা। মিডল অর্ডারে অধিনায়ক দাসুন শানাকা ৩১, চামিকা করুনারতে ২৪ ও ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ১৩ রানে আউট হন। নিউজিল্যান্ডের ম্যাট হেনরি-হেনরি শিপলি ও ড্যারিল মিচেল ৩টি করে উইকেট নেন।

১৫৮ রানের সহজ লক্ষ্যে শুরুটা ভালো হয়নি নিউজিল্যান্ডেরও। ২১ রানে ৩ উইকেট হারায় তারা। দলীয় ৫৯ রানে চতুর্থ উইকেটের পতন ঘটলে চাপে পড়ে কিউইরা। পঞ্চম উইকেটে ১০৮ বলে অবিচ্ছিন্ন ১০০ রান করে নিউজিল্যান্ডকে ম্যাচ ও সিরিজ জয়ের স্বাদ দেন উইল ইয়ং ও হেনরি নিকোলস।

ইয়ং ১১টি চারে ১১৩ বলে অপরাজিত ৮৬ রান করেন। ৫২ বলে অনবদ্য ৪৪ রান করেন নিকোলস। ম্যাচ সেরা হন ইয়ং। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতলো নিউজিল্যান্ড।

আগামী ২ এপ্রিল থেকে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু করবে নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা। ওয়ানডের আগে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতেছিল নিউজিল্যান্ড।

আরও পড়ুন:
মামা-ভাগিনার হা-ডু-ডু
পদ্মা ব্যাংকের ঋণখেলাপি হওয়ায় পৌর নির্বাচনে প্রার্থিতা বাতিল
দল হারায় ওয়াসিম আকরামের তুলকালাম

মন্তব্য

ক্রিকেট
The Irish avoided a whitewash in T 20

টি-টোয়েন্টিতে হোয়াইটওয়াশ এড়াল আইরিশরা

টি-টোয়েন্টিতে হোয়াইটওয়াশ এড়াল আইরিশরা সুইপ খেলছেন আইরিশ ব্যাটসম্যান পল স্টার্লিং। ছবি: সংগৃহীত
সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে আইরিশদের ধবলধোলাইয়ের লক্ষ্যে নেমে ব্যাটসম্যানরা সুবিধা করতে পারেনি বাংলাদেশের ব্যাটাররা। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের খেসারত দিয়ে এক শ-এর নিচে গুঁটিয়ে যাওয়ার শঙ্কা জেগছিল। শেষ দিকে শামীম পাটোয়ারির ৫১ রানে ১২৪ রান করে বাংলাদেশ।

ওয়ানডেতে হোয়াইটওয়াশ হলেও টি-২০ সিরিজে ধবলধোলাই এড়াল আয়ারল্যান্ড। শুক্রবার চট্টগ্রামে শেষ টি-টোয়েন্টিতে টাইগারদের সাত উইকেটে হারিয়েছে তারা।

সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতে আইরিশদের ধবলধোলাইয়ের লক্ষ্যে নেমে ব্যাটসম্যানরা সুবিধা করতে পারেনি বাংলাদেশের ব্যাটাররা। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের খেসারত দিয়ে এক শ-এর নিচে গুঁটিয়ে যাওয়ার শঙ্কা জেগছিল। শেষ দিকে শামীম পাটোয়ারির ৫১ রানে ১২৪ রান করে বাংলাদেশ।

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এই সিরিজে প্রথমবার টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেন সাকিব আল হাসান। ইনিংসের প্রথম বলে চার মেরে আগের দুই টি-টোয়েন্টির মতো আগ্রাসী শুরু করেছিলেন লিটন দাস। লিটন-রনির ওপেনিং জুটি প্রথম ওভারে ৯ রান নিয়ে আজও বড় সংগ্রহের ইঙ্গিত দিয়েছিল। তবে দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে আউট লিটন। ৫ রান করেন তিনি। তিনে নেমে দেখে খেলতে গিয়ে বিপদ বাড়ান নাজমুল হোসেন শান্ত। ৮ বলে মাত্র ৪ রান করে এই বাঁহাতি।

