যাত্রীবাহী ট্রলারে ডাকাতি, আটক ২

যাত্রীবাহী ট্রলারে ডাকাতি, আটক ২

প্রতীকী ছবি

ট্রলারের যাত্রী মো. সৈকত জানান, রোববার বিকেলে শরীয়তপুরের ফেরিঘাট থেকে ৩০-৩৫ জন যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার চাঁদপুরের উদ্দেশে রওনা হয়। ইব্রাহিমপুর চর এলাকায় দিয়ে মেঘনা পার হওয়ার সময় একটি স্পিডবোটে করে ১০-১২ জনের ডাকাত দল ট্রলারটির গতিরোধ করে।

চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে যাত্রীবাহী ট্রলারে ডাকাতির ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত স্পিডবোট।

সদর উপজেলার ইব্রাহিমপুর চর এলাকায় রোববার বিকেলের এই ঘটনা রাতে নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেন নৌ পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান।

আটকরা হলেন হলেন শরীয়তপুরের সখিপুর উপজেলার উত্তর তারাবুনিয়া এলাকার আলতাফ হোসেন ও একই এলাকার মনির হোসেন প্রধানীয়া।

ট্রলারের যাত্রী মো. সৈকত জানান, রোববার বিকেলে শরীয়তপুরের ফেরিঘাট থেকে ৩০-৩৫ জন যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার চাঁদপুরের উদ্দেশে রওনা হয়। ইব্রাহিমপুর চর এলাকায় দিয়ে মেঘনা পার হওয়ার সময় একটি স্পিডবোটে করে ১০-১২ জনের ডাকাত দল ট্রলারটির গতিরোধ করে।

পরে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে যাত্রীদের নগদ টাকা, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করতে থাকে। ডাকাতদের আঘাতে কয়েকজন যাত্রী আহত হন। পরে তারা শরীয়তপুরের দিকে পালিয়ে যায়।

চাঁদপুর নৌ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মুজাহিদুল ইসলাম জানান, পালিয়ে যাওয়ার সময় চেয়ারম্যান স্টেশন এলাকার স্থানীয়রা দুই ডাকাতকে আটক করে। এ সময় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি স্পিডবোট জব্দ করা হয়।

পরে পুলিশ ডাকাতদের শরীয়তপুরের সখিপুর থানায় নিয়ে যায়। সেখান থেকে রাতেই তাদের চাঁদপুর নৌ থানায় নিয়ে আসা হচ্ছে।

নৌ পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান বলেন, ট্রলারে থাকা যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে গেছে ডাকাত দলের সদস্যরা। তাদের আঘাতে কয়েকজন যাত্রী আহত হলে, তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পালিয়ে যাওয়া ডাকাতদের আটকে পুলিশ কাজ করছে।

আরও পড়ুন:
‘ডাকাতি করা’ ২১ গরুসহ গ্রেপ্তার ২
প্রকাশ্যে ট্রলারে ডাকাতি, আহত ৮
অস্ত্রের মুখে ডাকাতি, থানায় লিখিত অভিযোগ
পল্লীবিদ্যুতের সাবস্টেশনে দুর্ধর্ষ ডাকাতি
বাসায় ঢুকে অস্ত্রের মুখে ডাকাতি, আটক ২

শেয়ার করুন

মন্তব্য