20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনে তাসকিন-ঝড়

৪৫ রান খরচায় তাসকিন নিয়েছেন তিন উইকেট। ছবি: বিসিবি

প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনে তাসকিন-ঝড়

দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে প্রথম দিনশেষে ২৩০ রানে অলআউট হয়েছে ওটিস গিবসন একাদশ।

দিনের শুরুতে তাসকিন ফেরান ইমরুল কায়েসকে, এরপর তুলে নেন শান্ত ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের উইকেট। দিনশেষে তাসকিনের নামের পাশে তিন উইকেট, ১৭ ওভার বল করে রান দিয়েছেন মাত্র ৪৫।

স্কিল ক্যাম্পে অনুশীলনে দেখা গিয়েছিলো নতুন এক তাসকিন আহমেদকে। পুরনো গতির ঝলকের সঙ্গে দারুণ লাইন-লেংথে ব্যাটসম্যানদের ভোগাচ্ছিলেন এই ডানহাতি পেসার। সেই ধারা বজায় রেখেই টাইগারদের স্কিল ক্যাম্পে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনের আলো ছড়িয়েছেন ২৫-বছর বয়সী এই পেসার।

টাইগার স্কোয়াডকে দুই দলে ভাগ করে নাম দেওয়া হয়েছিলো ‘ওটিস গিবসন একাদশ’ এবং ‘রায়ান কুক একাদশ’। ‘রায়ান কুক একাদশ’ এর হয়ে মাঠে নামা তাসকিন ও তাইজুল ইসলামের তিন উইকেটে প্রথম দিন শেষেই ২৩০ রানে গুটিয়ে যায় ‘ওটিস গিবসন একাদশ’।

‘ওটিস গিবসন একাদশ’ এর হয়ে রান পেয়েছেন সাইফ হাসান ও সৌম্য সরকার, দুইজনে পূর্ন করেছেন ফিফটি, সঙ্গে অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত করেন ৪২। তবে বাকিদের ব্যর্থতায় তাদের দলীয় সংগ্রহ বড় হয়নি, থামতে হয়েছে ২৩০ রানে।

রায়ান কুক একাদশের হয়ে ফিল্ডিংয়ে শাদমান ইসলাম ও মুশফিকুর রহিম। ছবি: বিসিবি

দিনের শুরুতে তাসকিন ফেরান ইমরুল কায়েসকে, এরপর তুলে নেন শান্ত ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের উইকেট। দিনশেষে তাসকিনের নামের পাশে তিন উইকেট, ১৭ ওভার বল করে রান দিয়েছেন মাত্র ৪৫। বাকি সাতটি উইকেটের তিনটি তুলে নেন তাইজুল ইসলাম, দুটি নিয়েছেন মোহাম্মদ মিথুন এবং একটি করে উইকেট নেন খালেদ আহমেদ ও সাইফুদ্দিন।

নিজেদের মধ্যে সব মিলিয়ে তিনটি অনুশীলন ম্যাচ খেলবে টাইগাররা, দুটি দুই-দিনের ম্যাচ এবং একটি তিন-দিনের। দ্বিতীয় দুই-দিনের ম্যাচ শুরু হবে পাঁচ অক্টোবর এবং তিন-দিনের ম্যাচ শুরু হবে ১৩ অক্টোবর থেকে। সবগুলো খেলাই অনুষ্ঠিত হবে মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

নিউজবাংলা/শার/রুই

শেয়ার করুন