করোনা পরবর্তী জটিলতায় মারা গেলেন গবেষক ভূঁইয়া ইকবাল

করোনা পরবর্তী জটিলতায় মারা গেলেন গবেষক ভূঁইয়া ইকবাল

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সাবেক অধ্যাপক, গবেষক ও সম্পাদক ভূঁইয়া ইকবাল।

ভূঁইয়া ইকবাল ১৯৭৩ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দেন এবং বাংলা বিভাগের অধ্যাপক পদ থেকে ২০১৩ সালে অবসর নেন।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন গবেষক, সম্পাদক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ভূঁইয়া ইকবাল।

রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে বৃ্হস্পতিবার সকালে ৭৫ বছর বয়সে তার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার ছেলে অনিন্দ্য ইকবাল।

তিনি বলেন, ‘কয়েক দিন আগে তার করোনা শনাক্ত হয়। এরপর রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরও এ-সংক্রান্ত জটিলতা থাকায় ইউনাইটেড হাসপাতালে বাবা চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই ভোর ৬টায় তিনি মারা যান।’

অধ্যাপক ভূঁইয়া ইকবাল ১৯৪৬ সালের ২২ নভেম্বর ভোলায় জন্মগ্রহণ করেন। বেড়ে ওঠেন ঢাকায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শেষে ১৯৮৪ সালে তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করেন।

অধ্যাপক ভূঁইয়া ইকবালের কর্মজীবনের সূচনা তৎকালীন দৈনিক পাকিস্তান পত্রিকায়। ১৯৭৩ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দেন এবং বাংলা বিভাগের অধ্যাপক পদ থেকে ২০১৩ সালে অবসর নেন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে অধ্যাপনার পাশাপাশি চালিয়ে যান গবেষণা আর সম্পাদনা। তার অন্যতম গ্রন্থ ‘বাংলাদেশে রবীন্দ্র-সংবর্ধনা’, ‘রবীন্দ্রনাথ ও মুসলমান সমাজ’, ‘পূর্ববঙ্গে রবীন্দ্র-বক্তৃতা’, ‘মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়’, ‘শামসুর রাহমান: নির্জনতা থেকে জনারণ্যে’, ‘আনিসুজ্জামান: সমাজ ও সংস্কৃতি’ উল্লেখযোগ্য।

‘মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়’ সম্পাদনার জন্য পেয়েছেন বাংলাদেশ লেখক শিবিরের হুমায়ুন কবির স্মৃতি পুরস্কার। প্রবন্ধ গবেষণার জন্য তিনি ২০১৪ সালে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত হন।

আরও পড়ুন:
ঈদের দিনেও মানবসেবায় চরমোনাই ভলান্টিয়ার সার্ভিস টিম  
ঈদের দিন ১৭৩ মৃত্যুর খবর
করোনা: সংক্রমণের শীর্ষে ১০ জেলা
৫ জেলায় ৬৪ মৃত্যু
টিকেএস হেলথকেয়ারকে অনুমোদনের পরিপত্রটি ভুয়া

শেয়ার করুন

মন্তব্য