20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
বাংলাদেশে কৃষি যন্ত্রপাতি খাতে বিনিয়োগের আশ্বাস ভারতের   

বাংলাদেশে কৃষি যন্ত্রপাতি খাতে বিনিয়োগের আশ্বাস ভারতের   

বিজ্ঞানীদের প্রশিক্ষণ, বীজ প্রযুক্তি, বিটি কটন, ভুট্টা, কাজুবাদামসহ উন্নতজাতের চারা সরবরাহ, দুধ-কৃষিপণ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ ও কৃষি যান্ত্রিকীকরণে ভারতের সহযোগিতাও চান কৃষিমন্ত্রী।

ভারতের মাহিন্দ্রসহ অন্যান্য কৃষি যন্ত্রপাতি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান যাতে বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও কারখানা স্থাপন করে সে বিষয়ে উদ্যোগ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন ঢাকায় দেশটির রাষ্ট্রদূত বিক্রম কে. দোরাইস্বামী।

ভারতের রাষ্ট্রদূত বুধবার সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের সময় এ আশ্বাস দেন।

এ সময় কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের কৃষির যান্ত্রিকীকরণ ও আধুনিকীকরণের দিকে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি সরকার প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকার কৃষি যান্ত্রিকীকরণ প্রকল্প নিয়েছে। ২০২৫ সালের মধ্যে বাংলাদেশে প্রচুর কৃষি যন্ত্রপাতির প্রয়োজন হবে। এক্ষেত্রে ভারতের কৃষিযন্ত্রপাতি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে।’

বিজ্ঞানীদের প্রশিক্ষণ, বীজ প্রযুক্তি, বিটি কটন, ভুট্টা, কাজুবাদামসহ উন্নতজাতের চারা সরবরাহ, দুধ-কৃষিপণ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ ও কৃষি যান্ত্রিকীকরণে ভারতের সহযোগিতাও চান কৃষিমন্ত্রী।

কৃষিক্ষেত্রে বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করে ভারতের রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বাংলাদেশ শুধু খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতাই অর্জন করেনি, অনেক ক্ষেত্রে এখন খাদ্যপণ্য রপ্তানি করছে।’

তিনি বলেন, ‘মাহিন্দ্রসহ অন্যান্য কৃষিযন্ত্রপাতি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আরোচনা করে বাংলাদেশে কৃষি যন্ত্রপাতি স্থানীয়ভাবে তৈরি, সংযোজন এবং খুচরা যন্ত্রপাতি তৈরির বিষয়ে উদ্যোগ নেয়া হবে।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য