সৌদি যাত্রীর লাগেজে ৯ হাজার ইয়াবা

সৌদি যাত্রীর লাগেজে ৯ হাজার ইয়াবা

ইয়াবাসহ এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশের হাতে আটক সৌদিগামী এক যাত্রী। ছবি: নিউজবাংলা

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাদ্দাম জানান, কুমিল্লার এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৮ হাজার ৯৫০ পিস ইয়াবা সংগ্রহ করেন তিনি। এগুলো সৌদি আরবের দাম্মামে এক ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দেয়ার কথা ছিল। এর আগেও সাদ্দামের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সৌদিগামী এক যাত্রীর লাগেজ থেকে প্রায় ৯ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার সকাল ৬টার দিকে ইয়াবাসহ মো. সাদ্দাম নামে এক আটক করা হয়।

আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিয়াউল হক সংবাদ সম্মেলনে জানান, ওমানভিত্তিক সালাম এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে সৌদি আরবের দাম্মামে ইয়াবাগুলো পাচার করতে চেয়েছিলেন সাদ্দাম। কিন্তু স্ক্যানিংয়ের আগেই সেগুলো ধরা পড়ে।

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, লাগেজের ভেতরে বিশেষ কৌশল লুকানো ছিল ইয়াবাগুলো। সাদ্দাম প্রথমে অস্বীকার করলেও তল্লাশিতে ধরা পড়ে যান।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাদ্দাম জানান, কুমিল্লার এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৮ হাজার ৯৫০ পিস ইয়াবা সংগ্রহ করেন তিনি। এগুলো সৌদির দাম্মামে এক ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দেয়ার কথা ছিল।

এর আগেও সাদ্দামের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

আরও পড়ুন:
বিদেশি মুদ্রাসহ আটক তুরস্কগামী যাত্রী রিমান্ডে
স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার সৌদিফেরত যাত্রী রিমান্ডে
সৌদিফেরত যাত্রীর কাছে ৩ কোটি টাকার সোনা
স্ক্যানে বেরিয়ে এলো রিয়াল, ইউরো, দিরহাম
তুরস্ক থেকে আসা ফ্লাইটে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ

শেয়ার করুন

মন্তব্য

ওয়ারীতে যুবককে কুপিয়ে আহতের অভিযোগ

ওয়ারীতে যুবককে কুপিয়ে আহতের অভিযোগ

আহত দোকান মালিক শেখ সানি। ছবি: নিউজবাংলা

আহতের খবর নিশ্চিত করে ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া বলেন, তিনি এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে ওয়ারী থানাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারা ঘটনা তদন্ত করছেন।

রাজধানীর ওয়ারী থানার কাপ্তান বাজার এলাকায় এক যুবককে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়।

আহতের নাম শেখ সানি। ৩৪ বছর বয়সী সানির ওই এলাকায় একটি দোকান আছে।

আহত শেখ সানি জানান, কাপ্তান বাজার এলাকায় শাহানা ইন্টারন্যাশনাল নামে তাদের একটি ইলেক্ট্রিকের দোকান আছে। সেখানে কাজ করতো নাহিদ নামে এক যুবক। দেড় মাস আগে তাকে কাজ থেকে বাদ দেয়া হয়। পরে সে অন্য দোকানে কাজ শুরু করে। কিন্তু কিছুদিন পর সেখান থেকেও তাকে বাদ দেয়া হয়।

সানি বলেন, ‘এরপর থেকেই নাহিদের ধারনা আমার কারণেই তার চাকরি চলে গেছে। এ কারণে সে আমাকে প্রায়ই মোবাইলে হুমকি দিতো। এ ঘটনা বাজারের অনেকেই জানেন।

‘শনিবার সকালে নাহিদকে বাজারে দেখে স্থানীয় কয়েকজন আটক করে। পরে পুলিশ এসে বিষয়টি মীমাংসা করে। এরপর নাহিদ চলে যায়। রাতে আমি দোকান বন্ধ করে বাসার উদ্দেশ্যে বের হয়ে বাজারের এক নম্বর গেটে গেলে নাহিদ আমার ওপর অতর্কিত হামলা করে। রামদা দিয়ে আমাকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় আমাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্থানীয়রা।

সানি আরও জানান, তার দোকানে কাজ করার সময় নাহিদের আচরণ দেখে মনে হত সে কর্মচারী আর নাহিদ দোকানের মালিক। নাহিদ মাদকাসক্ত ছিল বলেও জানায় সানি।

