সেতু ভাঙা, ভরসা নড়বড়ে সাঁকো

সেতু ভাঙা, ভরসা নড়বড়ে সাঁকো

পিরোজপুর সদরে পাড়েরহাট খালের ওপর নির্মিত সেতুটি ভেঙে যাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছে হাজারো মানুষ। ছবি: ইমন চৌধুরী/নিউজবাংলা

পিরোজপুর সদরের পাড়েরহাট খালের ওপর নির্মিত সেতুটি ভেঙে যাওয়ার আগে তা দিয়ে চলাচল করত দুই ইউনিয়নের ১০ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষ। সেতুর জায়গায় হওয়া সাঁকো দিয়েও চলছে একইসংখ্যক মানুষ। এত মানুষের চাপে নড়বড়ে হয়ে গেছে সাঁকোটি।  

পিরোজপুর সদরের মল্লিকবাড়ি গ্রামে পাড়েরহাট খালের ওপর ২০০৮ সালে নির্মাণ করা হয়েছিল ১৪ মিটার একটি সেতু।

ওই খালে তীব্র স্রোত ও বিভিন্ন সময়ে হওয়া দুর্যোগে ২০১৭ সালে ভেঙে যায় সেতুর একাংশ। এরপর সেতুর ভাঙা অংশ থেকে পাড় পর্যন্ত সাঁকো বানিয়ে চলছে পারাপার।

ভেঙে যাওয়ার আগে সেতু দিয়ে চলাচল করত সদরের শংকরপাশা ও শারিকতলা ইউনিয়নের বাদুরা, মল্লিকবাড়ি, গাজীপুর ও বাইনখালীসহ ১০ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষ। সেতুর জায়গায় হওয়া সাঁকো দিয়েও চলছে একইসংখ্যক মানুষ। এত মানুষের চাপে নড়বড়ে সাঁকোটিও।

বাদুরা গ্রামের শহিদুল ইসলাম ও আমিনা খানমসহ বেশ কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ২০১৭ থেকে সেতুটি ভেঙে অচল হয়ে গেলে তা আবার নির্মাণে নেয়া হয়নি কোনো উদ্যােগ।

সেতু ভাঙা, ভরসা নড়বড়ে সাঁকো

এতে সেতুর দুই পাশের অন্তত ১০ গ্রামের মানুষের কৃষিপণ্য বেচাকেনা, চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যাতায়াত ও শিক্ষার্থীদের স্কুল-কলেজে যাওয়া বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

ভুক্তভোগী গ্রামের বাসিন্দাদের উদ্যোগে সাঁকো নির্মাণ হলেও তা দিয়ে সেতুর কাজ হচ্ছে না।

বাইনখালী গ্রামের সোহেল খান ক্ষোভ প্রকাশ করে নিউজবাংলাকে জানান, ভাঙা সেতু নির্মাণে এগিয়ে আসেনি কোনো জনপ্রতিনিধি বা সরকারি কর্মকর্তারা।

তিনি অতি দ্রুত খালে একটি সেতু নির্মাণের দাবি জানান।

স্থানীয় মুদি ব্যবসায়ী মো. ইমরান জানান, সেতুটি দীর্ঘদিন অচল থাকায় খালের দুই পারের ছোট-বড় ব্যবসায়ীরা পড়েছেন বিপাকে। দোকানগুলোতে বেচাকেনা নেই। তারা লোকসানে আছেন।

সেতু ভাঙা, ভরসা নড়বড়ে সাঁকো

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শংকরপাশা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মনির গাজী বলেন, সেতু ভেঙে যাওয়ার পর থেকে জনগণের যাতায়াতের সুবিধায় তিন-চারবার বাঁশের সাঁকো তৈরি করা হয়েছে। সেটিও ভেঙে যাচ্ছে বারবার। এ মুহূর্তে জরুরি প্রয়োজন একটি নতুন সেতু।

এ বিষয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) পিরোজপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুস সাত্তার হাওলাদার বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি যত দ্রুত সম্ভব ব্রিজটি নির্মাণে কাজ করতে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বশির আহমেদ জানান, সদর উপজেলার বেশ কিছু ভাঙা সেতু নির্মাণ ও সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। খুব দ্রুতই তা বাস্তবায়ন করা হবে।

আরও পড়ুন:
অবহেলা ও রুট না মানায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা
শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগীদের ভোগান্তি
রাতে লঞ্চ বন্ধ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে
কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতুর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন
নদীতে ৫০ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার

শেয়ার করুন

মন্তব্য

গ্রামের বাড়ি বেড়াতে গিয়ে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

গ্রামের বাড়ি বেড়াতে গিয়ে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ছবি: নিউজবাংলা

