সড়ক দুর্ঘটনায় তিতুমীর কলেজের ছাত্রী নিহত

সড়ক দুর্ঘটনায় তিতুমীর কলেজের ছাত্রী নিহত

শুক্রবার সকালে চাচির বাড়ি সাতক্ষীরা থেকে চাচার সঙ্গে মোটরসাইকেলে নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন শার্লী। পথে খুলনার লবনচরায় পাশের রাস্তা থেকে হঠাৎ একটি সাইকেল তাদের সামনে চলে আসে। সাইকেল আরোহীকে বাঁচাতে গিয়ে চাচা মোটরসাইকেলের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারালে পেছনে বসা শার্লী ছিটকে রাস্তার পাশের রেলিংয়ের ওপর পড়ে যায়। 

খুলনায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মেহেরুন্নেছা শার্লী নামে এক কলেজছাত্রী নিহত হয়েছেন।

লবনচরা এলাকার রূপসা সেতু সংলগ্ন মহাসড়কে শুক্রবার এ দুর্ঘটনা ঘটে।

লবনচরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সমীর কুমার সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২১ বছর বয়সী শার্লীর বাড়ি বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার আট্টাকা গ্রামে। তিনি ঢাকার মিরপুরে চাচার বাসায় থেকে লেখাপড়া করতেন। তিনি সরকারি তিতুমীর কলেজের ছাত্রী ছিলেন।

নিহতের পরিবার নিউজবাংলাকে জানিয়েছে, শুক্রবার সকালে চাচির বাড়ি সাতক্ষীরা থেকে চাচার সঙ্গে মোটরসাইকেলে নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন শার্লী। পথে খুলনার লবনচরায় পাশের রাস্তা থেকে হঠাৎ একটি সাইকেল তাদের সামনে চলে আসে। সাইকেল আরোহীকে বাঁচাতে গিয়ে চাচা মোটরসাইকেলের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারালে পেছনে বসা শার্লী ছিটকে রাস্তার পাশের রেলিংয়ের ওপর পড়ে যায়। এতে তার মাথায় প্রচণ্ড আঘাত লাগলে ঘটনাস্থলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তিনি।

তাকে প্রথমে খুলনা সিটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল নেয়া হয়। পরে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

লবনচরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সমীর কুমার সরকার বলেন, এ ঘটনায় নিহতের পরিবার কোনো মামলা করতে চায়নি। তারা জেলা প্রশাসকের অনুমতি নিয়ে এলে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। শার্লীর মরদেহ বর্তমানে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রয়েছে।

আরও পড়ুন:
স্ত্রীকে হাসপাতালে নেয়ার পথে নিহত স্বামী
তেলবাহী লরির চাপায় গেল যুবকের প্রাণ
নারী পথচারীকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল প্রাইভেট কারচালকেরও
বাস খাদে পড়ে নিহত ১
দুর্ঘটনায় ব্যাংকের মাইক্রোচালকসহ নিহত ২

শেয়ার করুন

মন্তব্য