20201002104319.jpg
টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জে তিন বিভাগেই ভাল করতে চান সালমা

টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জে তিন বিভাগেই ভাল করতে চান সালমা

তিন দলের এই টুর্নামেন্টে সালমার সঙ্গী হিসেবে ডাক পেয়েছেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেটের আরেক বড় নাম জাহানারা আলম। তিনি খেলবেন ভেলোসিটির হয়ে।

উইমেনস টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জে ট্রেইলব্লেজার্স দলের হয়ে খেলবেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের তারকা সালমা খাতুন। জাতীয় দলের এই অধিনায়ক অলরাউন্ডার হিসেবেই ভারতীয় এই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করতে চান।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হতে যাওয়া এই টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন সালমা। নিউজিবাংলাকে তিনি বলেন, 'যেহেতু সুযোগ পেয়েছি সেহেতু নিজের সেরাটা দিবো। আর আমি যেহেতু অলরাউন্ডার হিসেবে যাচ্ছি, তিন বিভাগেই আমাকে ভাল করতে হবে। এটা মাথায় রেখেই প্র্যাকটিস করছি, ফিটনেস নিয়ে কাজ করছি। ওখানে গিয়ে ভাল হবে আশা করি।’

তিন দলের এই টুর্নামেন্টে সালমার সঙ্গী হিসেবে ডাক পেয়েছেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেটের আরেক বড় নাম জাহানারা আলম। তিনি খেলবেন ভেলোসিটির হয়ে।

 

আরও পড়ুন: উইমেনস টি টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জে সালমা-জাহানারা

জাহানারা এর আগে ভারতের টি-টোয়েন্টি লিগে অংশ নিলেও, সালমার জন্য সম্পূর্ণই এক নতুন অভিজ্ঞতা। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণের জন্য উচ্ছ্বসিত সালমা।

তিনি বলেন, 'অবশ্যই আমি এক্সাইটেড, যেহেতু এত বড় একটা আসরে সুযোগ পেয়েছি। অনেক খুশি লাগছে যে গতবার আমাদের দেশ থেকে জাহানারা সুযোগ পেয়েছিল, এবার সাথে আমিও সুযোগ পেয়েছি। ভাল লাগছে যে বাংলাদেশ থেকে যে দু’জন ডাক পেয়েছে তাদের আমি একজন। খুবই ভাল লাগছে, আসলে বলে বোঝানো যাবে না কতটা ভাল লাগছে।

চার নভেম্বর টুর্নামেন্ট শুরু হলেও এখনও জানেন না সালমা, কবে যাওয়া হবে সংযুক্ত আরব আমিরাত। তবে আশা করছেন করোনা টেস্টের পর সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফ্লাইটে উঠবেন এই মাসের শেষদিকে।

‘এখনও রওনা দেওয়ার ডিটেইলস ঠিক হয়নি, এটা বিসিবি জানে। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে আমরা অনুশীলন শুরু করেছি এবং করোনা টেস্ট আছে তো আমাদের, করোনা পরীক্ষা হলেই হয়তো আমরা রওনা দেবো। হয়ত এই মাসের শেষের দিকে যেতে পারি,’ বলেন সালমা।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড আয়োজিত উইমেন্স টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জ শেষ হবে ৯ নভেম্বর। প্রতিটি দল খেলবে দুটি করে ম্যাচ, পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দুই দল খেলবে ফাইনালে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য