জালে মাছ নয়, আটকা পড়ল লাশ

জালে মাছ নয়, আটকা পড়ল লাশ

‘আমি প্রতিদিন মাদলা খালে জাল দিয়ে মাছ ধরি। আজ সকালে জাল থেকে মাছ ছাড়াতে যাই। গিয়ে দেখি জালে মাছের জাগায় লাশ। পরে সাথে সাথে পুলিশকে খবর দেই।’

টাঙ্গাইলের সখীপুরে নিখোঁজের দুই দিন পর খাল থেকে এক ব্যক্তির বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

উপজেলার কাকড়াজান ইউনিয়নের ইন্দারজানি মাদলা খাল থেকে বুধবার বেলা ১১টার দিকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত রুহুল আমিন ঘাটাইল উপজেলার লাভলু মিয়ার ছেলে।

সখীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শাহিনুর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় জবান আলী বলেন, ‘আমি প্রতিদিন মাদলা খালে জাল দিয়ে মাছ ধরি। আজ সকালে জাল থেকে মাছ ছাড়াতে যাই। গিয়ে দেখি জালে মাছের জাগায় লাশ। পরে সাথে সাথে পুলিশকে খবর দেই।’

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য আমজাদ হোসেন বলেন, ‘রুহুল আমিন প্রায়ই ইন্দারজানি বাজারে আসতেন। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন।’

এসআই শাহিনুর জানান, রুহুল আমিন মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় প্রায়ই বাড়ির বাইরে থাকতেন। বাড়িতে আসা-যাওয়া থাকলেও গত দুই দিন তিনি নিখোঁজ ছিলেন।

তার মরদেহ উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য। ময়নাতদন্তের পর বোঝা যাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে, নাকি মানসিক ভারসাম্যহীনতায় তিনি একাই পানিতে ডুবে মারা গিয়েছেন। তবে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হবে।

আরও পড়ুন:
একাধিক মামলার আসামির মরদেহ দিঘির পাড়ে
নিজ বাড়িতে পশু খামারির মরদেহ, বাবার মামলা
বিল থেকে কিশোরের গলিত মরদেহ উদ্ধার
খেলার সময় পাহাড়ধসে শিশুর মৃত্যু
বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে আশায় ঢাকায় আসেন তুষ্টি

শেয়ার করুন

মন্তব্য