৩৫ লাখ টাকা নিয়ে ম্যানেজার পালানোর অভিযোগ

৩৫ লাখ টাকা নিয়ে ম্যানেজার পালানোর অভিযোগ

এ ঘটনায় ১৬ জুন করিম সুধারাম থানায় মঞ্জুর বিরুদ্ধে ৩৫ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলা করেন। এ ছাড়া মঞ্জুর সন্ধান দিলে ২ লাখ টাকা পুরস্কারেরও ঘোষণা দেন। এখনও তার কোনো সন্ধান না পাওয়ায় তিনি সংবাদ সম্মেলন করেন।

নোয়াখালী শহরে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ৩৫ লাখ টাকা নিয়ে ম্যানেজার পালিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন প্রতিষ্ঠানটির মালিক।

শহরের মাইজদীতে রোববার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন আবদুল করিম।

আবদুল করিম জানান, তিনি যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী। মাইজদী শহরে কলকাতা বাজার ও টার্গেট নামে তার দুটি পোশাকের দোকান আছে। ৬-৭ বছর ধরে এই দুই দোকানের ম্যানেজার ছিলেন ওসমান গনি মঞ্জু। তার বাড়ি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার রফিকপুর গ্রামে। সব লেনদেন মঞ্জুই করতেন।

করিমের অভিযোগ, গত ১৫ জুন সকাল ১০টার দিকে ৩৫ লাখ টাকা সোনালী ব্যাংকের নোয়াখালী শাখায় জমা দেয়ার জন্য মঞ্জুকে পাঠানো হয়। তিনি ওই টাকা ব্যাংকে জমা না দিয়ে নিয়ে পালিয়ে যান। মঞ্জু যে ব্যাংক থেকে টাকা নিয়েছেন তার প্রমাণ দোকানের ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ক্যামেরায় আছে।

৩৫ লাখ টাকা নিয়ে ম্যানেজার পালানোর অভিযোগ

এ ঘটনায় ১৬ জুন করিম সুধারাম থানায় মঞ্জুর বিরুদ্ধে ৩৫ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলা করেন। এ ছাড়া মঞ্জুর সন্ধান দিলে ২ লাখ টাকা পুরস্কারেরও ঘোষণা দেন। এখনও তার কোনো সন্ধান না পাওয়ায় তিনি সংবাদ সম্মেলন করেন।

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহেদ উদ্দিন নিউজবাংলাকে বলেন, ‘পুলিশ গুরুত্বের সঙ্গে মামলাটি তদন্ত করছে। শিগগিরই মঞ্জুর সন্ধান পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন:
কোটি টাকা নিয়ে উধাও সেই ছাত্রলীগ নেতাকে বহিষ্কার
এজেন্ট ব্যাংকের কোটি টাকা নিয়ে উধাও ছাত্রলীগ নেতা
কেনাকাটায় দুর্নীতি, সাবেক সিভিল সার্জনের দেশত্যাগে মানা
মোবাইলে যাওয়া প্রতিবন্ধীর ভাতা কৌশলে আত্মসাৎ
বিচারকের স্বাক্ষর জাল করে অর্থ আত্মসাৎ

শেয়ার করুন

মন্তব্য