নামাজ পড়া নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৮

নামাজ পড়া নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৮

মসজিদ কমিটির সভাপতি মাহবুব আলম ও তার পক্ষের লোকজন জোহরের নামাজ পড়তে গিয়ে দেখেন মসজিদে তালা। তখন তারা মসজিদের বারান্দাতেই নামাজ পড়ার প্রস্তুতি নেন। এ সময় অপর পক্ষের শফিক মিয়া ও তাদের লোকজন মসজিদে এলে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়।

মসজিদে জোহরের নামাজ পড়াকে কেন্দ্র করে নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ৮ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৩ জনকে আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলার চান্দপাড়া গ্রামে বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহ নেওয়াজ।

গ্রামবাসীর বরাতে পুলিশ জানায়, উত্তরপাড়া জামে মসজিদের পরিচালনা কমিটি নিয়ে সভাপতি মাবুবুল আলমের সঙ্গে গ্রামের বাসিন্দা শফিক ও কবীর মিয়ার বিরোধ চলছে।

সকালে ঈদের জামাত আদায় করতে গ্রামের সবাই মসজিদে যান। তখন এক পক্ষ ঈদের নামাজ মসজিদ ও বারান্দায় করার কথা বলেন। অপর পক্ষ মসজিদ মাঠে করার কথা বললে তা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। পরে গ্রামের মুরব্বিদের হস্তক্ষেপে শান্তিপূর্ণভাবে মসজিদে ঈদের নামাজ শেষ হয়।

দুপুরে মাহবুব আলম ও তার পক্ষের লোকজন জোহরের নামাজ পড়তে গিয়ে দেখেন মসজিদে তালা। তখন তারা মসজিদের বারান্দাতেই নামাজ পড়ার প্রস্তুতি নেন। এ সময় অপর পক্ষের শফিক মিয়া, কবীর মিয়া ও তাদের লোকজন মসজিদে এলে, দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে আহত হন ৮ জন।

কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। আহত ৩ জনকে নেত্রকোণা হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। বাকিদের বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। অভিযোগ পেলে মামলা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন:
ফুটবল খেলা নিয়ে ঈদের দিনে সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত শতাধিক
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হাটে গরু রাখা নিয়ে সংঘর্ষে প্রাণহানি
ইমাম নিয়ে বিরোধ, পুলিশ পাহারায় জুমার নামাজ
তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিক-নিরাপত্তাকর্মী সংঘর্ষে আহত ৩
আধিপত্য বিস্তারের জেরে সংঘর্ষ, নিহত ১

শেয়ার করুন

মন্তব্য