হোটেল কক্ষের তালা ভেঙে নারীকে উদ্ধার

হোটেল কক্ষের তালা ভেঙে নারীকে উদ্ধার

গ্রেপ্তার শহিদুল ইসলাম। ছবি: নিউজবাংলা

ওসি জানান, গাজীপুরের টঙ্গীতে প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন বয়সের নারীদের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলের কক্ষে রেখে বাইরে থেকে দরজায় তালা দেয়া হত। পরে ওই নারীদের যৌন ব্যবসায় বাধ্য করত একটি সংঘবদ্ধ চক্র।

গাজীপুরের টঙ্গীতে অসহায় নারীদের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে আটকে রেখে যৌন ব্যবসায় বাধ্য করানোর অভিযোগে এক হোটেল ম্যানেজারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

একই সঙ্গে হোটেলের তালাবদ্ধ একটি ঘর থেকে ২৭ বছর বয়সী এক নারীকেও উদ্ধার করেছে সংস্থাটি।

গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম শহিদুল ইসলাম। তিনি যশোরের শার্শা উপজেলার লাউতারা এলাকার বাসিন্দা এবং গাজীপুরের টঙ্গী রেল স্টেশনের পাশের হাবিব গেস্ট হাউজের ম্যানেজার।

সোমবার বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর মেট্রাপলিটন পুলিশের (জিএমপির) টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদ মাসুদ।

ওসি জানান, গাজীপুরের টঙ্গীতে প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন বয়সের নারীদের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলের কক্ষে রেখে বাইরে থেকে দরজায় তালা দেয়া হত। পরে ওই নারীদের যৌন ব্যবসায় বাধ্য করত একটি একটি সংঘবদ্ধ চক্র।

তিনি বলেন, ‘গোপন সংবাদ পেয়ে রোববার রাতে পুলিশ টঙ্গী পূর্ব থানার রেল স্টেশন এলাকার হাবিব গেস্ট হাউজে অভিযান চালায়। এসময় বাইরে থেকে তালা দেয়া একটি ঘর থেকে এক তরুণীকে উদ্ধার করা হয়। তিনি সিরাজগঞ্জ জেলা সদরের মিরপুর এলাকার বাসিন্দা।

ওসি জানান, ঘটনায় জড়িত থাকায় ওই হোটেলের ম্যানেজার শহিদুল ইসলামকে আটক করা হয়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ওই হোটেলের মালিক হাবিবুর রহমান এবং পাশের আজাদ রেস্টুরেন্ট অ্যান্ড গেস্ট হাউজের মালিক মাসুদ দৌড়ে পালিয়ে যান। এ ঘটনায় মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে সোমবার দুপুরে থানায় মামলা হয়েছে।

আরও পড়ুন:
কিশোরীকে আটকে যৌন ব্যবসা: নারী কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে মামলা

শেয়ার করুন

মন্তব্য