পানিতে পড়ে মামা-ভাগনির মৃত্যু

পানিতে পড়ে মামা-ভাগনির মৃত্যু

আদমপুর ইউপি সদস্য জানান, জোবায়ের ভাইবোনের মধ্যে সবার ছোট। তার বড় চার বোন রয়েছে। তার বড় বোন খাতুন বেগম পরিবার নিয়ে তার মা ছালেমা বেগমের বাসায় বেড়াতে আসেন। খাতুনের স্বামী জব্বার বাসার পাশের ডোবায় মাছ ধরতে গেলে জোবায়ের ও মীম সেখানে মাছ ধরা দেখতে যায়। সবার অগোচরে কোনো একসময় ওই দুই শিশু ডোবার পানিতে পড়ে যায়।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে পুকুরের পানিতে পড়ে দুই শিশু মারা গেছে। তারা সম্পর্কে মামা ও ভাগনি।

উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের কান্দিগাঁও গ্রামের ওই পুকুর থেকে রোববার বেলা ১টার দিকে ওই দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে তাদের পরিবার। নিউজবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন আদমপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য রেজাউল করিম।

নিহত ১০ বছর বয়সী জোবায়ের হোসেন শুভ ওই ইউনিয়নের ভানুবিল গ্রামের মৃত পুতুল মিয়ার ছেলে। তারা কান্দিগাঁওয়ের তৌহিদুর রহমানের বাসায় ভাড়া থাকে। নিহত সাত বছর বয়সী মীম আক্তার জোবায়েরের বড় বোন খাতুন বেগম ও মধ্যভাগ গ্রামের জব্বার মিয়ার মেয়ে।

রেজাউল করিম জানান, জোবায়ের ভাইবোনের মধ্যে সবার ছোট। তার বড় চার বোন রয়েছে। তার বড় বোন খাতুন বেগম পরিবার নিয়ে তার মা ছালেমা বেগমের বাসায় বেড়াতে আসেন। খাতুনের স্বামী জব্বার বাসার পাশের ডোবায় মাছ ধরতে গেলে জোবায়ের ও মীম সেখানে মাছ ধরা দেখতে যায়। সবার অগোচরে কোনো একসময় ওই দুই শিশু ডোবার পানিতে পড়ে যায়। পরে তাদের না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করা হয়। দুপুরে ডোবার পানিতে শিশু দুটির মরদেহ ভেসে উঠলে উদ্ধার করে স্থানীয় বাজারে চিকিৎসকের কাছে নিলে তিনি ওই দুই শিশুকে মৃত ঘোষণা করেন।

কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়ারদৌস হাসান বলেন, ‘আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবদাল হোসেনের উপস্থিতিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। শিশু দুটির মরদেহ ছালেমা বেগমের বাসাতেই আছে।’

আরও পড়ুন:
পুকুরে ডুবে প্রাণ গেল দুই বছরের শিশুর
গর্তের পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু
দুই জেলায় পানিতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু
বাড়ির পাশের ডোবায় মিলল শিশুর মরদেহ
ধলেশ্বরীতে ডুবল দিনমজুরের প্রাণ

শেয়ার করুন

মন্তব্য