শিকলে বাঁধা প্রাণ গেল কয়েলের আগুনে

শিকলে বাঁধা প্রাণ গেল কয়েলের আগুনে

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েক বছর ধরে মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন শিল্পী। নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় বলে পরিবারের সদস্যরা তাকে বাড়ির পাশের পরিত্যক্ত একটি ঘরে শিকলে বেঁধে রেখেছিলেন। সে ঘরেই শুক্রবার রাতে আগুন লাগে। 

মাদারীপুরের শিবচরে পরিত্যক্ত ঘরে লাগা আগুনে পুড়ে মারা গেছেন সেখানে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা নারী।

শিবচর পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের তালুকদার কান্দি গ্রামে শুক্রবার মধ্যরাতে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

শিল্পী বেগম নামের ওই নারী আবদুল বারেক তালুকদারের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েক বছর ধরে মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন শিল্পী। নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় বলে পরিবারের সদস্যরা তাকে বাড়ির পাশের পরিত্যক্ত একটি ঘরে শিকলে বেঁধে রেখেছিলেন। সে ঘরেই শনিবার রাতে আগুন লাগে।

শিবচর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শ্যামল বিশ্বাস জানান, আগুন লাগার খবরে ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই পুরো ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় আধা ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিভিয়ে ঘরের ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয় শিকলে বাঁধা শিল্পীর মরদেহ। ভেতরে পাওয়া যায় পুড়ে যাওয়া একটি ছাগলও।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, মশার কয়েল থেকে আগুন লাগে ওই ঘরে। শিল্পীর মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। পরিবার অভিযোগ না করলে মরদেহ তাদের দিয়ে দেয়া হবে।

আরও পড়ুন:
মাঝরাতে আশুলিয়ায় কারখানায় আগুন
আগুনে পুড়ল ১১ বসতঘর
আগুনে পুড়ল তিন দোকান, ক্ষতি ১০ লাখ
তুলার কারখানা ও চালকলে আগুন
ঘরে আগুন, সন্তানসহ দগ্ধ মা-বাবা

শেয়ার করুন

মন্তব্য