মসজিদে অচেতন করে টাকা চুরি, মাল লুট

মসজিদে অচেতন করে টাকা চুরি, মাল লুট

ভোলার বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তাবলিগ জামাতের কয়েকজন। ছবি: নিউজবাংলা

‘আমরা আমল শেষ করে এশার নামাজ আদায় করে খানা শেষ করে ঘুমাই। ফজরের ওয়াক্ত হলে স্থানীয় দেখতে পান, আমাদের সাথী ভাইয়েরা সকলে অচেতন। পরে তারা আমাদেরকে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে নিয়ে যান।’

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার একটি মসজিদে অবস্থান করা তাবলিগ জামাতের সদস্যদের অচেতন করে টাকা চুরি ও মালপত্র লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলার কুতুবা ইউনিয়নের চৌকিদারবাড়ি জামে মসজিদে শনিবার রাতের কোনো এক সময় এ ঘটনা ঘটে। তাবলিগ জামাতের দলটির তিনজনকে গুরুতর অবস্থায় ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দলটির আমির মোহাম্মদ মুসলিম উদ্দিন জানান, তারা শুক্রবার রাজধানীর কাকরাইল মসজিদ থেকে ভোলার বোরহানউদ্দিনের উদ্দেশে রওনা হন। বোরহানউদ্দিন মাখরাজ মসজিদে পৌঁছান শনিবার। সেখান থেকে নিয়ম অনুযায়ী তারা কুতুবা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের চৌকিদারবাড়ি জামে মসজিদে অবস্থান নেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা আমল শেষ করে এশার নামাজ আদায় করে খানা শেষ করে ঘুমাই। ফজরের ওয়াক্ত হলে স্থানীয় লোকজন দেখতে পান, আমাদের সাথি ভাইয়েরা সবাই অচেতন। পরে তারা আমাদের বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে নিয়ে যান।’

তাবলিগের এ সদস্য জানান, ১৪ জনের দলটির মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের বোরহানউদ্দিন হাসপাতাল থেকে ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বোরহানউদ্দিন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ওই ১৪ জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তাদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ভোলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়।

বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল আমিন জানান, তাবলিগ জামাতের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।

আরও পড়ুন:
চুরি যাওয়া শিশু ফেসবুকের বদৌলতে উদ্ধার
বদলি করায় বোরকা পরে ১০ লাখ টাকা চুরি
২৭ লাখ টাকা চুরি, গ্রেপ্তার ৩
গরু চুরির ঘটনায় পাঁচজনকে আটক
চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে গাছ চুরির মামলা

শেয়ার করুন

মন্তব্য