চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১০০ জাতের আমের তথ্য নিয়ে বই

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১০০ জাতের আমের তথ্য নিয়ে বই

‘আমের ১০০ জাত’ নামের বইয়ে আলাদা আলাদাভাবে আম গাছের ছবি, ফলের তথ্য যেমন আকৃতি, ওজন, দৈর্ঘ্য, প্রস্থ, মিষ্টতার পরিমান (টিএসএস), শাঁসের রং, খাদ্য উপযোগী অংশ, ফল সংগ্রহের সময়, সংরক্ষণ কালসহ ৩০ থেকে ৩৫ টি তথ্য দেয়া হয়েছে।

প্রতিবছর দেশে উৎপাদিত মোট আমের সিংহভাগই আসে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে। প্রচলিত আছে এখানে প্রায় আট শ জাতের আমের চাষ হতো।

এখন সেই সংখ্যা নেমে এসেছে সাড়ে তিন শর ঘরে। এ জাতগুলো সম্পর্কে জানা এতদিন সহজ ছিল না মোটেও। তবে এবার জাতগুলোর তথ্য তুলে ধরতে উদ্যোগ নিয়েছে জেলা প্রশাসন। প্রচলিত ও অপ্রচলিত জাতের ওপর প্রকাশিত হয়েছে বই।

‘আমের ১০০ জাত’ নামের বইয়ে আলাদা আলাদাভাবে আম গাছের ছবি, ফলের তথ্য যেমন আকৃতি, ওজন, দৈর্ঘ্য, প্রস্থ, মিষ্টতার পরিমান (টিএসএস), শাঁসের রং, খাদ্য উপযোগী অংশ, ফল সংগ্রহের সময়, সংরক্ষণ কালসহ ৩০ থেকে ৩৫ টি তথ্য দেয়া হয়েছে।

বইটিতে গোপালভোগ, খিরসাপাত, ল্যাংড়া, ফজলি, সুরমাই ফজলি, আশ্বিনা ইত্যাদি প্রচলিত জাত ছাড়াও দেওভোগ, গোলা, মালদহ গুটি, মিশ্রি দাগি, শ্যামলতা, মিশ্রিকান্ত আমের জাতের বিস্তারিত তথ্য উঠে এসেছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১০০ জাতের আমের তথ্য নিয়ে বই


আমের জাতের তথ্য নিয়ে ‘আমের ১০০ জাত’ এটিই বাংলাদেশে প্রথম প্রকাশিত বই বলে দাবি করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বইটির প্রকাশক চাঁপাইনবাবগঞ্জের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক একেএম তাজকির-উজ-জামান নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আম চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের ব্র্যান্ড প্রোডাক্ট। বছরব্যাপী নানা কাজের মাধ্যমে জেলা প্রশাসন আমের বাজারজাত করণের জন্য নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ প্রকাশনা সেই ব্র্যান্ডিংয়ের একটা অংশ, এর সুফল পাবেন আম চাষি ও ব্যবসায়ীরা।’

আরও পড়ুন:
নওগাঁর আম গেল ইংল্যান্ড
হাঁড়িভাঙ্গা আমের জন্য অ্যাপ
‘আমার আইন, আমার অধিকার’-এ এবার ‘অনলাইনে নারী হয়রানি’
আমদানি বাড়লেও বিনিয়োগে সুখবর নেই
কোপাকে ঘিরে জমজমাট ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ট্রোলিং

শেয়ার করুন

মন্তব্য