আহতের খবর নিশ্চিত করে ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া বলেন, তিনি এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে ওয়ারী থানাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারা ঘটনা তদন্ত করছেন।

আরও পড়ুন:
বিদেশি মুদ্রাসহ আটক তুরস্কগামী যাত্রী রিমান্ডে
স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার সৌদিফেরত যাত্রী রিমান্ডে
সৌদিফেরত যাত্রীর কাছে ৩ কোটি টাকার সোনা
স্ক্যানে বেরিয়ে এলো রিয়াল, ইউরো, দিরহাম
তুরস্ক থেকে আসা ফ্লাইটে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ

শেয়ার করুন

দুর্গন্ধের উৎস খুঁজে মিলল চিকিৎসকের মরদেহ

দুর্গন্ধের উৎস খুঁজে মিলল চিকিৎসকের মরদেহ

নিকুঞ্জে এই বাসা থেকেই এক চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ছবি: নিউজবাংলা

খিলক্ষেত থানার ওসি মুন্সি সাব্বির আহমেদ বলেন, ‘ফ্ল্যাটের একটি কক্ষ থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে, এমন খবরে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। দরজা ভেঙে খাটে শোয়া অবস্থায় একজনের মরদেহ উদ্ধার করি।’

রাজধানীর নিকুঞ্জ-২-এর একটি বাসা থেকে সদ্য পাস করা এক চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম জয়দেব চন্দ্র দাস।

শনিবার রাত ৮টার দিকে খবর পেয়ে পুলিশ নিকুঞ্জ-২-এর ১৫ নম্বর সড়কের নরেন নিবাস নামের একটি বাড়ির ফ্ল্যাট থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে।

এক সপ্তাহ আগে ওই এলাকার এক ছাত্রী হোস্টেল থেকে আরেক নারী চিকিৎসকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছিল পুলিশ।

খিলক্ষেত থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুন্সি সাব্বির আহমেদ নিউজবাংলাকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘ফ্ল্যাটের একটি কক্ষ থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে, এমন খবরে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। দরজা ভেঙে খাটে শোয়া অবস্থায় একজনের মরদেহ উদ্ধার করি।’

পাশের কক্ষের বাসিন্দা ও অন্যদের জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে ওসি সাব্বির বলেন, ‘উনি সিলেট ওসমানি মেডিক্যাল থেকে পাস করেছেন। ঢাকায় কোনো হাসপাতালে চাকরি করছিলেন কিনা তা প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি।’

যে ফ্ল্যাট থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে, সেখানে চিকিৎসকরা মেস করে থাকতেন।

বাড়ির দারোয়ানের বরাতে ওসি সাব্বির জানান, তিন দিন আগে জয়দেব বাসায় প্রবেশ করেছেন। এরপর আর বের হননি।

ঘটনাস্থলে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের ক্রাইম সিন ইউনিট গেছে। আলামত সংগ্রহ শেষে সুরতহাল করা হবে। পরে পাঠানো হবে ময়নাতদন্তের জন্য।

জয়দেব চন্দ্রের মৃত্যু কীভাবে হয়েছে, তা প্রাথমিকভাবে কিছু বলছে না পুলিশ। তারা বলছে, ময়নাতদন্তের মাধ্যমে জানা যাবে মৃত্যুর কারণ।

আরও পড়ুন:
বিদেশি মুদ্রাসহ আটক তুরস্কগামী যাত্রী রিমান্ডে
স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার সৌদিফেরত যাত্রী রিমান্ডে
সৌদিফেরত যাত্রীর কাছে ৩ কোটি টাকার সোনা
স্ক্যানে বেরিয়ে এলো রিয়াল, ইউরো, দিরহাম
তুরস্ক থেকে আসা ফ্লাইটে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ

শেয়ার করুন

কুমিল্লার ঘটনা নিয়ে উসকানিতে বিএনপি-জামায়াত: তথ্যমন্ত্রী

কুমিল্লার ঘটনা নিয়ে উসকানিতে বিএনপি-জামায়াত: তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কুমিল্লার ঘটনায় কারা মিছিল বের করেছে, সেই ভিডিও ফুটেজ আমাদের কাছে আছে। তারা কোন দলের সমর্থক, তারা কোন মতাদর্শে বিশ্বাস করে, সেগুলো বের করে জনসমক্ষে আমরা সেটা প্রকাশ করব ইনশাল্লাহ। আমাদের এই দেশে শান্তিশৃঙ্খলা, স্থিতি কোনোভাবেই বিনষ্ট হতে দেব না।’

