শিশু ধর্ষণের মামলায় ইমাম গ্রেপ্তার

শিশু ধর্ষণের মামলায় ইমাম গ্রেপ্তার

ওসি রোকসানা খাতুন জানান, ফজরের নামাজের পর মসজিদে মক্তব পরিচালনা করতেন আব্দুর রহমান। ওই দিন অন্যদের ছুটি দিয়ে ওই শিশুটিকে মসজিদে ইমামের ঘরে নিয়ে ধর্ষণের পর তার হাতে ১০ টাকার একটি নোট ধরিয়ে দিয়ে কিছু কিনে খেতে বলেন।

প্রাইভেট পড়ানোর সময় এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে নড়াইলের কালিয়ায় আব্দুর রহমান নামে এক ইমামকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় নড়াগাতি থানায় শুক্রবার সকালে নির্যাতিত শিশুর বাবা ধর্ষণের মামলা করে। এর আগে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে পালিয়ে যাওয়ার সময় গ্রামবাসী আব্দুর রহমানকে আটক করে নড়াগাতি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

আব্দুর রহমানের বাড়ি খুলনা জেলার তেরখাদা উপজেলার পাটগাতী গ্রামে। তিনি কালিয়া উপজেলার নড়াগাতি থানার নিধিপুর উত্তরপাড়া জামে মসজিদের ইমাম ছিলেন।

নড়াগাতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রোকসানা খাতুন জানান, ফজরের নামাজের পর মসজিদে মক্তব পরিচালনা করতেন আব্দুর রহমান। প্রতিদিনের মত বৃহস্পতিবার সকালে অন্য শিশুদের সঙ্গে ওই শিশুটি মক্তবে পড়তে যায়। আব্দুর রহমান অন্যদের ছুটি দিয়ে ওই শিশুটিকে মসজিদে ইমামের ঘরে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন।

এরপর শিশুটির হাতে ১০ টাকার একটি নোট ধরিয়ে দিয়ে কিছু কিনে খেতে বলেন। ঘটনাটি কাউকে বলতে নিষেধ করে তাকে বাড়ি পাঠিয়ে দেন আব্দুর রহমান।

শিশুটি বাড়িতে গিয়ে পরিবারকে জানালে তারা মসজিদে গিয়ে ইমামকে খুঁজে পাননি।

ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শিশুটিকে নড়াইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি রোকসানা খাতুন।

আরও পড়ুন:
প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে ধর্ষণ, মামলা
ছাত্র ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসাশিক্ষক জেলে
সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় দুই যুবক গ্রেপ্তার
বাড়ি ফিরেছেন কোয়ারেন্টিনে ‘ধর্ষণের শিকার’ ওই নারী
কোয়ারেন্টিনে ধর্ষণ মামলার ধারা সংশোধন

শেয়ার করুন

মন্তব্য