জমি দখলে বাধা: প্রকাশ্যে নারীকে বেধড়ক মারধর

জমি দখলে বাধা: প্রকাশ্যে নারীকে বেধড়ক মারধর

নোয়াখালীতে জমি দখলে বাধা দিতে গিয়ে এক নারী মারধরের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ছবি: নিউজবাংলা

ওই নারী জানান, শনিবার সকালে প্রতিবেশী শাহজাহানের নেতৃত্বে কয়েকজন অস্ত্র নিয়ে বিরোধপূর্ণ একটি জমি দখলের চেষ্টা করে। এ সময় বাধা দিতে গেলে তারা ওই নারীর স্বামীর ওপর হামলা চালায় ও মারধর করে। পরে বাহারের চিৎকারে তার স্ত্রী তাকে বাঁচাত যায়। এ সময় ওই লোকেরা ওই নারীকে প্রকাশ্যে হেনস্তা করে ও বেধড়ক মারধর করে।

নোয়াখালী সদর উপজেলায় জমি দখলের সময় বাধা দেয়ার জেরে প্রকাশ্যে এক নারীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় আরও তিনজনকে মারধর করা হয়েছে।

সুধারাম থানার একটি গ্রামে শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। আহত হন ওই নারীর স্বামী, ছেলেসহ আরও একজন।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই নারী জানান, প্রতিবেশী মো. শাহজাহানের সঙ্গে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল তাদের। এর জেরে ওই গ্রামের এক নারীকে মারধর করে তার প্রতিবেশি শাহজাহান। এ নিয়ে চলতি বছরের ২৪ এপ্রিল সুধারাম থানায় শাহজাহানের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করেন তার স্বামী।

ওই নারী আরও জানান, শনিবার সকালে শাহজাহানের নেতৃত্বে মো. ফারুক, ছালেহ উদ্দিন, বাবরসহ কয়েকজন অস্ত্র নিয়ে বিরোধপূর্ণ ওই জমি দখলের চেষ্টা করেন। এ সময় বাধা দিতে গেলে তারা ওই নারীর স্বামীর ওপর হামলা চালায় ও মারধর করে। বাহারের চিৎকারে তার স্ত্রী তাকে বাঁচাতে যায়। এ সময় ওই লোকেরা ওই নারীকে প্রকাশ্যে হেনস্তা করে ও বেধড়ক মারধর করে। পরে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে শাহজাহানসহ অন্যরা পালিয়ে যায়।

আহতদের মধ্যে ওই নারী ও তার স্বামীকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর দুজনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহেদ উদ্দিন বলেন, ‘এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগের প্রস্তুতি চলছে। তদন্তের পর আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

আরও পড়ুন:
চুরির অভিযোগে মারধর, গ্রেপ্তার ২
আখাউড়ায় ভূমি কর্মকর্তাকে ‘মারধর’: গ্রেপ্তার ১
আ.লীগ নেতার ছেলেকে ‘পেটালেন’ কাউন্সিলর
সাংবাদিককে পেটালেন হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার
আম-কাঁঠাল কম দেয়ায় স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগে যুবক আটক

শেয়ার করুন

মন্তব্য