বাড়ির পাশের গলিতে নারীর মরদেহ

বাড়ির পাশের গলিতে নারীর মরদেহ

নিহত গৃহবধূ মিলি চক্রবর্তী। ছবি: নিউজবাংলা

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভীরুল ইসলাম জানান, সকালে গলির ভেতর মরদেহ দেখতে পেয়ে ৯৯৯-এ কল দিয়ে জানান স্থানীয় একজন। পরে তারা গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠান।

ঠাকুরগাঁও জেলা শহরে বাড়ির পাশের গলি থেকে মিলি চক্রবর্তী শান্তনা নামে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে সদর থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে ঠাকুরগাঁও পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড বাটা শোরুমের পাশের গলি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। মিলি শহরের তাঁতীপাড়ার সমীর কুমার রায়ের স্ত্রী।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভীরুল ইসলাম জানান, সকালে গলির ভেতর মরদেহ দেখতে পেয়ে ৯৯৯-এ কল দিয়ে জানান স্থানীয় একজন। পরে তারা গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠান।

তিনি আরও জানান, মরদেহের মুখসহ শরীরে আগুনে পোড়ার চিহ্ন রয়েছে। মৃত্যুর কারণ উদ্ঘাটনে সিআইডি, পিবিআইসহ পুলিশ কাজ করছে।

মিলির স্বামী সমীর কুমারের দাবি, সকালে ঘুম থেকে উঠে বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় মিলি তাকে বলেন, তিনি বাইরে যাচ্ছেন। পরে বাড়ির পাশের গলিতে তার মরদেহ পড়ে থাকার কথা জানতে পারেন।

শেয়ার করুন

মন্তব্য