উড়িয়ে মারতে গিয়ে ইনিংসের চতুর্থ ওভারে রনি আউট হন ১৪ রান করে। ২৪ রানে ৩ উইকেট হারানোর পরও মেরে খেলে দলের রান বাড়াতে গিয়ে ধারাবাহিক বিরতিতে সাকিব (৬), তাওহিদ হৃদয় (১২) ও অভিষেক হওয়া রিশাদ হোসেন (৮) আউট হলে চাপে পড়ে বাংলাদেশ দল। তবে শান্ত ছাড়া কেউই স্ট্রাইক রেট এক শ-এর নিচে নামতে দেননি।

ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দাঁড়িয়ে একাই লড়েছেন শামিম। ৬১ রানে ৭ উইকেট হারানোর পর অষ্টম উইকেটে নাসুম আহমেদের সঙ্গে গড়েন ৩৩ রানের জুটি। নাসুম ১৩ রানে আউট হলে ভাঙে এই জুটি। শেষ উইকেটে হাসান মাহমুদকে নিয়ে যোগ করেন আরও ২০ রান। ৪০ বলে পূর্ণ করে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে নিজের প্রথম অর্ধশতক। শামীমের ৫১ রানে বাংলাদেশ পায় ১২৪ রানের লড়াইয়ের পুঁজি।

বাংলাদেশের ছুড়ে দেয়া লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৭ রানেই ওপেনার রস অ্যাডায়ার (৭) উইকেট হারায় আয়ারল্যান্ড। তাকে সরাসরি বোল্ড করেন বাংলাদেশের পেসার তাসকিন আহমেদ। এরপর লরকান টাকারকে (৪) বিদায় করেন বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম। শেষ দিকে অভিষিক্ত রিশাদ হোসেনের বলে ৭৭ রানে ফেরেন আইরিশ অধিনায়ক পল স্টার্লিং।

আরও পড়ুন:
ড্রেসিংরুমের পরিবেশ বদলে গেছে, দাবি হাথুরুর
পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম জয় আফগানিস্তানের   
পাকিস্তানে হতে পারে এশিয়া কাপ, ভারতের জন্য আলাদা ভেন্যু
হেসেখেলে সিরিজ জয়
সিরিজ জয়ে বাংলাদেশের দরকার ১০২

মন্তব্য

ক্রিকেট
Bangladesh won the series by 77 runs

৭৭ রানে জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিত করল বাংলাদেশ

৭৭ রানে জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিত করল বাংলাদেশ খেলার একটি মুহূর্ত
টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। দুই ওপেনার লিটন দাস এবং রনি তালুকদার শুরুটা করেন। তাদের ব্যাটিংয়ে মাত্র ৩.৩ ওভারেই পঞ্চাশ রান পেরোয়, বাংলাদশের ইতিহাসে যা দ্রুততম দলীয় ফিফটি।

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৭৭ রানে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এর মাধ্যমে সিরিজ জয় নিশ্চিত করল টাইগাররা।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে বুধবার এ ম্যাচেই মাত্র ১৮ বলে ৫০ তুলে নিয়েছেন লিটন দাস। ৫ চার ও ৩ ছক্কায় তার এই ঝড় ভেঙে দিয়েছে মোহাম্মদ আশরাফুলের ২০০৭ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২০ বলে ফিফটি করার রেকর্ড।

লিটনের ক্যারিয়ারসেরা ব্যাটিং আর সাকিবের দুর্দান্ত বোলিংয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই হেসেখেলে সিরিজ জিতেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। বৃষ্টিবিঘ্নিত আগের ম্যাচে প্রথম টি-টোয়ন্টিতে ২২ রানে আয়ারল্যান্ডকে হারায় বাংলাদেশ।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। দুই ওপেনার লিটন দাস এবং রনি তালুকদার শুরুটা করেন। তাদের ব্যাটিংয়ে মাত্র ৩.৩ ওভারেই পঞ্চাশ রান পেরোয়, বাংলাদশের ইতিহাসে যা দ্রুততম দলীয় ফিফটি।

