মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ: গ্রেপ্তার ১

প্রতীকী ছবি।

মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ: গ্রেপ্তার ১

ছাত্রীর বাবা বিল্লালের পরিবারের কাছে ঘটনার বিচার চাইতে গেলে বিল্লালের বাবা, চাচাসহ আত্মীয় স্বজনরা তাকে মারধর করেন। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বিল্লালকে প্রধান আসামি করে পাঁচজনের নামে মামলা করেন।

নেত্রকোণার কলমাকান্দায় এক মাদ্রাসছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে মেয়েটির বাবা কলমাকান্দা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি করেন।

এতে বিল্লাল মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে প্রধান আসামি করে পাঁচজনের নাম উল্লেখ করা হয়।

পুলিশ রাতেই প্রধান আসামি বিল্লাল মিয়ার বাবাকে গ্রেপ্তার করে। তিনিও এই মামলার আসামী।

বুধবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে গ্রেপ্তার আসামীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এটিএম মাহমুদল হক জানান, সদর ইউনিয়নের ওই ছাত্রী মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে ঘর থেকে কিছুটা দূরে টয়লেটে যান। ফেরার সময় প্রতিবেশী বাসার বিল্লাল মিয়া নামের এক ব্যক্তি তাকে জোর করে তুলে নিজ ঘরে নিয়ে যান।

বিল্লাল পেশায় একটি কাঠ মিলে শ্রমিকের কাজ করেন। তার স্ত্রী প্রবাসী।

বিল্লাল ঘরের দরজা বন্ধ করে মেয়েটি ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের বিষয় কাউকে না জানাতে তিনি মেয়েটিকে বিভিন্ন রকম ভয়-ভীতি দেখান।

মেয়েটি বাড়িতে ফিরে তার পরিবারকে বিষয়টি জানিয়ে দেয়। পরে ছাত্রীর বাবা বিল্লালের পরিবারের কাছে ঘটনার বিচার চাইতে গেলে বিল্লালের বাবা, চাচাসহ আত্মীয় স্বজনরা তাকে মারধর করেন।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা ওই দিন রাতেই বিল্লালকে প্রধান আসামি করে পাঁচজনের নামে মামলা করেন। পরে পুলিশ বিল্লালের বাবাকে গ্রেপ্তার করে বুধবার বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়।

ওসি আরো বলেন, ‘ধর্ষণের শিকার মাদ্রাসাছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রধান আসামি বিল্লালসহ মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য

গৌরনদীতে নির্বাচন: দুজন নিহতের ঘটনায় মামলা

গৌরনদীতে নির্বাচন: দুজন নিহতের ঘটনায় মামলা

গৌরনদীর একটি ইউপি নির্বাচনে সহিংসতায় দুজন নিহত হন। ছবি: নিউজবাংলা

সোমবার দুপুরে উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের কমলাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের বাইরে ককটেল হামলায় মৌজে আলী মৃধা নামে একজন নিহত হন। একই ইউনিয়নে সন্ধ্যায় পাঙ্গাসিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ফল ঘোষণার পর সদস্য প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন মৃধার বিজয় মিছিলে ককটেল হামলায় আবু বক্কর নামে আরেকজন নিহত হন।

বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে সহিংসতায় দুজন নিহত হওয়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে।

একটি মামলায় তিনজনকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ। তবে বাদীর অভিযোগ মূল আসামিরা এখনও অধরা।

স্থানীয় লোকজন জানান, সোমবার দুপুরে উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের কমলাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের বাইরে ককটেল হামলায় মৌজে আলী মৃধা নামে একজন নিহত হন।

একই ইউনিয়নে সন্ধ্যায় পাঙ্গাসিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ফল ঘোষণার পর সদস্য প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন মৃধার বিজয় মিছিলে ককটেল হামলায় আবু বক্কর নামে আরেকজন নিহত হন। দুই ঘটনায় আহত হন সাতজন।

