20201002104319.jpg
ত্রিশালে এএসপিটিএসসি উদ্বোধন সেনা প্রধানের

ত্রিশালে এএসপিটিএসসি উদ্বোধন সেনা প্রধানের

সেনাপ্রধান মঙ্গলবার দুপুরে ত্রিশালে এএসপিটিএসসি এর নবনির্মিত মাল্টিপারপাস কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন। এরপর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আধুনিক সুবিধাসম্পন্ন এই ট্রেনিং সেন্টারে দেশ ও বিদেশের সেনাবাহিনীর সদস্যরা প্রশিক্ষণ নেবেন।

ময়মনসিংহের ত্রিশালে আর্মি স্কুল অব ফিজিক্যাল ট্রেনিং অ্যান্ড স্পোর্টস সেন্টার (এএসপিটিএসসি) উদ্বোধন করেছেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ।

সেনাপ্রধান মঙ্গলবার দুপুরে ত্রিশালে এএসপিটিএসসি এর নবনির্মিত মাল্টিপারপাস কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন। এরপর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আধুনিক সুবিধাসম্পন্ন এই ট্রেনিং সেন্টারে দেশ ও বিদেশের সেনাবাহিনীর সদস্যরা প্রশিক্ষণ নেবেন। এটি আর্ন্তজাতিক মানের করে গড়ে তোলা হবে।

জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, এই সেন্টার ঘিরে আশপাশে ব্যাপক উন্নয়ন হবে। এ জন্য তিনি স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা কামনা করেন।এ সময় লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. সামসুল হকসহ সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এএসপিটিএসসি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শারীরিক ও ক্রীড়া বিষয়ক একমাত্র ট্রেনিং সেন্টার। ১৯৭৯ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শারীরিক প্রশিক্ষণ ও ক্রীড়া উন্নয়নের লক্ষ্যে রাজশাহী সেনানিবাসে এএসপিটিএস প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৯৯ সালের ৪ ডিসেম্বর এটি ঢাকা সেনানিবাসে আর্মি স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় স্থানান্তরিত হয়।

বর্তমানে ঢাকা সেনানিবাসে শারীরিক ও ক্রীড়া বিষয়ক প্রশিক্ষণ পরিচালনার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা ও প্রয়োজনীয় অবকাঠামোর অপ্রতুলতা তৈরি হয়েছে। তাই একটি অত্যাধুনিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে এএসপিটিএসসিকে সুবিধাজনক এলাকায় স্থানান্তরের পরিকল্পনা করা হয়।

এএসপিটিএসসি ত্রিশাল সামরিক প্রশিক্ষণ এলাকায় স্থানান্তরিত হয়ে কার্যক্রম শুরু করেছে। এখানে দেশীয় প্রশিক্ষণার্থী ছাড়াও শ্রীলংকা, সুদান, নেপাল ও ফিলিস্তিনিদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

শেয়ার করুন