20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে আমরণ অনশনের ডাক

সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮ প্যানেল প্রত্যাশী কমিটির সংবাদ সম্মেলন

প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে আমরণ অনশনের ডাক

মঙ্গলবার ৯টা থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশন শুরু হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চলবে।

প্যানেলের মাধ্যমে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে মঙ্গলবার থেকে আমরণ অনশনের ডাক দিয়েছে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮ প্যানেল প্রত্যাশী কমিটি।

সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) সংবাদ সম্মেলনে কমিটির সভাপতি আবদুল কাদের এ ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে আবদুল কাদের বলেন, মঙ্গলবার ৯টা থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশন শুরু হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি চলবে।

তিনি আরও বলেন, ‘মুজিববর্ষে শিক্ষিত বেকারদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও তীব্র শিক্ষক সংকট নিরসনে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা-২০১৮-এর মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নেয়া সবাইকে নিয়ে প্যানেল গঠন করে নিয়োগ নিশ্চিত করতে হবে। কারণ আমরা লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণ করেছি।’

সংবাদ সম্মেলনে শেষে ১০ জনের একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ পেতে তার কার্যালয়ে স্মারকলিপি দিতে যান।

এর আগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে টানা নয় দিন অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন প্যানেল প্রত্যাশীরা।

সে সময় কমিটির প্রচার সম্পাদক ইলিয়াস ভূঁইয়া বলেছিলেন, ‘আমাদের আর ফিরে যাওয়ার সুযোগ নেই। ২০১৪ সালের পর এই প্রথম একটি নিয়োগ পরীক্ষায় সুযোগ পেয়েছি। এর মধ্যে অনেকের চাকরির বয়স শেষ হয়ে গেছে।

‘তা ছাড়া করোনা মহামারি আমাদের সব স্বপ্ন গুঁড়িয়ে দিয়েছে। অথচ অনেক পদ শূন্য আছে। এসব শূন্য পদে আমাদের নিয়োগ দেয়া হোক।’

এদিকে প্যানেল তৈরির মাধ্যমে নিয়োগের দাবি অযৌক্তিক বলে তা নাকচ করে দেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আকরাম আল হোসেন।

তিনি বলেন, সরকারি বিধিমালা অনুযায়ী সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। এর বাইরে নিয়োগের সুযোগ নেই।

প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা-২০১৮-এর মৌখিক পরীক্ষা থেকে বাদ পড়েন ৩০ হাজার চাকরিপ্রত্যাশী। তারাই এখন আন্দোলন করছেন।

শেয়ার করুন