আরেক মামলায় মুফতি আমির হামজার জবানবন্দি

আরেক মামলায় মুফতি আমির হামজার জবানবন্দি

মুফতি আমির হামজা। ফাইল ছবি

গত ২৪ মে বিকেলে কুষ্টিয়া থেকে আমির হামজাকে গ্রেপ্তার করে সিটিটিসি। পরদিন সংসদ ভবনে খোলা তলোয়ার নিয়ে হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে শেরেবাংলা নগর থানায় করা মামলায় আদালত তার ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। রিমান্ড শেষে ৩১ মে মুফতি আমির হামজা ওই মামলায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। এরপর থেকে তিনি কারাগারেই ছিলেন। এরপর দারুস সালাম থানার মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাকে রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

আরেক মামলায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন আলোচিত ইসলামি বক্তা মুফতি আমির হামজা।

সোমবার রাজধানীর দারুস সালাম থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা একটি মামলায় দুই দিনের রিমান্ডফেরত আমির হামজাকে আদালতে হাজির করা হয়।

তিনি স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার জন্য আবেদন করে মামলার তদন্ত সংস্থা কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মুখ্য মহানগর আদালতের (সিএমএম) হাকিম মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

দারুস সালাম থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মকবুল হোসেন বিষয়টি নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেন।

তিনি আরও জানান বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত আমির হামজার জবানবন্দি গ্রহণ করেন বিচারক জসিম উদ্দিন।

গত ২৪ মে বিকেলে কুষ্টিয়া থেকে আমির হামজাকে গ্রেপ্তার করে সিটিটিসি।

পরদিন সংসদ ভবনে খোলা তলোয়ার নিয়ে হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে শেরেবাংলা নগর থানায় করা মামলায় আদালত তার ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

রিমান্ড শেষে ৩১ মে মুফতি আমির হামজা ওই মামলায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

এরপর থেকে তিনি কারাগারেই ছিলেন।

এরপর দারুস সালাম থানার মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাকে রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

মুফতি আমির হামজা কুষ্টিয়া সদর উপজেলার পাটিকাবাড়ী ইউনিয়নের রিয়াজ সর্দারের ছেলে। তিনি বাংলাদেশ জাতীয় মুফাসসির পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক।

শেয়ার করুন

মন্তব্য