20201002104319.jpg
বোলারদের উন্নতিতে সন্তুষ্ট প্রধান নির্বাচক

বোলারদের উন্নতিতে সন্তুষ্ট প্রধান নির্বাচক

‘টপ অর্ডার যারা ব্যর্থ হচ্ছে, আরও কয়েকটা ম্যাচ আছে সেখানে তাদের সুযোগ আছে। কন্ডিশনও এখন ভাল। মাঝখানে বৃষ্টি ছিল। উইকেটে ময়েশ্চার ছিল, পেস বোলাররা বাড়তি সুবিধা পেয়েছে। টাইমিং করা একটু কঠিন ছিল ব্যাটসম্যানদের জন্য। এখন এটা কাটিয়ে উঠেছে, আজকেও (শনিবার) দেখলাম ফ্ল্যাট উইকেট।’

প্রেসিডেন্টস কাপের চতুর্থ ম্যাচে নাজমুল একাদশ ২৬৪ রান করলেও, টুর্নামেন্ট জুড়ে দেখা গেছে বাজে ব্যাটিং এর ধারাবাহিকতা। এতে চিন্তিত নন বাংলাদেশ দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন। তার মতে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার চেয়ে বড় পাওয়া বোলারদের উন্নতি। 

মিরপুরে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন,‘সবমিলিয়ে এই কয়দিন যেটা দেখেছি আমাদের পেসাররা বেশ ভাল ফিটনেসের ছাপ রেখেছে। তাদের যে স্কিলেও উন্নতি হয়েছে সেটা বোঝা যাচ্ছে। ধারাবাহিকভাবে যথেষ্ট ভাল লাইনে বল করছে। এটা হল সবচেয়ে বড় পাওয়া। এই উন্নতি যদি ধারাবাহিকভাবে ধরে রাখে ভবিষ্যতে আমাদের জন্য ভালো কাজে দিবে সব ফরম্যাটে ক্রিকেটার বাছাইয়ে’।ব্যাটসম্যানদের ভাল করা নিয়েও আশাবাদী মিনহাজুল। নিউজবাংলাকে তিনি বলেন, ‘টপ অর্ডার যারা ব্যর্থ হচ্ছে, আরও কয়েকটা ম্যাচ আছে সেখানে তাদের সুযোগ আছে। কন্ডিশনও এখন ভাল। মাঝখানে বৃষ্টি ছিল। উইকেটে ময়েশ্চার ছিল, পেস বোলাররা বাড়তি সুবিধা পেয়েছে। টাইমিং করা একটু কঠিন ছিল ব্যাটসম্যানদের জন্য। এখন এটা কাটিয়ে উঠেছে, আজকেও (শনিবার) দেখলাম ফ্ল্যাট উইকেট।’

টুর্নামেন্ট আয়োজন করায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রশংসা করে প্রধান নির্বাচক বলেন, এই টুর্নামেন্টটি খেলোয়াড়দের পারফরমেন্স মূল্যায়নের একটি সুযোগ।

‘এই টুর্নামেন্টটা আমাদের জন্য খেলোয়াড়দের দেখার একটা মঞ্চ। কে কেমন পারফর্ম করছে, কাকে কোন পজিশনে খেলাতে পারব সেটা দেখার জায়গা। সব প্লেয়ারের পারফরম্যান্সই দেখা হচ্ছে। টিম ম্যানেজমেন্ট বসে যাকে যেখানে দরকার সেখানের জন্য বিবেচনা করবে। যেভাবে টুর্নামেন্ট চলছে তা আয়োজনই অনেক বড় বিষয়। এই মহামারীর মধ্যে কঠিন, এতদিন বায়ো বাবলের মধ্যে রেখে মাঠে এনে খেলানো। এটা একটা বিরাট ব্যাপার, সবমিলিয়ে আমি বলবো বিসিবি দারুণ একটা উদ্যোগ নিয়েছে। কারণ এটা যদি আমরা স্টেপ বাই স্টেপ সফল হয় আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজনে বেশ সাহায্য করবে,’ বলেন প্রধান নির্বাচক।

সামনে আসছে কর্পোরেট টি টোয়েন্টি লিগ। সেখানে দল বিসিবিই নির্বাচন করবে কি না, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসেনি বলে জানান মিনহাজুল আবেদীন। তিনি বলেন, ‘এটা (বিসিবি দল নির্বাচন করে দেবে কি না) এখনও কনফার্ম হয়নি। এটার কোন আপডেট এখনই দিতে পারব না। আমাদের করণীয় যা থাকবে তা করব। এখানে তিনটা দলের জন্য বাছাই করেছি তখন পাঁচটা দল নির্বাচন করব। এটা এখনই কিছু বলতে পারছিনা। সময়ের ব্যাপার আছে। আমরা প্রস্তুত করে রেখেছি, আমাদের যখন বলবে তখন দিব।’

মিনহাজুল জানান কর্পোরেট লিগের আগে ক্রিকেটাররা ১৭-১৮ দিনের একটি বিরতি পাবেন।

শেয়ার করুন

মন্তব্য