লিটন দাসের ফিফটিতে দুই ওপেনারের ঝড়ে ভেঙেছে গত ম্যাচেই গড়া দ্রুততম দলীয় শতকের রেকর্ডও। আগের ম্যাচে ৫৩ বলে ১০০ করা বাংলাদেশ এই ম্যাচে সে মাইলফলক ছুঁয়েছে তার চেয়েও ১০ বল কম খেলে।

লিটন (৮৩) সেঞ্চুরি এবং রনি (৪৪) ফিফটির আক্ষেপ নিয়ে আউট হলেও সাকিব-হৃদয়ের সময়োপযোগী ব্যাটিংয়ে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে দুই শ ছাড়ানো স্কোর পায় বাংলাদেশ। বৃষ্টিতে ছোট হয়ে আসা ম্যাচে নির্ধারিত ১৭ ওভারে ৩ উইকেটে ২০২ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে টাইগাররা।

ইনিংসের প্রথম বলেই অধিনায়ক পল স্টার্লিংকে হারায় আয়ারল্যান্ড। তাসকিন আহমেদের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন তিনি। এরপর শুরু সাকিবের ঘূর্ণিজাদু। ম্যাচে নিজের প্রথম বলে লরকান টাকারকে (৬) শিকার করেন সাকিব।

নিজের কোটার পরের দুই ওভারে আরও দুটি করে উইকেট তুলে নিয়ে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো পাঁচ উইকেট পান বাংলাদেশ অধিনায়ক। এই মাইলফলকের সুবাদে কিউই পেসার টিম সাউদিকে ছাড়িয়ে আবারও টি-টোয়েন্টির শীর্ষ উইকেট সংগ্রাহক বনে গেছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

মাত্র ৪৩ রানে ৬ উইকেট হারায় আয়ারল্যান্ড। তবে শেষ দিকে ব্যবধান কমে কার্টিস ক্যাম্ফারের ৩০ বলে ৫০ এবং টেক্টর (২২) ও হিউমের (২০*) অবদানে।

মন্তব্য

ক্রিকেট
Lyttons record of 18 ball fifty

১৮ বলে ফিফটির রেকর্ড লিটনের

১৮ বলে ফিফটির রেকর্ড লিটনের খেলার একটি মুহূর্তে লিটন দাস
চট্টগ্রামে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মাত্র ১৮ বলে ৫০ তুলে নিয়েছেন ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান। ৫ চার ও ৩ ছক্কায় তার এই ঝড় ভেঙে দিয়েছে মোহাম্মদ আশরাফুলের রেকর্ড।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২০০৭ বিশ্বকাপে ২০ বলে ফিফটি করেছিলেন আশরাফুল। ১৫ বছর পর সে রেকর্ড ভেঙেছেন লিটন দাস।

চট্টগ্রামে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মাত্র ১৮ বলে ৫০ তুলে নিয়েছেন ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান। ৫ চার ও ৩ ছক্কায় তার এই ঝড় ভেঙে দিয়েছে মোহাম্মদ আশরাফুলের রেকর্ড।

১৭ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে পাওয়ার প্লেও এক ওভার কমে এসেছিল। প্রথম কোনো চার ছয় মারেননি লিটন ও রনি তালুকদার। কিন্তু একটু পরই সেটা পুষিয়ে দিয়েছেন দুজন।

পরের ওভারে একটি করে চার মেরেছেন দুজন। তার পরের ওভারে একটি করে চার ছক্কায় এসেছে ১৬ রান। তিন ওভার শেষে বাংলাদেশের রান ছিল ৩৭। ৭ বলে তখন লিটনের রান ১৬।

মার্ক অ্যাডেইরের পরের ওভারের প্রথম বলেই পরের দুই বলে দুটি চার মারেন লিটন। দ্বিতীয় চারে বাংলাদেশের রান ৫০ পেরিয়েছে। টি-টোয়েন্টি ইতিহাসে এত দ্রুত (৫১) কখনো ৫০ পেরোয়নি বাংলাদেশ। পরের ওভারে হ্যান্ডকেও একই স্বাদ উপহার দিলেন লিটন। এবার চার, চার, ছক্কা!

