‘ধর্ষণে’ অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী

‘ধর্ষণে’ অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী

গত ৩০ মার্চ রাতে ফাঁকা বাসায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করেন আসামি। কাউকে না বলার জন্য ভয় দেখান তিনি। পরে বিয়ের কথা বলে আরও কয়েকবার তাকে ধর্ষণ করা হয়।

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে দশম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। ওই স্কুলছাত্রী চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে জানা গেছে।

স্কুলছাত্রীর বাবা শনিবার রাতে তাদের ভাড়া বাসার মালিককে আসামি করে সিঙ্গাইর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

পুলিশ জানায়, স্কুলছাত্রীর মা দেশের বাইরে থাকেন। মেয়েকে নিয়ে তার বাবা আসামির বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। স্কুল বন্ধ থাকায় বাবা কাজের জন্য বাইরে গেলে বাড়িতে একাই থাকত ওই স্কুলছাত্রী।

গত ৩০ মার্চ রাতে ফাঁকা বাসায় ওই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করেন আসামি। কাউকে না বলার জন্য ভয় দেখান তিনি। পরে বিয়ের কথা বলে আরও কয়েকবার তাকে ধর্ষণ করা হয়।

ধর্ষণে কিশোরীর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর শনিবার জানাজানি হলে আসামি বাড়ি থেকে পালিয়ে যান।

স্কুলছাত্রীর বাবা বলেন, ‘আমার মেয়ের অনেক বড় ক্ষতি হয়ে গেল। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।’

সিঙ্গাইর থানার ওসি শফিকুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ‘আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হবে বলে আশা করছি।’

আরও পড়ুন:
খাবার কিনে ফেরার পথে শিশু ‘ধর্ষণের শিকার’
শিশুকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ
‘টিকটকে নাচ-গান শেখানোর নামে ধর্ষণ’, গ্রেপ্তার ১
গৃহবধূ ধর্ষণ মামলায় ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার
সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় দুই ভাইসহ গ্রেপ্তার ৩

শেয়ার করুন

মন্তব্য