ঝিকরগাছার ইউএনওর সঙ্গে পড়শির প্রতিনিধিদলের সাক্ষাৎ

ঝিকরগাছার ইউএনওর সঙ্গে পড়শির প্রতিনিধিদলের সাক্ষাৎ

সম্প্রতি ঝিকরগাছার ইউএনও মাহবুবুল হকের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছে সামাজিক সংগঠন পড়শির প্রতিনিধিদল। ছবি: নিউজবাংলা

‘তুমি আমি দুই ঘর, সুখে-দুঃখে পরস্পর’ স্লোগানে ২০১০ সালে আমিনী গ্ৰামের কিছু শিক্ষিত যুবকের উদ্যোগে গড়ে ওঠে সামাজিক ও অরাজনৈতিক সংগঠন ‘পড়শি’। এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বিপদ-আপদে গ্রামের মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহবুবুল হকের সঙ্গে সম্প্রতি সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছে সামাজিক সংগঠন ‘পড়শি’র প্রতিনিধিদল।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফয়সাল হুসাইনের নেতৃত্বে পড়শির চার সদস্যের প্রতিনিধিদলে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাইফুল্লাহ মুনছুর, সরকারি এম এম কলেজের শিক্ষার্থী মুহব্বত আলী শান্ত ও মনিরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

‘তুমি আমি দুই ঘর, সুখে-দুঃখে পরস্পর’ স্লোগানে ২০১০ সালে আমিনী গ্ৰামের কিছু শিক্ষিত যুবকের উদ্যোগে গড়ে ওঠে সামাজিক ও অরাজনৈতিক সংগঠন পড়শি। এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বিপদ-আপদে গ্রামের মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

এ সময় প্রতিনিধিদল ইউএনওর কাছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত পড়শির কার্যক্রম তুলে ধরে।

গণমাধ্যমে পড়শিকে নিয়ে করা বিভিন্ন প্রতিবেদন পড়েছেন জানিয়ে ইউএনও মাহবুবুল হক করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে পড়শির বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের প্রশংসা করেন।

এ সময় তিনি নির্বিঘ্ন কর্মপরিচালনায় পড়শির যত ধরনের সহযোগিতার প্রয়োজন তা নিশ্চিতের আশ্বাস দেন।

পড়শির সদস্য ও স্কয়ার ট্রয়লেট্রিজের সিনিয়র অফিসার জাহিদ আল ইমরান বলেন, ‘এটি পড়শির জন্য অনেক বড় পাওয়া। এমন ইতিবাচক কাজের ধারা চলমান রেখে ভবিষ্যতে এ সংগঠনের সেবার পরিধি আরও বাড়ানো হবে।’

পড়শির যেসব সদস্য অর্থ, মেধা ও শ্রম দিয়ে সংগঠনটিকে পরিচালনা করছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন পড়শির আরেক সদস্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন।

শেয়ার করুন

মন্তব্য