মৌজে আলী হত্যার ঘটনায় মঙ্গলবার তার ছেলে নজরুল মৃধা ২১ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতপরিচয় ৭০-৮০ জনকে আসামি করে গৌরনদী থানায় মামলা করে। এ মামলার তিন আসামি ফিরোজ মৃধা, মাহফুজুর রহমান ইমন ও নয়ন মৃধাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তবে বাদীর অভিযোগ, তার দেয়া আসামিদের নাম পরিবর্তন করে মামলা নিয়েছে থানা পুলিশ।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. তৌহিদুজ্জামান অবশ্য দাবি করেছেন, বাদীর সঙ্গে একাধিকবার আলোচনা করেই মামলায় আসামি করা হয়েছে। বাদী যদি অন্যকিছু বলে থাকেন, তাহলে তিনি আদালতে লিখিত আবেদন করতে পারেন।

অপরদিকে আবু বক্কর হত্যার ঘটনায় তার বাবা আনজু ফকির অর্ধশতাধিক ব্যক্তির নামে মঙ্গলবার দুপুরে গৌরনদী থানায় মামলা করেন। এই মামলার কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শফিকুল ইসলাম জানান, গ্রেপ্তার আসামিদের আদালতে পাঠানো হবে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

১২ হাজার ছাড়াল গাজীপুরে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা

১২ হাজার ছাড়াল গাজীপুরে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা

সিভিল সার্জন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার ৩১৩ জনের দেহে নমুনা পরীক্ষায় ৫৬ জনের করোনা শনাক্ত  হয়। এর মধ্যে গাজীপুর সদর ও সিটি করপোরেশন এলাকায় ৩০ জন, কালিয়াকৈর উপজেলায় ৬ জন, কাপাসিয়া উপজেলায় ৬ জন ও শ্রীপুর উপজেলায় ১৪ জন। তবে কালীগঞ্জ উপজেলায় নতুন করে আক্রান্তের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

গাজীপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ছাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে নতুন করে ৫৬ জন আক্রান্ত হয়েছে।

এ নিয়ে জেলায় করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ৩৬জনে দাঁড়াল। জেলায় করোনায় মোট মারা গেছে ২২৭ জন। মঙ্গলবার বিকেলে গাজীপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. খাইরুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার ৩১৩ জনের দেহে নমুনা পরীক্ষায় ৫৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এর মধ্যে গাজীপুর সদর ও সিটি করপোরেশন এলাকায় ৩০ জন, কালিয়াকৈর উপজেলায় ৬ জন, কাপাসিয়া উপজেলায় ৬ জন ও শ্রীপুর উপজেলায় ১৪ জন। তবে কালীগঞ্জ উপজেলায় নতুন করে আক্রান্তের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

তিনি আরও জানান, এ পর্যন্ত গাজীপুর জেলায় ৮৭ হাজার ৯৮৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১২ হাজার ৩৬ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে গাজীপুর সদর ও সিটি করপোরেশন এলাকায় ৭ হাজার ৮৮৩ জন, কালীগঞ্জে ৮৬৩ জন, কালিয়াকৈরে ১ হাজার ২২২, কাপাসিয়ায় ৭৬০ ও শ্রীপুরে ১ হাজার ৩০৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৫৯৬ জন।

শেয়ার করুন

ভাসানচর থেকে পালানোর সময় ১৪ রোহিঙ্গা আটক

ভাসানচর থেকে পালানোর সময় ১৪ রোহিঙ্গা আটক

জোরারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূর হোসেন মামুন জানান, মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে তাদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরের আনসার সদস্য ও স্থানীয়রা এই ১৪ জনকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ভাসানচর থেকে পালানোর সময় চার শিশুসহ ১৪ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর এলাকার স্লুইস গেইট এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

জোরারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূর হোসেন মামুন জানান, মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে তাদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরের আনসার সদস্য ও স্থানীয়রা এই ১৪ জনকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক রোহিঙ্গারা ভাসানচর থেকে কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পালিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে সাগরপথে মিরসরাই এসেছেন বলে জানায়।