কর্ণসূতি গ্রামের মোড়ল শামিম আহম্মেদ জানান, জান্নাতুল ও প্রতিবেশী মিথিলা বাড়ির পাশে খালে ভেলায় করে খেলছিল। এক পর্যায়ে তারা দুইজনই খালের পানিতে পড়ে যায়। পরে দুইজনকে হাসপাতালে নেয়া হলে জান্নাতুলকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরেক শিশু।

উপজেলার কর্ণসূতি গ্রামে সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

৫ বছর বয়সী জান্নাতুল খাতুন ওই গ্রামের নুরুল ইসলামের মেয়ে।

এ ঘটনায় মিথিলা নামে আরেক শিশুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কর্ণসূতি গ্রামের মোড়ল শামিম আহম্মেদ জানান, গত কয়েক দিন আগে ঢাকা থেকে শিশু জান্নাতুল তাদের গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসে। জান্নাতুল ও প্রতিবেশী মিথিলা বাড়ির পাশে খালে ভেলায় করে খেলছিল।

এক পর্যায়ে তারা দুইজনই খালের পানিতে পড়ে যায়। মিথিলা ছটফট করতে থাকলে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে।

মোড়ল শামিম আরও জানান, বাড়ির আশে পাশে কোথাও জান্নাতুলকে না পেয়ে খালে খুঁজতে থাকে। এক পর্যায়ে জাল দিয়ে খুঁজতে খুঁজতে পানির নিচ থেকে জান্নাতুলকে উদ্ধার করে।

পরে দুইজনকে হাসপাতালে নেয়া হলে জান্নাতুলকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। আহত মিথিলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আরও পড়ুন:
অবহেলা ও রুট না মানায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা
শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগীদের ভোগান্তি
রাতে লঞ্চ বন্ধ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে
কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতুর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন
নদীতে ৫০ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার

শেয়ার করুন

দালাল চক্রের ৩ সদস‍্যকে জরিমানা

দালাল চক্রের ৩ সদস‍্যকে জরিমানা

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে দালাল চক্রের তিন সদস‍্যকে জরিমানা করেছে ভ্রাম‍্যমাণ আদালত। ছবি: নিউজবাংলা

নির্বাহী ম‍্যাজিস্ট্রেট রাকিবুল ইসলাম জানান, মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে একটি দালাল চক্র রোগীদের ভুল তথ‍্য দিয়ে ব‍্যক্তিমালিকানাধীন বেসরকারি ক্লিনিক ও বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করে আসছিল।

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে দালাল চক্রের তিন সদস‍্যকে জরিমানা করেছে ভ্রাম‍্যমাণ আদালত।

সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাকিবুল হাসান সোমবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

দালাল চক্রের সদস্যরা হলেন, শাজাহান আলী, বাকের আলী এবং সোহাগ হোসেন।

নির্বাহী ম‍্যাজিস্ট্রেট রাকিবুল ইসলাম জানান, মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের একটি দালাল চক্র রোগীদের ভুল তথ‍্য দিয়ে ব‍্যক্তিমালিকানাধীন বেসরকারি ক্লিনিক ও বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করে আসছিল। এমন তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার বেলা ২টার দিকে ওই হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে তিন দালালকে দুই হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

তিনি আরও জানান, এ সময় কয়েকজনকে মুচলেকা দিয়ে এমন অপরাধ না করার শর্তে ছেড়ে দেয়া হয়।

আরও পড়ুন:
অবহেলা ও রুট না মানায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা
শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগীদের ভোগান্তি
রাতে লঞ্চ বন্ধ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে
কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতুর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন
নদীতে ৫০ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার

শেয়ার করুন

১৬ কেজির কাতল বিক্রি ২৩৭০০ টাকায়

১৬ কেজির কাতল বিক্রি ২৩৭০০ টাকায়

সাগর হালদারের জালে ১৬ কেজি ওজনের কাতল মাছটি ধরা পড়ে। ছবি: নিউজবাংলা

মাছ ব্যবসায়ী শাজাহান শেখ নিউজবাংলাকে বলেন, ‘জেলে সাগর হালদার মাছটি দুপুরে বিক্রির জন্য আনলে আমি মাছটি কিনে নিই। পরে ঢাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে মাছটি দেড় হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি করি।’

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে পদ্মা নদীতে প্রায় ১৬ কেজি ওজনের একটি কাতল মাছ ধরা পড়েছে।

দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের কাছে পদ্মা নদী থেকে সোমবার দুপুর ১টার দিকে জেলে সাগর হালদারের জালে মাছটি ধরা পড়ে।