ওভারের তৃতীয় বল শেষে ১৫ বলে ৪৬ রান লিটনের। পরের তিন বলে চার রান তুলে মোহাম্মদ আশরাফুলের রেকর্ড নিজের করে করে নেন তিনি।

আরও পড়ুন:
আয়ারল্যান্ডকে ২২ রানে হারাল বাংলাদেশ
৮ ওভারে আয়ারল্যান্ডকে করতে হবে ১০৪
২০৭ রানে বৃষ্টি থামাল বাংলাদেশকে

মন্তব্য

ক্রিকেট
Bangladesh defeated Ireland by 22 runs

আয়ারল্যান্ডকে ২২ রানে হারাল বাংলাদেশ

আয়ারল্যান্ডকে ২২ রানে হারাল বাংলাদেশ খেলার একটি মুহূর্ত। ছবি: সংগৃহীত
চট্টগ্রামে জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে সোমবার চার বল বাকি থাকতেই থামে বাংলাদেশের ইনিংস। ১৯.২ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে বংলাদেশ করে ২০৭ রান।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে প্রথম টি-টোয়ন্টিতে ২২ রানে আয়ারল্যান্ডকে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

চট্টগ্রামে জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে সোমবার চার বল বাকি থাকতেই থামে বাংলাদেশের ইনিংস। গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি শুরুর আগে ১৯.২ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে বংলাদেশ করে ২০৭ রান।

এই সংগ্রহের পর ডিএলএস মেথডে আয়ারল্যান্ডের জন্য নতুন লক্ষ্য ঠিক করা হয় ৮ ওভারে ১০৪ রান। তবে শেষ পর্যন্ত পারেনি তারা। ৫ উইকেটে আয়ারল্যান্ড করে ৮১ রান।

শুরুতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় আয়ারল্যান্ড। আমন্ত্রণ লুফে নিয়ে মাঠে নামে দুই ওপেনার লিটন দাস ও রনি তালুকদার। পাওয়ার প্লেতে বাংলাদেশের রেকর্ড ৮১ রান তুলেছেন দুজন।

শুরুর সে ঝড় পরে স্তিমিত হয়ে গিয়েছিল একটু। অষ্টম ওভারে লিটন আউট হয়ে যান ৪৭ রানে। ২৩ বলে ৪টি চার ও ৩টি ছক্কা মারা লিটনের বিদায়ের পর নাজমুল হোসেন শান্ত একটু ধীরগতিতে এগিয়েছেন।

রনি অবশ্য ২৪ বলে ফিফটি পেয়ে গেছেন। পরে ১৪তম ওভারে দলকে ১৫৪ রানে রেখে ফিরেছেন তিনিও। ৩৮ বলে ৭ চার ও ৩ ছক্কায় ৬৭ রান করা রনি ফেরার পর বাংলাদেশ ইনিংসের গতি হারিয়েছে।

শামীম পাটোয়ারী (৩০) ও সাকিব আল হাসানের (২০*) ছোট ইনিংস দুই শ পার করিয়ে দেয়। বৃষ্টি শুরু হয় ১৯ ওভার ২ বলে ২০৭ রান তোলার পর। নির্দিষ্ট সময়ে খেলা শুরু না হওয়ায় ওখানেই শেষ হয় বাংলাদেশের ইনিংস।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২০১৮ সালে টি-টোয়েন্টিতে করা বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্কোর ২১৫ রান বা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে করা ২১১-এর দুটিরই স্কোর ছুঁই ছুঁই করেও অল্পের জন্য কোনোটিই ছাড়াতে পারল না টাইগররা।

দেড় ঘণ্টার বৃষ্টিতে বদলে যায় সব হিসাব। আবার ম্যাচ শুরু হয় বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে।

আরও পড়ুন:
৮ ওভারে আয়ারল্যান্ডকে করতে হবে ১০৪
২০৭ রানে বৃষ্টি থামাল বাংলাদেশকে
টি-২০তে বিশ্বরেকর্ড গড়ে সাউথ আফ্রিকার জয়

মন্তব্য

p
উপরে