কুমিল্লার ঘটনা নিয়ে সারা দেশে সাম্প্রদায়িক উসকানি দেয়ায় বিএনপি-জামায়াত যুক্ত বলে অভিযোগ করেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘কুমিল্লার ঘটনায় সারা দেশে সাম্প্রদায়িক উসকানি দেয়া হয়েছে, এটির পেছনে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য ছিল। এটির পেছনে বিএনপি-জামায়াতসহ ধর্মান্ধ গোষ্ঠী যুক্ত।

‘তারা এ ঘটনা ঘটিয়ে সারা দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করে একটি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চেয়েছিল। জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার সেই বিশৃঙ্খলা কঠোর হস্তে দমন করেছে।’

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে শনিবার বিকেলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার নাকি দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার জন্য অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

‘সরকার দেশ চালায়। সরকার সব সময় চায় দেশে শান্তিশৃঙ্খলা স্থিতি থাকুক। মির্জা ফখরুল সাহেব কি বাংলাদেশের সব মানুষকে বোকা ভেবেছেন। তার এই বক্তব্যের মাধ্যমে প্রমাণিত হয় কুমিল্লার ঘটনার পেছনে বিএনপির ইন্ধন ছিল।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কুমিল্লার ঘটনায় কারা মিছিল বের করেছে, সেই ভিডিও ফুটেজ আমাদের কাছে আছে। তারা কোন দলের সমর্থক, তারা কোন মতাদর্শে বিশ্বাস করে, সেগুলো বের করে জনসমক্ষে আমরা সেটা প্রকাশ করব ইনশাল্লাহ। আমাদের এই দেশে শান্তিশৃঙ্খলা, স্থিতি কোনোভাবেই বিনষ্ট হতে দেব না।’

ওই ঘটনা নিয়ে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিতে জড়িতদের বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘যারা এই বিশৃঙ্খলার সঙ্গে যুক্ত ছিল, এখনও যুক্ত আছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যারা অপপ্রচার চালিয়েছে কিংবা চালাচ্ছে, সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কারা সেখানে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা অতিসহসা দিবালোকের মতো পরিষ্কার হবে। তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে সরকার বদ্ধপরিকর।’

ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের সব সময় সতর্ক থাকার অনুরোধ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ক্ষমতায় থাকলে বিনয়ী হতে হয়। ছাত্রলীগের তরুণ ভাই-বোনদের বিনয়ী হতে হবে।

‘কারণ উদ্যত আচরণ কেউ পছন্দ করে না। পাশাপাশি লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করতে হবে। লেখাপড়া বাদ দিয়ে শুধু ছাত্রলীগের কাজ করার প্রয়োজন নেই।’

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নুরুল আলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শিমুল গুপ্তের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হোসেন তপু। প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ রেজাউল করিম।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা স্বজন কুমার তালুকদার, আবুল কাশেম চিশতী, শাহজাহান সিকদার, নজরুল ইসলাম তালুকদার, মুহাম্মদ আলী শাহ, ডা. মোহাম্মদ সেলিম, আকতার হোসেন খান, শফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার, গিয়াস উদ্দিন খান স্বপন ও যুবলীগের সভাপতি আরজু সিকদার।

আরও পড়ুন:
বিদেশি মুদ্রাসহ আটক তুরস্কগামী যাত্রী রিমান্ডে
স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার সৌদিফেরত যাত্রী রিমান্ডে
সৌদিফেরত যাত্রীর কাছে ৩ কোটি টাকার সোনা
স্ক্যানে বেরিয়ে এলো রিয়াল, ইউরো, দিরহাম
তুরস্ক থেকে আসা ফ্লাইটে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ

শেয়ার করুন

যুবলীগ চেয়ারম্যান পরশের নম্বর স্পুফ করে প্রতারণা

যুবলীগ চেয়ারম্যান পরশের নম্বর স্পুফ করে প্রতারণা

আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ

এভাবে দেশের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীদের কাছে টাকা চাওয়ায় বেশ বিব্রতর পরিস্থিতিতে আছেন শেখ ফজলে শামস পরশ। এমন কোনো ফোন পেলে আর্থিক লেনদেন না করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের মোবাইল নাম্বার স্পুফিং (মোবাইল নাম্বারের আগে পিছে ডিজিট যুক্ত করে কল) করে যুবলীগের জেলা-উপজেলার নেতাকর্মীদের কল দিচ্ছে একটি চক্র। কল করে তারা টাকা চাইছে।