শেয়ার করুন

দরজায় ফোন নম্বর, কল দিলেই হাজির হবে পুলিশ

দরজায় ফোন নম্বর, কল দিলেই হাজির হবে পুলিশ

‘বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি’ স্লোগানে মধুখালী উপজেলার প্রতিটি বাড়ির দরজায় সাঁটানো হয়েছে বিট পুলিশের স্টিকার। সেখানে রয়েছে সংশ্লিষ্ট বিট কর্মকর্তা ও থানার ওসির মোবাইল নম্বর। এখন থেকে যেকোনো প্রয়োজনে তাদের ফোন করে সহযোগিতা নিতে পারবে এলাকাবাসী।

পুলিশের সেবা পেতে নাগরিকদের ভোগান্তি পোহানোর অভিযোগ নতুন নয়। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বা সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে দেখা করা অথবা তার মোবাইল নম্বর পেতে ছুটতে হয় এখানে-সেখানে।

তবে ফরিদপুরে এখন থেকে আর কোনো অভিযোগ জানাতে বা পুলিশের জরুরি সেবা পেতে থানায় ছুটতে হবে না। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ও পুলিশের সেবা সাধারণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে ফরিদপুরের মধুখালীতে উদ্বোধন করা হয়েছে বিট পুলিশিং কার্যক্রম।

‘বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি’ স্লোগানে উপজেলার প্রতিটি বাড়ির দরজায় সাঁটানো হয়েছে বিট পুলিশের স্টিকার। সেখানে রয়েছে সংশ্লিষ্ট বিট কর্মকর্তা ও থানার ওসির মোবাইল নম্বর। এখন থেকে যেকোনো প্রয়োজনে ফোন করে তাদের সহযোগিতা নিতে পারবে এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার দুপুরে মধুখালী থানা সংলগ্ন এলাকার বিভিন্ন বসতবাড়ির ঘরের দরজায় এ স্টিকার লাগানোর কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মধুখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তফা মনোয়ার, মধুখালী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সুমন কর, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল হক বকু, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহিদুল ইসলামসহ কর্মকর্তারা।

মধুখালী থানার ওসি শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে এবং পৌর এলাকায় বিট অফিসার রয়েছেন। তারা প্রতিটি ইউনিয়নের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঘরের দরজায় মোবাইল নম্বর-সম্বলিত স্টিকার লাগিয়ে দেবেন। সাধারণ মানুষ যেন ঘরে বসেই তাদের সমস্যার কথা জানাতে পারেন এজন্যই এ ব্যবস্থা।

সহকারী পুলিশ সুপার সুমন কর বলেন, ‘এ সেবা চালুর মাধ্যমে এলাকার মানুষ দ্রুততম সময়ে পুলিশের সহযোগিতা পাবেন। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ও পুলিশের সেবা সাধারণ মানুষের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দিতেই এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হলো। এতে এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিও ভালো থাকবে।’

শেয়ার করুন

চাঁদপুরে আবারও এজেন্ট ব্যাংকে চুরি

চাঁদপুরে আবারও এজেন্ট ব্যাংকে চুরি

চোরচক্র জানালার গ্রিল কেটে এজেন্ট ব্যাংকের ভেতরে ঢোকে। ছবি: নিউজবাংলা

আল আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংক শাখার ম্যানেজার মিজানুর রহমান বলেন, ‘সোমবার মধ্যরাতে চুরির ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। চোরচক্র ব্যাংকে পূর্ব পাশের জানালার গ্রিল কেটে ভেতরে ঢুকে ভল্টে থাকা ৫ লাখ ২৭ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি জানার সাথে সাথে আমি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করি।’

চাঁদপুরে আবারও এজেন্ট ব্যাংকে চুরির ঘটনা ঘটেছে। এবার হাজীগঞ্জ উপজেলায় আল আরাফা ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংক শাখায় চুরি করেছে চোরচক্র।

সোমবার মধ্যরাতে হাজীগঞ্জ উপজেলার বেলচো বাজারে এজেন্ট ব্যাংকে এই ঘটনা ঘটে। চোরচক্র জানালার গ্রিল কেটে ভিতরে ঢোকে এবং ব্যাংকের ভল্ট ভেঙে নগদ ৫ লাখ ২৭ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়।

এর আগে কচুয়া উপজেলায় ইসলামী ব্যাংক ও ফরিদগঞ্জ উপজেলায় ব্যাংক এশিয়ার এজেন্ট ব্যাংক শাখায় চুরির ঘটনা ঘটে।