তিনি জানান, দুপুর ১টার দিকে ১৫ কেজি ৮০০ গ্রামের মাছটি পেয়ে বিক্রির জন্য দৌলতদিয়া বাইপাস সড়কে শাকিল সোহান মৎস্য আড়তে নিয়ে আসেন। আড়ত মালিক শাজাহান শেখ মাছটি ১ হাজার ৪৫০ টাকা কেজি দরে কিনে নেন।

পরে মাছ ব্যবসায়ী শাজাহান শেখ মোবাইলের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্থানে যোগাযোগ করে ঢাকায় ১ হাজার ৫০০ টাকা কেজি দরে ২৩ হাজার ৭০০ টাকায় মাছটি বিক্রি করেন।

মাছ ব্যবসায়ী শাজাহান শেখ নিউজবাংলাকে বলেন, ‘জেলে সাগর হালদার মাছটি দুপুরে বিক্রির জন্য আনলে আমি মাছটি কিনে নিই। পরে ঢাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে মাছটি দেড় হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি করি।’

আরও পড়ুন:
অবহেলা ও রুট না মানায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা
শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগীদের ভোগান্তি
রাতে লঞ্চ বন্ধ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে
কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতুর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন
নদীতে ৫০ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার

শেয়ার করুন

নিজ বাড়ির সামনে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা

নিজ বাড়ির সামনে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় কৃষককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ছবি: নিউজবাংলা

লালমনিরহাট সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (বি-সার্কেল) তাপস সরকার নিউজবাংলাকে জানান, আব্দুল মালেক রোববার রাতে বাড়ির সামনে একটু অন্ধকারে একা বসে ছিলেন। এ সময় পেছন দিক থেকে দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় এক কৃষককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

উপজেলার তিস্তা ব্যারাজের পাশে দোয়ানী এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আব্দুল মালেকের বাড়ি গড্ডিমারী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের দোয়ানী এলাকাতেই।

মালেকের পরিবারের দাবি জমিসংক্রান্ত মামলার জেরে তাকে হত‌্যা করা হয়েছে।

লালমনিরহাট সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (বি-সার্কেল) তাপস সরকার নিউজবাংলাকে জানান, আব্দুল মালেক রোববার রাতে বাড়ির সামনে একটু অন্ধকারে একা বসে ছিলেন। এ সময় পেছন দিক থেকে দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

হত্যার কারণ জানতে চাইলে পুলিশ সুপার জানান, মালেকের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে তদন্ত করা হচ্ছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

পাশাপাশি অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন:
অবহেলা ও রুট না মানায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা
শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগীদের ভোগান্তি
রাতে লঞ্চ বন্ধ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে
কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতুর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন
নদীতে ৫০ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার

শেয়ার করুন

বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে দুই শিশুসহ নিহত ৩

বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে দুই শিশুসহ নিহত ৩

হবিগঞ্জের মাধবপুরে বাসচাপায় অটোরিকশার তিনজন নিহত হয়েছেন। ছবি: নিউজবাংলা

শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মাইনুল ইসলাম জানান, অসুস্থ শিশু মোশারফকে নিয়ে একই পরিবারের তিনজন অটোরিকশায় করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাচ্ছিলেন। পথে অটোরিকশাটি আন্দিউড়া এলাকায় পৌঁছলে ঢাকা থেকে সিলেটগামী সাগরিকা বাসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই শিশু মোশারফ ও জব্বার মিয়া মারা যান।

হবিগঞ্জের মাধবপুরে অসুস্থ ছেলেকে হাসপাতালে নেয়ার পথে বাবাসহ বাসচাপায় অটোরিকশার তিন যাত্রী নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয় আরও দুজন।

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে উপজেলার আন্দিউড়া এলাকায় উম্মেতুনেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে সোমবার দুপুর ১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুল ইসলাম নিউজবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলো, ৩ বছর বয়সী শিশু মোশারফ মিয়া, ৮ বছর বয়সী রূপা আক্তার ও জব্বার মিয়া। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য।

আহত তিনজনের পরিচয় এখনও জানতে পারেনি পুলিশ।

শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুল ইসলাম জানান, অসুস্থ শিশু মোশারফকে নিয়ে একই পরিবারের তিনজন অটোরিকশায় করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাচ্ছিলেন। পথে অটোরিকশাটি আন্দিউড়া এলাকায় পৌঁছলে ঢাকা থেকে সিলেটগামী সাগরিকা বাসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই শিশু মোশারফ ও জব্বার মিয়া মারা যান।

পরে মাধবপুর থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহত চারজনকে উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রূপা আক্তার মারা যায়।

আরও পড়ুন:
অবহেলা ও রুট না মানায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা
শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগীদের ভোগান্তি
রাতে লঞ্চ বন্ধ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে
কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতুর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন
নদীতে ৫০ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার

