করোনা নিয়ে রোগী দেখছেন চিকিৎসক

করোনা নিয়ে রোগী দেখছেন চিকিৎসক

চিকিৎসক শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ। ছবি: নিউজবাংলা

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘ডাক্তার শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ করোনা আক্রান্ত হওয়ায় তাকে ছুটি দেয়া হয়েছে। তিনি ছুটিতে গিয়ে যদি আইসোলেশনে না থেকে চেম্বারে রোগী দেখে থাকেন, তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় আক্রান্ত এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে রোগী দেখার অভিযোগ উঠেছে।

অভিযুক্ত চিকিৎসকের নাম শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ। রোববারও তিনি শহরের হলি ল্যাব নামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে রোগী দেখছিলেন।

শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ হবিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের অর্থোপেডিক বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট। পাশাপাশি তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার কুমারশীল মোড়ের হলি ল্যাব হাসপাতালেও বসেন।

গত ১৪ জুন শ্যামলের স্ত্রীর করোনা শনাক্ত হয়। এরপর শ্যামল দুই বার করোনা অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তার ফল নেগেটিভ আসে। নমুনা ঢাকায় পাঠালে গত শনিবার আসা রিপোর্টে তিনি করোনা পজিটিভ হন।

এ বিষয়ে ডা. শ্যামল বলেন, ‘রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার সময় আমার পজিটিভ হওয়ার বিষয়টি জেনেছি। আমি তো রোগীদের আগেই সময় দিয়ে রেখে ছিলাম। তবে পজিটিভ হওয়ার চেম্বার বন্ধ করে দিয়েছি।’

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন একরাম উল্লাহ বলেন, বিষয়টি আমি জানি না। খোঁজ নিলে বিস্তারিত বলতে পারব। তবে করোনা পজিটিভ নিয়ে একজন চিকিৎসকের চেম্বার করা ঠিক হয়নি।

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘ডাক্তার শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ করোনা আক্রান্ত হওয়ায় তাকে ছুটি দেয়া হয়েছে। তিনি ছুটিতে গিয়ে যদি আইসোলেশনে না থেকে চেম্বারে রোগী দেখে থাকেন, তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

আরও পড়ুন:
ঋণ শোধে কিডনি বিক্রি করতে চান চিত্রশিল্পী
বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা দিচ্ছে আবুল খায়ের গ্রুপ
বাগেরহাটে এক দিনে করোনায় রেকর্ড শনাক্ত ১৭৭
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ১১৯ মৃত্যু
বরগুনায় ঠেকানো যাচ্ছে না করোনা সংক্রমণ

শেয়ার করুন

মন্তব্য