মাছ ধরার জাল চুরি নিয়ে বিবাদে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

মাছ ধরার জাল চুরি নিয়ে বিবাদে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘সোমবার রাতে খালে পেতে রাখা রুহুলের জালটি চুরি হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার বিকেলে বাড়ির পাশে বসে জাল বুনছিলেন রুহুল। ওই সময় পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন প্রতিবেশী ফুলচান। জালটি ফুলচান চুরি করেছে এমন সন্দেহের কথা জানালে বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে ফুলচানের পরিবারের লোকজন এসে লোহার রড দিয়ে রুহুলকে পেটাতে শুরু করে।’

ময়মনসিংহের ফুলপুরে মাছ ধরার জাল চুরি নিয়ে সন্দেহ করায় রুহুল আমিন নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবারের এ ঘটনায় শুক্রবার থানায় থানায় হত্যা মামলা করেছেন নিহতের ভাই রমিজুল ইসলাম।

বিষয়টি নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল্লাহ আল মামুন।

নিহত রুহুল আমিন হালুয়াঘাট উপজেলার স্বদেশী ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ফুলপুরের ঠাকুর বাহাই গ্রামে নানাবাড়ির সম্পত্তি পাওয়ায় সেখানেই থাকতেন।

মামলার বরাত দিয়ে ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘রুহুল বাড়ির পাশে খালে জাল পেতে নিয়মিত মাছ ধরতেন। সোমবার রাতে খালে পেতে রাখা রুহুলের জালটি চুরি হয়ে যায়। আশপাশে খোঁজ করেও কোথাও সেটি পাচ্ছিলেন না। বৃহস্পতিবার বিকেলে বাড়ির পাশে বসে জাল বুনছিলেন রুহুল। ওই সময় পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন প্রতিবেশী ফুলচান।

‘এ সময় জালটি ফুলচান চুরি করেছে এমন সন্দেহের কথা জানালে দুজনের মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে ফুলচানের পরিবারের লোকজন এসে লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ি পেটাতে শুরু করে রুহুলকে। তাকে বাঁচাতে খালাতো ভাই হাফিজুল ইসলাম এগিয়ে গেলে তাকেও পেটানো হয়। পরে দুজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় রুহুলের মৃত্যু হয়।’

ওসি বলেন, ‘এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে রুহুলের ভাই রমিজুল ইসলাম থানায় হত্যা মামলা করেন। এতে ফুলচানসহ সাতজনের নাম উল্লেখ করে আরও পাঁচজনকে অজ্ঞাতপরিচয় আসামি করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে। তবে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

আরও পড়ুন:
মাদক নিরাময় কেন্দ্রে নির্যাতনে হত্যার অভিযোগ
‘ডাকাতে’ শ্বাসরোধে হত্যা করেছে গৃহবধূকে, দাবি শ্বশুরবাড়ির
মা-বাবা জানেন শাহজালাল জীবিত, ফিরবেন শনিবার
ট্রাকচালককে হত্যা, গরু নিতে পারেনি দুর্বৃত্তরা
সাংবাদিক শামছুর রহমান হত্যার ২১ বছর, তদন্তেই আটকে বিচার

শেয়ার করুন

মন্তব্য