20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
ভাস্কর্য অপসারণের হুমকিদাতাদের গ্রেফতার দাবি

ভাস্কর্য অপসারণের হুমকিদাতাদের গ্রেফতার দাবি

অপরাজেয় বাংলা চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে এক প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে এই দাবি জানানো হয়।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য অপসারণের হুমকির প্রতিবাদে এবং হুমকিদাতাদের গ্রেফতারের দাবিতে শনিবার বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ হয়েছে।

অপরাজেয় বাংলা চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেন মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘এই ধর্ম ব্যবসায়ীরা আমাদের বাংলাদেশের সৃষ্টি সম্পর্কে জানতে দিতে চায় না। সেজন্য তারা ভাস্কর্যকে মূর্তি হিসেবে উপস্থাপন করে দেশে একটা অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়।’

ধর্ম ব্যবসার দিন ফুরিয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘তারা জানে না এই ব্যবসা বাংলাদেশে বন্ধ হয়ে গেছে। জঙ্গিবাদের ব্যবসা বাংলাদেশে বন্ধ হয়ে গেছে।’

তিনি আরও বলেন, জাতির পিতার ভাস্কর্য দেখে প্রজন্মের পর প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুকে জানবে। কীভাবে বাংলাদেশ সৃষ্টি হয়েছে, বঙ্গবন্ধুকে না জানলে তা জানা যাবে না। অথচ বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে কিছু ধর্ম ব্যবসায়ী বিরূপ মন্তব্য করছেন। তারা জানেন না, ভাস্কর্য কী জিনিস, আর মূর্তি কী জিনিস। তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন।

সমাবেশে সভাপতিত্বে করেন অপরাজেয় বাংলা চট্টগ্রাম মহানগরের যুগ্ম আহ্বায়ক ও নগর যুবলীগের সদস্য নুরুল আনোয়ার। সঞ্চালনা করেন অপরাজেয় বাংলা চট্টগ্রাম মহানগরের সদস্যসচিব চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নূরুল আজিম রনি।

বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য জামশেদুল আলম চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা রাশেদ হাসান, চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক মহিউদ্দিন বাচ্চু, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক এএনএম মিনহাজুর রহমান, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, টিভি জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও দীপ্ত টিভি বিভাগীয় প্রধান লতিফা আনসারী রুনা প্রমুখ।

শেয়ার করুন

মন্তব্য