কোনো একজন নেতা অসুস্থ, তার চিকিৎসার জন্য টাকা প্রয়োজন- কল করে এমন কথা বলা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বিভিন্ন জনের কাছে এ ধরনের কাল যাচ্ছে।

‍যুবলীগ চেয়ারম্যানের নম্বর থেকে কল পেয়ে বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী প্রতারকদের দেয়া মোবাইল ব্যাংকিংয়ে টাকা পাঠিয়েছেন বলেও দাবি করেছেন।

নেতা-কর্মীদের পাঠানো অর্থ এজেন্টের কাছ থেকে উত্তোলন না করে এটিএম বুথ থেকে উত্তোলন করছে চক্রের সদস্যরা।

এভাবে দেশের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীদের কাছে টাকা চাওয়ায় বেশ বিব্রতর পরিস্থিতিতে আছেন শেখ ফজলে শামস পরশ। এমন কোনো ফোন পেলে আর্থিক লেনদেন না করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

নিউজবাংলাকে পরশ বলেন, ‘আমার মোবাইল নম্বর স্পুফ করে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে ফোন করে টাকা চাইছে প্রতারক চক্রটি। বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে। ওদের ফাঁদে কেউ পা দেবেন না। এ ধরনের ফোন কলে কেউ কোনো ধরনের লেনদেন করবেন না।’

এই স্পুফিংয়ের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের গ্রেপ্তারে একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে বনানী থানায় গতকাল একটি মামলাও হয়েছে।

বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমরাসহ গোয়েন্দাদের অন্যান্য ইউনিট এই স্পুফিংয়ের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারে কাজ করছি।’

জড়িতদের সনাক্ত ও গ্রেপ্তারে সচেষ্ট একটি ইউনিটের কর্মকর্তা নিউজবাংলাকে বলেন, ‘তার (পরশ) নম্বরটা স্ফুফ করে মানুষের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছে সমানে। অনেকটা ক্লোনিংয়ের মতো। তবে কখনও কোনো নম্বর ক্লোন করা যায় না। নম্বরের কাছাকাছি একটা নম্বর ক্রিয়েট করে।’

তিনি বলেন, ‘ফোনের একটা সমস্যা হলো- এক ডিজিট প্লাস মাইনাস করে কল আসলে ফোন সেটা ধরতে পারে না। আর কল আসার পর অনেকে সেটা হয়তো বুঝতেও পারেন না।’

প্রতারকরা বিভিন্ন সময় রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের মোবাইল নম্বর স্পুফ করে ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করে। এর আগে ডিএমপি কমিশনার মো. শফিকুল ইসলামের নম্বর স্পুফ করেও প্রতারণা করেছে একটি চক্র। পরে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সাইবার ইনভেস্টিগেশন বিভাগ স্পুফকারীকে সনাক্ত করে গ্রেপ্তারও করে।

আরও পড়ুন:
বিদেশি মুদ্রাসহ আটক তুরস্কগামী যাত্রী রিমান্ডে
স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার সৌদিফেরত যাত্রী রিমান্ডে
সৌদিফেরত যাত্রীর কাছে ৩ কোটি টাকার সোনা
স্ক্যানে বেরিয়ে এলো রিয়াল, ইউরো, দিরহাম
তুরস্ক থেকে আসা ফ্লাইটে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ

শেয়ার করুন

ওয়ারীর ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্কের পাশে নারীর মরদেহ

ওয়ারীর ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্কের পাশে নারীর মরদেহ

ওয়ারী থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) জিয়াউর রহমান বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করি। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।’

রাজধানীর ওয়ারী স্বামীবাগ রেল গেইট সংলগ্ন ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্কের পাশ থেকে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওই নারীর বয়স আনুমানিক ৪৫ বছর।

শনিবার দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মৃত ঘোষণা করেন।

ওয়ারী থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) জিয়াউর রহমান বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করি। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।’

তিনি আরও জানান, আশেপাশের লোকজনের কাছ থেকে জানা গেছে ওই এলাকায় ভবঘুরে হিসেবে পরিচিত ছিলেন তিনি। সেখানে বিভিন্ন জায়গায় থাকতেন। তার পরনে শর্ট কামিজ ও সালোয়ার ছিল।

