শ্বশুরকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ, জামাতা পলাতক

শ্বশুরকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ, জামাতা পলাতক

শেরপুর থানার ওসি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসাদুলের বুকে ছুরিকাঘাত করে জামাতা সাব্বির পালিয়ে গেছেন। মরদেহ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

বগুড়ার শেরপুরে জামাতার ছুরিকাঘাতে আসাদুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের পারভবানীপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

৪৫ বছর বয়সী আসাদুল ইসলাম ওই গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, একই গ্রামের সাব্বির নামের এক যুবক আসাদুলের মেয়ে শিমুর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এক বছর আগে শিমু বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে সাব্বিরকে বিয়ে করেন। আসাদুল জামাতাকে মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানান। বেশ কয়েক দফা সালিশের পর পাঁচ মাস আগে আসাদুল তাদের মেনে নেন।

এর পরপরই শ্বশুরের কাছে যৌতুকের দাবি তোলেন সাব্বির। এ নিয়ে জামাতার সঙ্গে শ্বশুরের বিরোধ দেখা দেয়। বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে আসাদুল বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে তিনমাথা এলাকায় সাব্বির পথরোধ করে টাকা চান। এ নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে সাব্বির তার শ্বশুরের বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান।

স্থানীয় লোকজন আসাদুলকে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসাদুলের বুকে ছুরিকাঘাত করে সাব্বির পালিয়ে গেছেন। মরদেহ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

সাব্বিরকে ধরতে অভিযান চলছে বলেও জানান ওসি শহিদুল।

শেয়ার করুন

মন্তব্য