আজ কোরবানি শেষ করার আহ্বান তাপসের

আজ কোরবানি শেষ করার আহ্বান তাপসের

রাজধানীর ধোলাইখাল এলাকা থেকে কোরবানির বর্জ্য সরিয়ে নিচ্ছেন ডিএসসিসির পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা। ছবি: পিয়াস বিশ্বাস/নিউজবাংলা

ঢাকাবাসীর প্রতি নিবেদন রেখে তাপস বলেন, ‘আপনারা আজকের মধ্যেই কোরবানি দেয়া বা পশু জবাই শেষ করুন। আমাদের বিশাল জনবল নিরবচ্ছিন্নভাবে এই পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে যুক্ত রয়েছেন। তাদেরও ঈদ আছে, তাদের বিশ্রামেরও প্রয়োজন আছে। আমরা তাদেরকে কোরবানির তৃতীয় দিন ছুটি দিতে চাই।’

বৃহস্পতিবারের মধ্যেই কোরবানির পশু জবাইয়ের কাজ শেষ করার জন্য ঢাকাবাসীকে অনুরোধ জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ‘কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম তদারকিতে’ নগর ভবনের শীতলক্ষ্যা হলে স্থাপিত নিয়ন্ত্রণ কক্ষে পশুর বর্জ্য সরানোর কাজ পর্যবেক্ষণের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে মেয়র ঢাকাবাসীকে এই অনুরোধ জানান।

ঢাকাবাসীর প্রতি নিবেদন রেখে তাপস বলেন, ‘আপনারা আজকের মধ্যেই কোরবানি দেয়া বা পশু জবাই শেষ করুন। আমাদের বিশাল জনবল নিরবচ্ছিন্নভাবে এই পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম করে থাকে। তাদেরও ঈদ আছে, তাদের বিশ্রামেরও প্রয়োজন আছে। আমরা তাদেরকে ঈদের তৃতীয় দিন ছুটি দিতে চাই।’

তাপস আরও বলেন, ‘নিতান্তই কেউ যদি আজকের মধ্যে কোরবানির পশু জবাই শেষ করতে না পারেন, তাহলে দয়া করে আপনারা আগামীকাল নিজ দায়িত্বে পশুর বর্জ্য নির্ধারিত ব্যাগে ভরে আপনার নিকটবর্তী অন্তর্বর্তীকালীন বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্রে রেখে আসুন।’

তাপস ঈদের দিন নামাজ শেষে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণের কথা বলেছিলেন। তবে আজ তিনি বলেন, গতকালের পশুর বর্জ্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণ করেছি। দুপুর ২টার মধ্যে গতকালের পশুর বর্জ্য শতভাগ অপসারিত হবে। কিন্তু ঈদের দ্বিতীয় দিনও প্রায় ৩০ শতাংশ কোরবানি দেওয়া হয়। আজকে যে সকল পশু জবাই দেয়া হবে, সেসব পশুর বর্জ্য আমরা আগামী ১০ ঘণ্টার মধ্যে অর্থাৎ রাত ১২টার মধ্যে অপসারণ করব।’

আজ কোরবানি শেষ করার আহ্বান তাপসের

বৃহস্পতিবার দুপুরে কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম তদারকিতে নগর ভবনে আলোচনা করেন ডিএসসিসি মেয়র ফজলে নূর তাপস। ছবি: নিউজবাংলা

এ সময় বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত প্রায় ৮ হাজার টন কোরবানির পশুর ও হাটের বর্জ্য সরানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

বর্জ্য সরানোর পর আবার সেখানে ময়লা ফেলা হয় জানিয়ে তাপস বলেন, আমরাতো গত তিন দিন ধরে পরিষ্কার করছি। তবে বাস্তবতা হল আমরা একদিকে বর্জ্য অপসারণ করে আসি, এরপর লোকজন আবারও উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য ফেলে রেখে যায়। তাই শতভাগ বর্জ্য অপসারণের পরও কিছু কিছু জায়গায় আবারও বর্জ্য দেখা যায়।

এটি প্রত্যাশিত নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা যে ব্যাগ সরবরাহ করেছি, দয়া করে তা সংগ্রহ করুন এবং সেই ব্যগে ভরে আপনার পশুর বর্জ্য আমাদের বর্জ্য সংগ্রহকারীদের কাছে হস্তান্তর করুন। উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য ফেলবেন না।’

যারা চামড়া বিক্রি করতে পারেননি তাদের উদ্দেশে তাপস বলেন, মৌসুমী ব্যবসায়ীরা চামড়া সংগ্রহ করেছেন। সেই চামড়াগুলো হয়তো তারা বিক্রি করতে পারেননি। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আমরা লক্ষ করছি বিভিন্ন জায়গায় আমাদের নর্দমার সামনে, নর্দমার মুখে তারা সেই চামড়াগুলো ফেলে গেছেন। এটা অত্যন্ত গর্হিত কাজ। আমি বারবার নিবেদন করেছি, কোনভাবেই যেন আমাদের নালা-নর্দমাগুলো বন্ধ করা না হয়, সেখানে বর্জ্য ফেলা না হয়।’

মতবিনিময়কালে অন্যান্যদের মধ্যে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. বদরুল আমিন, সচিব আকরামুজ্জামান, পরিবহন বিভাগের মহাব্যবস্থাপক বিপুল চন্দ্র বিশ্বাস, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. জাফর আহমেদ, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আনিছুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

ঈদের দ্বিতীয় দিনে কোরবানি

ঈদ জামাত শেষে শুরু হয় পশু কোরবানি। এমনভাবে কোরবানি দেয়া হয় আরও দুই দিন।

ইসলাম ধর্মের বিধি মোতাবেক, ঈদের দিন ছাড়াও জিলহজ মাসের ১১ তারিখ (ঈদের দ্বিতীয় দিন) ও ১২ তারিখও (ঈদের তৃতীয় দিন) পশু কোরবানি করা যায়। আর এই বিধানের আলোকে দ্বিতীয় দিন অনেকে কোরবানির পশু জবাই করছেন।

ঈদের দ্বিতীয় দিনেও ঢাকার অনেক এলাকায় পশু কোরবানি চলছে। পুরান ঢাকায় সংখ্যাটা বেশি হলেও রাজধানীর অন্যান্য এলাকায়ও দেখা গেছে কোরবানির ব্যস্ততা। অনেকে বলছেন, দ্বিতীয় দিন কোরবানি দিলেও আমেজ ঈদের দিনের মতোই।

আরও পড়ুন:
ঈদের দ্বিতীয় দিনেও কোরবানি

শেয়ার করুন

মন্তব্য