ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা, বিএনপি নেত্রীকে অব্যাহতি

ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা, বিএনপি নেত্রীকে অব্যাহতি

২৭ জুলাই শহরের বিজয় সিংহ এলাকার মহিপাল কলেজসংলগ্ন রুহুল আমিনের ছেলে দুলালের বিরুদ্ধে ‘বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ’-এর অভিযোগ এনে থানায় মামলা করেন পৌর বিএনপির নেত্রী। মামলায় দুলাল, তার বাবা-মাসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়।

ফেনীতে এক ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করার পর বিএনপি নেত্রীকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। সেই ছাত্রদল নেতাকেও পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

ছাত্রদল নেতার নাম কাজী নজরুল ইসলাম দুলাল। তিনি জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। আর সেই নেত্রী পৌর বিএনপির একটি পদে ছিলেন।

রোববার জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ বাহার ও সদস্যসচিব আলাল উদ্দিন আলালের যৌথ স্বাক্ষরে এক বিবৃতিতে সেই নেত্রীকে অব্যাহতি দেবার বিষয়টি জানানো হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়, ‘তার বিরুদ্ধে সংগঠনের শৃঙ্খলাপরিপন্থি অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগের প্রাথমিক তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে সাংগঠনিক পদ-পদবি থেকে তাকে অব্যাহতি দেয়া হলো। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে।’

আগের দিন দুলালের পদ স্থগিত করে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদ।

কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, ‘দুলালের বিরুদ্ধে সংগঠনের শৃঙ্খলাপরিপন্থি কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগের প্রাথমিক তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে তার সাংগঠনিক পদ-পদবি স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে।’

২৭ জুলাই শহরের বিজয় সিংহ এলাকার মহিপাল কলেজসংলগ্ন রুহুল আমিনের ছেলে দুলালের বিরুদ্ধে ‘বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ’-এর অভিযোগ এনে থানায় মামলা করেন পৌর বিএনপির নেত্রী।

মামলায় দুলাল, তার বাবা-মাসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়।

আরও পড়ুন:
ছাত্রলীগ-ছাত্রদল দুই-ই হারালেন সেই রনি
পুলিশ-ছাত্রদল সংঘর্ষ: ৫০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা
পুলিশ-ছাত্রদল সংঘর্ষ, আহত ২৫
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর আরোপ প্রতাহার চায় ছাত্রদল
‘রক্তের প্রতিশোধ’ নেবে ছাত্রদল

শেয়ার করুন

মন্তব্য