রাতে অজু করতে পুকুরে, ভোরে ভাসল দেহ

রাতে অজু করতে পুকুরে, ভোরে ভাসল দেহ

মঞ্জুর বাবা তৌফিক আলম খান রঞ্জু বলেন, তার ছেলে মৃগী রোগী ছিলেন। প্রতিদিন বাড়ির পাশের আহলে হাদিস মসজিদে নামাজ পড়ার জন্য ওই পুকুরে তিনি অজু করতেন।

সাতক্ষীরা শহরের রসুলপুরে পুকুরে অজু করতে গিয়ে নিখোঁজ ব্যক্তির মরদেহ পাওয়া গেছে পুকুরেই।

শহরের রসুলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের পুকুর থেকে রোববার ভোরে উদ্ধার করা হয় মরদেহটি।

মৃত ব্যক্তির নাম তৌছিফ আলম খান মঞ্জু। রসুলপুরে নিজ বাড়ির পাশে তার মুদির দোকান ছিল।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হুসেন মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মঞ্জুর বাবা তৌফিক আলম খান রঞ্জু বলেন, তার ছেলে মৃগী রোগী ছিলেন। প্রতিদিন বাড়ির পাশের আহলে হাদিস মসজিদে নামাজ পড়ার জন্য ওই পুকুরে তিনি অজু করতেন।

রঞ্জু জানান, শনিবার এশার নামাজের সময়ও মঞ্জু ওই পুকুরে অজু করতে যান। এরপর আর বাড়ি ফেরেননি। তাকে সম্ভাব্য সব জায়গায় রাতভর খোঁজা হয়। ভোরে ওই পুকুরে তার মরদেহ ভাসতে দেখে উদ্ধার করেন স্থানীয় লোকজন।

রঞ্জুর ধারণা, অজু করার সময় মৃগী রোগ দেখা দেয়ায় তার ছেলে পুকুরে পড়ে ডুবে যায়।

ওসি দেলোয়ার জানান, ঘটনার বিস্তারিত জানতে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:
‘ডোবায় ডুবে’ দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু
নদীতে গোসলে নেমে ডুবলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক
বাড়ির পাশের ডোবায় নিখোঁজ শিশুর মরদেহ
সুবর্ণচরে পানিতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু
নদীতে নিখোঁজ স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

শেয়ার করুন

মন্তব্য