একে একে প্রাণ হারাল বৃষ্টির ৫ নবজাতক

একে একে প্রাণ হারাল বৃষ্টির ৫ নবজাতক

হাসপাতালের চিকিৎসক আব্দুস সালাম তারেক জানান, সোমবার দুপুর ১২টার দিকে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা বৃষ্টি পেটে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে আসেন। আল্ট্রাসনোগ্রাম করে তার গর্ভে পাঁচ শিশুর অস্তিত্ব পাওয়া যায়। সন্ধ্যা ছয়টার দিকে পাঁচ শিশুর জন্ম হয়। এর মধ্যে তিনটি ছেলে ও দুটি মেয়ে।

গাজীপুরের শ্রীপুরে একসঙ্গে জন্ম নেয়ার কিছুক্ষণ পরই মৃত্যু হয়েছে এক মায়ের পাঁচ নবজাতকের।

শ্রীপুর পৌর এলাকার মাওনা চৌরাস্তার মাদার্স কেয়ার অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতালে সোমবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

ওই নবজাতকদের মায়ের নাম বৃষ্টি আক্তার। তার বয়স ২১, বাড়ি কাপাসিয়ার নয়ানগর গ্রামে।

হাসপাতালের চিকিৎসক আব্দুস সালাম তারেক জানান, সোমবার দুপুর ১২টার দিকে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা বৃষ্টি পেটে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে আসেন। আল্ট্রাসনোগ্রাম করে তার গর্ভে পাঁচ শিশুর অস্তিত্ব পাওয়া যায়। সন্ধ্যা ছয়টার দিকে পাঁচ শিশুর জন্ম হয়। এর মধ্যে তিনটি ছেলে ও দুটি মেয়ে।

তিনি আরও বলেন, জন্মের কিছু সময় পরই নবজাতকরা একে একে মারা যায়। মূলত অপরিণত বয়সে জন্ম হওয়ায় তারা বাঁচেনি। বৃষ্টি এখন ওই হাসপাতারে ভর্তি আছেন।

বৃষ্টি নিউজবাংলাকে জানান, রোববার রাত থেকেই তার প্রসবব্যথা শুরু হয়। সোমবার সকালে রক্তক্ষরণও হয়। এরপর তিনি হাসপাতালে যান।

তিনি বলেন, গর্ভধারণের পর প্রাথমিক আল্ট্রাসনোগ্রামে তিনটি শিশুর অস্তিত্ব পাওয়া যায়। সোমবারই তিনি জানতে পারেন, তিনটি নয়, পাঁচটি সন্তান তার গর্ভে।

আরও পড়ুন:
ডাস্টবিনে পলিথিনে মোড়ানো ছিল নবজাতকের মরদেহ
নবজাতককে বিক্রির অভিযোগ, ফিরিয়ে আনল পুলিশ
চা-দোকানে ক্যারমবোর্ডের ওপর নবজাতক
ডাস্টবিন থেকে নবজাতক উদ্ধার
নবজাতকের মৃত্যু, চলে গেলেন করোনা আক্রান্ত মাও

শেয়ার করুন

মন্তব্য