ঈদের দিন ঘুরতে বেরিয়ে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণের’ শিকার

ঈদের দিন ঘুরতে বেরিয়ে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণের’ শিকার

ঈদের দিন বিকেলে ১১ ও ৭ বছরের দুই ভাগনেকে নিয়ে রেলস্টেশন এলাকায় ঘুরছিলেন ওই তরুণী। সন্ধ্যার দিকে সেখানে হাজির হন ওই তিন যুবক। তারা ভাগনেদের সামনে থেকে তরুণীকে রেললাইনের নিচে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

গোপালগঞ্জে ঈদের দিন ঘুরতে বেরিয়ে এক তরুণী সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গোপালগঞ্জ সদর থানায় মামলা হওয়ার পর এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোপীনাথপুর রেলস্টেশনের কাছে বুধবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। ওই তরুণীর বাড়ি নড়াইলের কালিয়া উপজেলায়। ঈদ উপলক্ষে গোপালগঞ্জে বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন তিনি।

ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার এক আসামি হলেন গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলিয়া গ্রামের শরিফুল। বাকি দুই আসামি পলাতক।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, ঈদের দিন বিকেলে ১১ ও ৭ বছরের দুই ভাগনেকে নিয়ে রেলস্টেশন এলাকায় ঘুরছিলেন ওই তরুণী। সন্ধ্যার দিকে সেখানে হাজির হন ওই তিন যুবক। তারা ভাগনেদের সামনে থেকে তরুণীকে রেললাইনের নিচে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

ওসি আরও জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর আসামিদের গ্রেপ্তারে দ্রুত অভিযানে নামে পুলিশ। পরে গভীর রাতে শরিফুলকে পুলিশ গ্রেপ্তার করা হয়। পলাতক দুই আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

রেলওয়ের এলাকায় হওয়ায় মামলা ও আসামি রেল পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তাদের খবর দেয়া হয়েছে। পরবর্তী পদক্ষেপ রেল পুলিশ নেবে।’

আরও পড়ুন:
ধর্ষণের মামলা তুলে নিতে শিশুর পরিবারকে ‘হুমকি’
ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ ‘ধর্ষণ’
‘ধর্ষণে’ অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী
খাবার কিনে ফেরার পথে শিশু ‘ধর্ষণের শিকার’
শিশুকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

শেয়ার করুন

মন্তব্য