অন্তঃসত্ত্বাকে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ

অন্তঃসত্ত্বাকে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ

অন্তঃসত্ত্বা নারীকে ভুল চিকিৎসা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে এই হাসপাতালটির বিরুদ্ধে। ছবি: নিউজবাংলা

স্বজনদের অভিযোগ, রিক্তাকে দুপুরে অস্ত্রোপচারের জন্য আল খলিল হাসপাতালে আনা হয়েছিল। এ সময় গাইনি চিকিৎসক সায়মা রহমান ইমা অর্ধেক অস্ত্রোপাচার করে রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিতে বলেন।  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে এক অন্তঃসত্ত্বা নারীকে ভুল চিকিৎসা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

পৌর এলাকার আল খলিল হাসপাতালে বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

অন্তঃসত্ত্বা রিক্তা আক্তার বিজয়নগর উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের শাকিল মিয়ার স্ত্রী।

স্বজনদের অভিযোগ, রিক্তাকে দুপুরে অস্ত্রোপচারের জন্য আল খলিল হাসপাতালে আনা হয়েছিল। এ সময় গাইনি চিকিৎসক সায়মা রহমান ইমা অর্ধেক অস্ত্রোপাচার করে রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিতে বলেন।

এ বিষয়ে হাসপাতালে কর্তৃপক্ষ মানিক মিয়া জানান, রিক্তাকে সকালে শহরের আল বারাকা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে আল্ট্রাসনোগ্রাম করলে রিপোর্ট ভালো আসে এবং সেই রিপোর্ট নিয়ে আল খলিল হাসপাতালে চলে আসেন অস্ত্রোপচারের জন্য। কিন্তু যখন চিকিৎসক সায়মা রহমান অস্ত্রোপচার করা শুরু করেন তখন তিনি দেখেন যে রিপোর্টে যা লেখা হয়েছে তার সঙ্গে বাচ্চার অবস্থানের মিল নেই। রোগীর পরিবারকে বিষয়টি জানালে তারা হাসপাতালে ঝামেলা করে। পরে আমরা নিজ দায়িত্বে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠাই।

এ বিষয়ে চিকিৎসক সায়মা রহমানকে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

সদর মডেল থানার ওসি বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ভুল চিকিৎসার বিষয়ে কোনো অভিযোগ পাইনি। পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য