দামুড়হুদার ৬ সড়ক অবরুদ্ধ

দামুড়হুদার ৬ সড়ক অবরুদ্ধ

দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল জানান, কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের ভারত সীমান্তবর্তী হরিরামপুর ও শিবনগর গ্রামে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। করোনার উপসর্গ থাকলেও তা পরীক্ষা করাতে অনীহা দেখাচ্ছেন অনেকে।

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে দেশে চলা লকডাউনের মধ্যে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ভারতীয় সীমান্তবর্তী দুই ইউনিয়নের ছয়টি সড়ক বন্ধ করেছে উপজেলা প্রশাসন।

স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, ভারতীয় সীমান্তবর্তী হওয়ায় ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের করোনাভাইরাস এলাকায় ছড়িয়ে পড়তে পারে। এ আশঙ্কা থেকেই বুধবার কিছু এলাকা অবরুদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সেসব এলাকার রাস্তা বুধবার বেলা ১১টার দিকে বাঁশ ফেলে আটকে দেয়া হয়েছে।

সেগুলো হলো, কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের কার্পাসডাঙ্গা-ঠাকুরপুর সড়ক, কার্পাসডাঙ্গা-কুতুবপুর সড়ক, কার্পাসডাঙ্গা-মিশনপাড়া সড়ক, তালসারি মোড় এবং নাটুদহ ইউনিয়নের গোচিয়ারপাড়া মোড় ও ফকিরপাড়া মোড়।

দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল জানান, কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের ভারত সীমান্তবর্তী হরিরামপুর ও শিবনগর গ্রামে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। করোনার উপসর্গ থাকলেও তা পরীক্ষা করাতে অনীহা দেখাচ্ছেন অনেকে।

তিনি বলেন, ‘আজ (বুধবার) সকাল থেকে ওই সব এলাকার লোকজনকে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন কিট দিয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছে। দুপুর পর্যন্ত ১১৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের শরীরে করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট আছে কি না, তা পরীক্ষার জন্য নমুনা ঢাকায় আইইডিসিআরে পাঠানো হবে।’

আবু হেনা আরও বলেন, কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নে গত এক সপ্তাহে করোনায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

সংক্রমণ বাড়লে পর্যায়ক্রমে আশপাশের অন্য গ্রামের মানুষেরও করোনা পরীক্ষা করা হবে বলে জানান তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দিলারা রহমান জানান, গেল সোমবার করোনার সংক্রমণ রোধে জরুরি সভার আয়োজন করা হয়। সেখানে কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ কমিটির সঙ্গে বসে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তারই অংশ হিসেবে কার্পাসডাঙ্গার ওই স্থানগুলো লকডাউন করা হয়েছে।

ইউএনও বলেন, ওই এলাকাগুলো নিয়মিত তদারকি করা হবে। স্বাস্থ্যবিধি না মানলে ভ্রাম্যমাণ আদালতে করা হবে জরিমানাও।

আরও পড়ুন:
করোনা: খুলনায় ৩ থানায় এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ
করোনা: চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২৪ ঘণ্টায় ১৯৬ রোগী
উখিয়া-টেকনাফে বাড়ল লকডাউনের মেয়াদ
লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিতে পারবে স্থানীয় প্রশাসন
আরও ৭ দিনের বিশেষ লকডাউনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ

শেয়ার করুন

মন্তব্য