ফিঙ্গারপ্রিন্টের মাধ্যমে তার পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন:
বিদেশি মুদ্রাসহ আটক তুরস্কগামী যাত্রী রিমান্ডে
স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার সৌদিফেরত যাত্রী রিমান্ডে
সৌদিফেরত যাত্রীর কাছে ৩ কোটি টাকার সোনা
স্ক্যানে বেরিয়ে এলো রিয়াল, ইউরো, দিরহাম
তুরস্ক থেকে আসা ফ্লাইটে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ

শেয়ার করুন

মন্দিরের ঘটনা স্বাধীনতাবিরোধীদের কাজ: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

মন্দিরের ঘটনা স্বাধীনতাবিরোধীদের কাজ: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

রাজধানীতে এক সেমিনারে শনিবার স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম মন্দিরে হামলার ঘটনা ও সরকারের অবস্থান নিয়ে কথা বলেন। ছবি: নিউজবাংলা

মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, স্বাধীনতাবিরোধীরা হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগাতে চায়। মুসলিম-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সবাই মিলেমিশে কাজ করছে বলেই আজ আমরা উন্নয়নের রোল মডেল। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খাদ্য, পানি, নিরাপত্তা, অবকাঠামো, যোগাযোগসহ সব ক্ষেত্রে দেশে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু দেশের শত্রুরা ঐক্য এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার পাঁয়তারা করছে।

স্বাধীনতাবিরোধীরা দেশে হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগাতে চায়। মন্দিরের ঘটনা তাদেরই কাজ বলে মনে করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

রাজধানীতে এক সেমিনারে শনিবার তিনি এ কথা বলেন।

পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) খাতে ৫০ বছরের অর্জন ও ভবিষ্যৎ করণীয় শীর্ষক এক সেমিনার হয়েছে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে।

মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, স্বাধীনতাবিরোধীরা হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগাতে চায়। তারা দেশের সব অর্জন ম্লান করতে অপচেষ্টায় লিপ্ত। ঐক্যবদ্ধ হয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের কঠোরভাবে প্রতিহত করতে হবে।

‘মুসলিম-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সবাই মিলেমিশে কাজ করছে বলেই আজ আমরা উন্নয়নের রোল মডেল। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খাদ্য, পানি, নিরাপত্তা, অবকাঠামো, যোগাযোগসহ সব ক্ষেত্রে দেশে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু দেশের শত্রুরা ঐক্য এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার পাঁয়তারা করছে।’

তিনি বলেন, ‘উন্নয়নের অগ্রযাত্রা থামাতে একটি মহল ধর্মকে ব্যবহার করে মানুষের অনুভূতি নিয়ে খেলা শুরু করেছে। মন্দিরে কোরআন শরিফ রেখে তারা নাটক সাজিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমান ও হিন্দুদের মধ্যে বিভেদ তৈরি করছে। দাঙ্গা লাগিয়ে সরকারকে ব্যর্থ বানানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

‘পাকিস্তানের মদদপুষ্ট ও প্রেতাত্মারা আবার ক্ষমতায় যেতে দুঃস্বপ্ন দেখছে। তারা ধর্মকে ব্যবহার করে নতুন কৌশল অবলম্বন করছে। যে কৌশল পাকিস্তানিরা স্বাধীনতাযুদ্ধে ব্যবহার করেছিল।’

মন্দিরে কোরআন রাখা নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি ও হামলার ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রকৃত ঘটনা জাতির সামনে উন্মোচন করা হবে।’

সেমিনারে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদসহ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন:
বিদেশি মুদ্রাসহ আটক তুরস্কগামী যাত্রী রিমান্ডে
স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার সৌদিফেরত যাত্রী রিমান্ডে
সৌদিফেরত যাত্রীর কাছে ৩ কোটি টাকার সোনা
স্ক্যানে বেরিয়ে এলো রিয়াল, ইউরো, দিরহাম
তুরস্ক থেকে আসা ফ্লাইটে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ

শেয়ার করুন

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদত্যাগ চায় ইসলামী আন্দোলন

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর পদত্যাগ চায় ইসলামী আন্দোলন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের পদত্যাগ ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণের দাবিতে বায়তুল মোকাররমে সমাবেশে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। ছবি: পিয়াস বিশ্বাস/নিউজবাংলা

ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রচার ও দাওয়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম বক্তব্যে বলেন, ‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম থাকবে, এটা মিমাংসিত বিষয়। এটা নিয়ে বাড়াবাড়ি করবেন না।’

