মেঘনায় বাল্কহেডে চাঁদাবাজি, সংঘর্ষে নিহত ১

মেঘনায় বাল্কহেডে চাঁদাবাজি, সংঘর্ষে নিহত ১

চাঁদপুরের বেলতলী নৌপুলিশের ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম জানান, দুপুরে মেঘনা নদীতে ট্রলারে করে মামুনসহ কয়েকজন বাল্কহেডে চাঁদা তুলতে যান। তখন একটি বাল্কহেডের শ্রমিকদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষে মামুন মাথায় আঘাত পান। সঙ্গীরা গুরুতর আহতাবস্থায় গজারিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

চাঁদপুরের উত্তর মতলব এলাকায় মেঘনা নদীতে বাল্কহেডে শ্রমিকদের সঙ্গে সংঘর্ষে মামুন ব্যাপারী নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

মামুন সঙ্গীদের নিয়ে চাঁদা তুলতে গেলে শ্রমিকদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে মেঘনা নদীর চাঁদপুরের উত্তর মতলব সিধারচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

৩৮ বছর বয়সী মামুন গজারিয়া উপজেলার গুয়াগাছিয়া জামালপুরের বাসিন্দা। তিনি মেঘনা নদীর এই অঞ্চলের চিহ্নিত চাঁদাবাজ বলে জানিয়েছে নৌপুলিশ।

চাঁদপুরের বেলতলী নৌপুলিশের ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম জানান, দুপুরে মেঘনা নদীতে ট্রলারে করে মামুনসহ কয়েকজন বাল্কহেডে চাঁদা তুলতে যান। তখন একটি বাল্কহেডের শ্রমিকদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষে মামুন মাথায় আঘাত পান। সঙ্গীরা গুরুতর আহতাবস্থায় গজারিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এর মধ্যে বাল্কহেডটি অন্যদিকে চলে যায়।

গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রহিছ উদ্দিন জানান, মামুনের মরদেহ তার স্বজনরা গজারিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়েছেন। ঘটনাটি মেঘনার চাঁদপুরের উত্তর মতলব এলাকায় ঘটেছে। গজারিয়া থানা থেকে শুধু মরদেহের সুরতহাল করা হবে। মতলব উত্তর থানায় মামলা হবে।

আরও পড়ুন:
পুলিশের পোশাক পরে চাঁদাবাজি, কারাগারে ১
চাঁদাবাজির মামলায় যুবলীগ নেতা কারাগারে
জেলা প্রশাসকের ফোন নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি!

শেয়ার করুন

মন্তব্য