যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

নিহত মতিউর রহমান মোহন।

এ বিষয়ে গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অনুকুল সরকার জানান, মোহনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে স্থানীয় যুবলীগ নেতাকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

শিবগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় রোববার সন্ধ্যার দিকে এ ঘটনা ঘটলেও সোমবার বেলা ১১টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গফরগাঁও থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবু বকর সিদ্দিক।

নিহত মতিউর রহমান মোহনের বাড়ি উপজেলার ৬ নম্বর রাওনা ইউনিয়নের পাঁচুয়া গ্রামে। তিনি রাওনা ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক নেতা ও সভাপতি পদপ্রার্থী ছিলেন।

নিহত ব্যক্তির পরিবার ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে এসআই আবু বকর জানান, রোববার বিকেল ৫টার দিকে দীঘা গ্রামে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার জন্য মোটরসাইকেলে করে বের হন মোহন। পথে ধোপাঘাট এলাকা থেকে তুলে নেন চাচাতো ভাই গ্রামপুলিশ কাঞ্চন মিয়াকে। এরপর শিবগঞ্জ বাজার থেকে মেয়ের জন্য জামাকাপড় কেনেন তিনি।

পরে সন্ধ্যা ৬টার দিকে শিবগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডের যাত্রী ছাউনির সামনে থেকে অজ্ঞাতপরিচয় দুই ব্যক্তি তাদের পথরোধ করে। তারা কাঞ্চনকে মারধর করে আটকে রেখে মোহনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মোহনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অনুকুল সরকার জানান, মরদেহ ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। মোহনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। জড়িত ব্যক্তিদের দ্রুতই গ্রেপ্তার করা হবে।

আরও পড়ুন:
হন্তারক ভালোবাসা
নিখোঁজের নয় দিন পর লাশ মিলল বিলে
‘স্ত্রী-কন্যা হত্যা’: শাহীনকে ধরতে পুরস্কার ঘোষণা
যুবককে হত্যা, অভিযুক্তের বাড়িতে আগুন
আইসোলেশনে করোনা রোগীর ‘আত্মহত্যা’

শেয়ার করুন

মন্তব্য