ইসলাম রাষ্ট্রধর্ম নয় এবং অচিরেই সংসদে বাহাত্তরের সংবিধানে ফিরে যাওয়ার বিল উত্থাপন করা হবে বলে বক্তব্য দেয়ায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের পদত্যাগ ও শাস্তি দাবি করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।

কুমিল্লায় কুরআন অবমাননাকারীদের বিচার এবং দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা নিতে শনিবার বিকেল ৩টার দিকে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে সমাবেশ থেকে এ দাবি জানান দলটির নেতারা।

পাশাপাশি দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার দায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারও পদত্যাগ দাবি করা হয় সমাবেশ থেকে।

ঢাকা মহানগর ইসলামী আন্দোলন আয়োজিত সমাবেশে কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি এবং দেশের অন্য জায়গায় সহিংসতার জন্য সরকারের বিভিন্ন মহলকে দায়ী করেন নেতারা।

ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রচার ও দাওয়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম বক্তব্যে বলেন, ‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম থাকবে, এটা মিমাংসিত বিষয়। এটা নিয়ে বাড়াবাড়ি করবেন না।’

সম্প্রতি দেয়া তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও তার পদত্যাগ দাবি করেন দলটির ঢাকা মহানগর উত্তরের সেক্রেটারি মাওলানা আরিফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘পরিস্থিতি আরও কতটা ভয়াবহ হবে তা সরকারের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করবে। সরকার যেভাবে বক্তব্য দিচ্ছে, তাতে সরকার আরেকটা দাঙ্গা করতে চায়। আমরা মনে করছি, সরকারের বিভিন্ন মহলের উসকানিতে কুমিল্লায় এ ঘটনা ঘটেছে।’

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে দপ্তর সম্পাদক লোকমান বলেন, ‘আপনি সংবিধান মানেন না, আপনাকে মন্ত্রী হিসেবে মানি না। উনার বিচার করতে হবে।’

সংগঠনের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা নেছার উদ্দিন বলেন, ‘দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে না পারলে পদত্যাগ করুন। এই সরকারকে পুতুল সরকার মনে করি।’

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ।

তিনি বলেন, ‘বাজার করে খাওয়ার সক্ষমতা হারাচ্ছে মানুষ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি বাজারে গিয়ে খোঁজ নেন।’

কুমিল্লার ঘটনা ও পরের পরিস্থিতির জন্য সরকারকে দায়ি করেন ফজলে বারী মাসউদ। তিনি বলেন, ‘কুমিল্লার ঘটনা ও পরের ঘটনার জন্য সরকার দায়ী।’

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী।

তিনি বলেন, ‘ষড়যন্ত্রকারীরা ষড়যন্ত্র করবে। ইসলামের শত্রুরা এটা করেছে। সরকার ঘোলা পানিতে মাছ শিকার না করে তদন্ত করে বের করেন এই ঘটনা কে বা কারা ঘটিয়েছে।

‘ইসলামের অবমাননা করলে প্রতিবাদ করা ঈমানি দায়িত্ব। একটা মহল আমাদের দেশে হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে বাধায়া দিতে এটা করেছে। হিন্দুরাও এটা করতে পারে না। হাজীগঞ্জে ৫-৬ জন মারা গেছেন। কেন গুলি করলেন।’

তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে বয়কট করার আহ্বান জানান আল-মাদানী। তিনি বলেন, ‘মুরাদকে বয়কট করেন। ওর জানাজা হবে না, পানিতে ভাসায়া দাও। ওরা কাফেরদের থেকেও ভয়ঙ্কর।’

তিনি বলেন, ‘সব জিনিস ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। না কমাতে পারলে গদি থেকে নেমে যান।’

সমাবেশ শেষে বায়তুল মোকাররম উত্তর গেট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন নেতা-কর্মীরা। মিছিলটি পল্টন মোড় হয়ে নাইটেঙ্গেল মোড়ে গিয়ে মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়।

আরও পড়ুন:
বিদেশি মুদ্রাসহ আটক তুরস্কগামী যাত্রী রিমান্ডে
স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার সৌদিফেরত যাত্রী রিমান্ডে
সৌদিফেরত যাত্রীর কাছে ৩ কোটি টাকার সোনা
স্ক্যানে বেরিয়ে এলো রিয়াল, ইউরো, দিরহাম
তুরস্ক থেকে আসা ফ্লাইটে ১৪ কেজি তরল স্বর্ণ

শেয়ার করুন