পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু 

পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু 

ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নুরুল ইসলাম নুরু জানান, জাহিদুল বাড়ি তৈরির জন্য মাটি কেটে গর্ত করা জায়গায় পানি জমে পুকুরে পরিণত হয়েছে। গর্ত অনেকটা গভীর হওয়ার কারণে দুই বোন উঠতে না পেরে ডুবে মারা যায়।

বগুড়ার শেরপুরে পুকুরে ডুবে দুই বোন মারা গেছে।

উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের ভাটারা গ্রামে রোববার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেছেন শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম।

মৃতরা হলো জেমি খাতুন ও মিম খাতুন। ১০ বছর বয়সী দুইজন সম্পর্কে মামাতো-ফুফাতো বোন। জেমি ওই গ্রামের জাহিদুল ইসলামের মেয়ে। আর মিম সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার বেলতলা গ্রামের সুমন হোসেনের মেয়ে।

মৃত দুই বোনের স্বজনরা জানান, মিমের বাবা-মা ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করার কারণে সে নানির কাছে থাকত। রোববার সকালে মিম ও তার মামাতো বোন জেমিসহ সমবয়সী কয়েকজন মিলে ওই পুকুরপাড়ে খেলতে যায়। একপর্যায়ে পা পিছলে জেমি পুকুরে পড়ে গেলে মিম তাকে বাঁচাতে পুকুরে নামলে দুজনই ডুবে যায়।

এ সময় তাদের সঙ্গে থাকা অন্যরা চিৎকার শুরু করলে এলাকাবাসী গিয়ে পুকুর থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করেন।

ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নুরুল ইসলাম নুরু জানান, জাহিদুল বাড়ি তৈরির জন্য মাটি কেটে গর্ত করা জায়গায় পানি জমে পুকুরে পরিণত হয়েছে। গর্ত অনেকটা গভীর হওয়ার কারণে দুই বোন উঠতে না পেরে ডুবে মারা যায়।

ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকলে মরদেহ দাফনের অনুমতি দেয়া হবে।

আরও পড়ুন:
বাড়ির পেছনের গর্তে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু
মাছ ধরতে গিয়ে প্রাণ গেল তরুণের
নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু
দ্বিতীয় বিয়ের প্রতিবাদ, ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু
হামলায় মৃত্যু, কারাগারে ২

শেয়ার করুন

মন্তব্য