ডিএনসিসিতে সুশাসনের লক্ষ্যে ৫ জন চাকরিচ্যুত

ডিএনসিসিতে সুশাসনের লক্ষ্যে ৫ জন চাকরিচ্যুত

ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সব ক্ষেত্রে সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীর স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ বলেও জানানো হয় সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে চলতি বছরের গত সাড়ে ৫ মাসে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) পাঁচজন দৈনিক মজুরিভিত্তিক মাস্টাররোল শ্রমিক/কর্মীকে বিভিন্ন অপরাধে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ডিএনসিসির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে জানানো হয়, ১৪ জুনের অফিস আদেশ মোতাবেক মাদকদ্রব্য বহনের অভিযোগে ডিএনসিসির পরিবহন বিভাগের দৈনিক মজুরিভিত্তিক মাস্টাররোল শ্রমিক/কর্মী (গাড়িচালক) মো. হোসেন মিয়াকে ৪ জুন চাকরিচ্যুত করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ২৩ মের অফিস আদেশ মোতাবেক দায়িত্ব পালনে অবহেলার কারণে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ অঞ্চল-৫-এর দৈনিক মজুরিভিত্তিক ক্লিনার বর্তমানে পরিবহন বিভাগে কর্মরত মো. ফরিদ হোসেন হাওলাদারকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

১৪ ফেব্রুয়ারি অফিস আদেশ মোতাবেক জেল হাজতে আটক থাকায় পরিবহন বিভাগের দৈনিক মজুরিভিত্তিক শ্রমিক/কর্মী মো. সাগরকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

১০ জানুয়ারি অফিস আদেশ মোতাবেক বিনা অনুমতিতে কর্মস্থলে অনুপস্থিতজনিত কারণে সম্পত্তি বিভাগের (কাজ করলে মজুরি, না করলে নাই ভিত্তিতে) নিয়োজিত অদক্ষ শ্রমিক (উচ্ছেদ শ্রমিক) আব্দুর রাজ্জাককে গত ৪ সেপ্টেম্বর থেকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

এ ছাড়া ১০ জানুয়ারি অফিস আদেশ মোতাবেক বিনা অনুমতিতে কর্মস্থলে অনুপস্থিতজনিত কারণে ওয়ার্ড-৫ অঞ্চল-৭-এ (কাজ করলে মজুরি, না করলে নাই ভিত্তিতে) নিয়োজিত অদক্ষ শ্রমিক (মশককর্মী) হাসিবুল হাসানকে ২৫ আগস্ট থেকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সব ক্ষেত্রে সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীর স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ বলেও জানানো হয় সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

আরও পড়ুন:
ঢাকা উত্তরে এক লাখ ৩৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায়
উত্তর ঢাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে ৭ কোটি ২০ লাখ টাকা বরাদ্দ
ঢাকা উত্তরে ১৮ মামলায় পৌনে দুই লাখ টাকা জরিমানা আদায়
বার্জার পেইন্টসকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা
বস্তিতে অগ্নিনিরাপত্তায় ফায়ার হাইড্রেন্ট: মেয়র আতিক

শেয়ার করুন

মন্তব্য