আল আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংক শাখার ম্যানেজার মিজানুর রহমান বলেন, ‘সোমবার মধ্যরাতে চুরির ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। চোরচক্র ব্যাংকে পূর্ব পাশের জানালার গ্রিল কেটে ভেতরে ঢুকে ভল্টে থাকা ৫ লাখ ২৭ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি জানার সাথে সাথে আমি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করি।’

এজেন্ট ব্যাংক শাখার এজেন্ট আফজাল হোসেন বলেন, চুরির ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশকে জানাই। পুলিশ এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

তিনি বলেন, এই শাখাটি নতুন করা হয়েছে। দুই মাস আগে এর কার্যক্রম শুরু হয়। তবে ব্যাংকে কোনো সিসি ক্যামরা লাগানো ছিল না।

এ ঘটনায় পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ বলেন, চুরির ঘটনায় পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। আশা করি অতি দ্রুত চোরচক্রকে ধরে আইনের আওতায় আনা যাবে। ব্যাংকসহ বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িতদের আরও বেশি সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন তিনি।

এ ব্যাপারে হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশিদ বলেন, আমরা চুরির অভিযোগের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। চোরচক্রকে আইনের আওতায় আনতে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এই ঘটনায় ব্যাংকের এজেন্ট আফজাল হোসেন মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

এর আগে ৭ জুন মাঝরাতে কচুয়া উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের ডুমুরিয়া ইসলামী ব্যাংকের এজেন্ট শাখায় চুরি হয়। এ সময় ভল্ট ভেঙে নগদ ৮ লাখ ১৬ হাজার ৪২২ টাকা চুরি করা হয়। এ ঘটনায় সাত লাখ টাকাসহ ব্যাংকের ম্যানেজার মামুন খান, ক্যাশিয়ার মাহাবুব আলম ও মামুনের বোন সুলতানা রাজিয়াকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

এই ঘটনার দুই দিন পরে ৯ জুন ফরিদগঞ্জ উপজেলার গুপ্টি পূর্ব ইউনিয়নে ফকিরের বাজারে হাজীগঞ্জ-রামগঞ্জ সড়কের পাশে অবস্থিত ব্যাংক এশিয়ার এজেন্ট ব্যাংক শাখায় ৬ লাখ টাকা চুরি হয়। পরে ১১ জুন ব্যাংকের পাশে ঝোপের ভেতর গর্ত থেকে পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় ৬ লাখ টাকা উদ্ধার করে পুলিশ।

শেয়ার করুন

ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে অশ্লীল বার্তা, যুবক গ্রেপ্তার

ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে অশ্লীল বার্তা, যুবক গ্রেপ্তার

‘পুলিশ সাইবার সাপোর্ট  ফর উইমেন’ নামের ফেসবুক পেজে ভিকটিমের অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রযুক্তি ব্যবহার করে অনুসন্ধান চালিয়ে টঙ্গী থেকে জোবায়রেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার কাছ থেকে সাইবার অপরাধের কাজে ব্যাবহৃত একটি মোবাইল সেট ও সিম উদ্ধার করা হয়।

কলেজছাত্রীর ছবি ও নাম ব্যবহার করে ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট তৈরি করে সেখান থেকে বিভিন্নজনকে অশ্লীল বার্তা পাঠানোর অভিযোগে গাজীপুর থেকে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার রাতে টঙ্গীর খরতৈল ব্যাংকপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে ভিকটিম কলেজছাত্রী ‘পুলিশ সাইবার সাপোর্ট উইমেন’ সার্ভিসের ফেসবুক পেজে একটি অভিযোগ জানায়। সেই অভিযোগের সূত্র ধরে ওই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার মো. জোবায়ের আহমেদ আবির ওরফে ফাহিমের বাড়ি ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট থানার গুনিয়ারী কান্দা এলাকায়। তিনি টঙ্গী পশ্চিম থানার খরতৈল ব্যাংকপাড়া এলাকায় কাজিম উদ্দিন ম্যানেজারের বাড়িতে ভাড়া থেকে টিউশনি করতেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ-দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ জানান, জোবায়ের ফেসবুকে মানিকগঞ্জের এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। কিন্তু ওই মেয়ের বান্ধবী মানিকগঞ্জ মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী তাকে অচেনা যুবকের সঙ্গে প্রেম করতে নিষেধ করে। এ নিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে জোবায়ের ওই বান্ধবীর ছবি সংগ্রহ করে ফেসবুকে একটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট খোলেন। সেই ছবি ব্যবহার করে ওই অ্যাকাউন্ট থেকে তার নিকট আত্মীয় ও পরিচিতজনদের নানা আপত্তিকর ও অশ্লীল মেসেজ পাঠান।