শেয়ার করুন

অটোরিকশায় ট্রাকের ধাক্কা, রাজমিস্ত্রি নিহত

অটোরিকশায় ট্রাকের ধাক্কা, রাজমিস্ত্রি নিহত

জামালপুরে দুর্ঘটনার পর স্থানীয়রা ট্রাকটি আটক করলেও পালিয়ে যায় ট্রাকের চালক ও হেলপার। ছবি: নিউজবাংলা

জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. অনিক জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত চারজনকে ভর্তি করার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরের দিকে রকিবুল মারা যান। বাকি তিনজন চিকিৎসাধীন।

জামালপুরের মেলান্দহে অটোরিকশায় ট্রাকের ধাক্কায় একজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন তিনজন।

উপজেলার চরবানি পাকুরিয়া ইউনিয়নের তালতলা এলাকায় সোমবার সকাল ৮টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত রাজমিস্ত্রি রকিবুল টিকাদারের বাড়ি মেলান্দহ উপজেলার সাধুপুর গ্রামে।

আহতরা হলেন একই গ্রামের নুরু শেখ, সুরুজ মিয়া ও মিলন মিয়া। তারা সবাই জেলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মেলান্দহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) এম এম মঈনুল ইসলাম জানান, সকালে মেলান্দহের ঝিনাই ব্রিজের পরে দেওয়ানগঞ্জগামী একটি ট্রাক জামালপুরগামী অটোরিকশাটিকে সামনে থেকে ধাক্কা দেয়। এতে অটোরিকশার চার যাত্রী গুরুতর আহত হন।

জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. অনিক জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত চারজনকে ভর্তি করার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরের দিকে রকিবুল মারা যান। বাকি তিনজন চিকিৎসাধীন।

ওসি মঈনুল জানান, দুর্ঘটনার পর স্থানীয়রা ট্রাকটি আটক করলেও পালিয়ে যান ট্রাকের চালক ও হেলপার।

এই ঘটনায় পুলিশ কোনো অভিযোগ পায়নি বলেও জানান ওসি।

আরও পড়ুন:
অবহেলা ও রুট না মানায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা
শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগীদের ভোগান্তি
রাতে লঞ্চ বন্ধ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে
কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতুর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন
নদীতে ৫০ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার

শেয়ার করুন

সাপের কামড়ে নারীসহ মৃত ২

সাপের কামড়ে নারীসহ মৃত ২

মৃত মোকাদ্দেস হোসেনের ছোট ভাই হাবিবুর রহমান জানান, ভোররাত সাড়ে ৪টার দিকে তার ভাই প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলে গোখড়া সাপ তাকে দংশন করে। আর দক্ষিণ মনোহরপুর গ্রামের গৃহবধূ রোকসানা বেগমকে গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় সাপ কামড় দেয়।

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সাপের কামড়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলার রঘুনন্দনপুর ও দক্ষিণ মনোহরপুর গ্রামে রোববার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন, রঘুনন্দনপুর গ্রামের মোকাদ্দেস হোসেন ও দক্ষিণ মনোহরপুর গ্রামের আজগার আলির স্ত্রী রোকসানা বেগম।

মৃত মোকাদ্দেস হোসেনের ছোট ভাই হাবিবুর রহমান জানান, ভোররাত সাড়ে ৪টার দিকে তার ভাই প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলে গোখড়া সাপ তাকে দংশন করে। প্রথমে তাকে স্থানীয় ওঝার কাছে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে সকাল ৮টার দিকে তাকে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে চিকিৎসক মোকাদ্দেসকে মৃত ঘোষণা করেন।

শৈলকুপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যালের অফিসার কনক জানান, তার পায়ে দুটি দংশনের চিহ্ন রয়েছে। স্থানীয় কবিরাজ দেখিয়ে রোগীকে অনেক দেরিতে হাসপাতালে আনা হয়েছে। হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে নিত্যানন্দপুর ইউনিয়নের ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য বলাই কুমার বিশ্বাস জানান, দক্ষিণ মনোহরপুর গ্রামের গৃহবধূ রোকসানা বেগম ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। গভীর রাতে তাকে সাপ কামড় দেয়।

পরে যন্ত্রণা শুরু হলে স্বজনরা তাকেও প্রথমে গ্রাম্য ওঝার কাছে নিয়ে যান। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান তিনি।

আরও পড়ুন:
অবহেলা ও রুট না মানায় পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা
শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগীদের ভোগান্তি
রাতে লঞ্চ বন্ধ শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে
কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতুর প্রতিরক্ষা বাঁধে ফের ভাঙন
নদীতে ৫০ কোটি টাকায় নির্মাণাধীন সেতুর গার্ডার

শেয়ার করুন