২ মাথা ৩ পা নিয়ে জন্ম, ২ ঘণ্টা পর মৃত্যু

২ মাথা ৩ পা নিয়ে জন্ম, ২ ঘণ্টা পর মৃত্যু

অস্বাভাবিক শারীরিক গঠন নিয়ে জন্ম হয় শিশুটির। ছবি: নিউজবাংলার

শিশুর বাবা নিউজবাংলাকে জানান, এটি তাদের প্রথম সন্তান। গর্ভধারণের পাঁচ মাসের সময় স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে যান তার স্ত্রী। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তারা জানতে পারেন, গর্ভের ভ্রুণের দুটি মাথা আছে। তারা মনে করেন, গর্ভে হয়তো যমজ শিশু।

ব‌রিশা‌লে এক‌টি বেসরকা‌রি হাসপাতা‌লে দুই মাথা ও তিন পা নিয়ে জন্ম হয়েছে এক শিশুর। তবে জন্মের দুই ঘণ্টা পরই শিশুটি মারা যায়।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মঙ্গলবার রাতে নবজাতকটির মৃত্যু হয়েছে বলে জানান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও নবজাতকের বাবা-মা।

বরিশাল নগরীর ইসলামিয়া হাসপাতালে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিজারে সন্তান প্রসব করেন পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার আব্দুল জলিলের স্ত্রী শারমিন। নবজাতক আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে শের-ই বাংলা মেডিক্যালে নেয়া হয়। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

জলিল নিউজবাংলাকে জানান, এটি তাদের প্রথম সন্তান। গর্ভধারণের পাঁচ মাসের সময় স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে যান তার স্ত্রী। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তারা জানতে পারেন, গর্ভের ভ্রুণের দুটি মাথা আছে। তারা মনে করেন, গর্ভে হয়তো যমজ শিশু।

জলিল বলেন, গর্ভকাল পূর্ণ হলে বরিশাল নগরীর ইসলামিয়া হাসপাতালে গাইনি চিকিৎসক তানিয়া আফরোজের কাছে স্ত্রীকে নিয়ে যান তিনি। সেখানে পরীক্ষায় জানা যায়, যমজ নয়, একটিই শিশু, যার দুটি মাথা আছে। এরপর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিজারে শারমিনের সন্তান প্রসব করান। প্রসবের পর দেখা যায়, শিশুর দেহে দুই মাথা ও তিন পা।

প্রসবের পর নড়াচড়া না করায় তাকে শের-ই বাংলা মেডিক্যালে রেফার করা হয়। সেখানে নেয়ার পরপরই তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে চিকিৎসক তা‌নিয়া আফ‌রোজ ব‌লেন, ‘শা‌রীরিক ও গঠনগত ত্রুটির কারণে এ রকম নবজাতকের মৃত্যু হয়। ওই নবজাতক জন্মের পর মলত্যাগ করলেও কোনোরকম নড়াচড়া করেনি। এ কারণে তাকে শের-ই বাংলা মেডিক্যালে পাঠানো হয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত বাঁচেনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘ওই নারী পূর্ণাঙ্গ সময়েই বাচ্চা প্রসব করেছেন। সিজারের পর কিছুটা রক্তের সংকট দেখা দিলেও বর্তমানে তিনি সুস্থ রয়েছেন।’

আরও পড়ুন:
একে একে প্রাণ হারাল বৃষ্টির ৫ নবজাতক

শেয়ার করুন

মন্তব্য