পরে ‘পুলিশ সাইবার সাপোর্ট ফর উইমেন’ নামের ফেসবুক পেজে ভিকটিমের অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রযুক্তি ব্যবহার করে অনুসন্ধান চালিয়ে টঙ্গী থেকে জোবায়রেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার কাছ থেকে সাইবার অপরাধের কাজে ব্যাবহৃত একটি মোবাইল সেট ও সিম উদ্ধার করা হয়।

টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মোহাম্মদ শাহ আলম জানান, সোমবার রাতে গ্রেপ্তার আসামির বিরুদ্ধে টঙ্গী পশ্চিম থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে কলেজছাত্রী। সেই মামলায় মঙ্গলবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

ফরিদপুরে বেসরকারিভাবে আইসিইউ ও সিসিইউ চালু

ফরিদপুরে বেসরকারিভাবে আইসিইউ ও সিসিইউ চালু

‘করোনা রোগীদের কথা বিবেচনা করেই হাসপাতালে আমরা ৫ শয্যার আইসিইউ এবং ১১টি সিসিইউ বেড স্থাপন করেছি। এ ছাড়াও আধুনি চিকিৎসা সেবা ব্যবস্থা রয়েছে এই প্রতিষ্ঠানটিতে। আমরা চাই এই দুর্যোগে সরকারের পাশে থেকে কাজ করতে।’

করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা নিশ্চিতে ফরিদপুরে বেসরকারি উদ্যোগে চালু হলো নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) এবং করোনারি কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ)।

এর আগে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১৬ শয্যার আইসিইউ বিভাগ চালু হয়। তবে সেখানে রোগীর চাপ বেশি থাকায় অনেককেই এই সেবা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না।

সিএন্ডবি ঘাট এলাকায় মঙ্গলবার দুপুরে শহরের রেজওয়ান মোল্লা জেনারেল হাসপাতালে ১৬ শয্যা আইসিইউ এবং সিসিইউ ইউনিটের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকতা মাসুম রেজা, সিভিল সার্জন মো. নাদিম, প্রেসক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাস সিদ্দিকী, হাসপাতালের চেয়ারম্যান রেজাওয়ান মোল্লা, ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৌদ মো. সালেহসহ আরও অনেকে।

সৌদ মো. সালেহ বলেন, ‘করোনা রোগীদের কথা বিবেচনা করেই এই হাসপাতালটিতে আমরা ৫ শয্যার আইসিইউ এবং ১১টি সিসিইউ বেড স্থাপন করেছি। এ ছাড়াও আধুনি চিকিৎসা সেবা ব্যবস্থা রয়েছে এই প্রতিষ্ঠানটিতে। আমরা চাই এই দুর্যোগে সরকারের পাশে থেকে কাজ করতে।’

জেলা সিভিল সার্জন অফিস জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ফরিদপুরের পিসিআর ল্যাবে ২৬৮টি নমুনার মধ্যে ১২৯টি করোনা পজিটিভ হয়েছে। আর মারা গেছেন আরও তিন ব্যক্তি। এই নিয়ে জেলায় মৃত্যের সংখ্যা দাঁড়াল ২০৪ জনে।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, ‘সরকারি নির্দেশে আমরা করোনার সময়ে জেলার প্রাইভেট হাসপাতাল মালিকদের অনুরোধ করেছিলাম, রোগীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেয়ার, আজ তারই প্রতিফলন হলো।’

শেয়ার করুন