20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
ধর্ষণের ছবি অনলাইনে: চার কিশোর  আটক

আশুলিয়া থানা (ফাইল ছবি)

ধর্ষণের ছবি অনলাইনে: চার কিশোর আটক

এক মাস আগে সাভারের আশুলিয়ায় দল বেঁধে ধর্ষণ করা হয় এক বা দুই জন কিশোরীকে। ভিডিও ধারণ করে ম্যাসেঞ্জার গ্রুপে ছড়িয়ে দেয়া হয় স্ক্রিনশট। পুলিশের কাছে কেউ অভিযোগ করেনি। তবে জানতে পেরে অভিযানে নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বেগমগঞ্জ নির্যাতনের মতোই ঘটনা। ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ। এরপর অনলাইনে ম্যাসেঞ্জার গ্রুপে পোস্ট।

এই ঘটনায় সাভারের আশুলিয়ায় চার কিশোরকে আটক করেছে পুলিশ। বাহিনীটি বলছে, আটক চার জন স্থানীয় একটি ‘কিশোর গ্যাং’ এর সদস্য।

বুধবার ভোরে আশুলিয়ার ভাদাইল ও নয়ারহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। তাদের আরও নয় সহযোগীকে আটকের চেষ্টা চলছে।

আটক চার জনই ভাদাইল এলাকার বাসিন্দা বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। তাদের নাম জানালেও বিস্তারিত পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।

পুলিশ জানায়, প্রায় এক মাস আগে ভাদাইলের গুলিয়ারচক এলাকায় কিশোরীকে দল বেঁধে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে কিশোর গ্যাং এর সদস্যরা। একাধিক ছবি ছড়ানো হয়।

পরে সেই ভিডিও থেকে স্ক্রিনশট কেটে বিভিন্ন ম্যাসেঞ্জার গ্রুপে ছড়িয়ে দেয়া হয়।

ভুক্তভোগী কারা, সে বিষয়ে তথ্য পাওয়া যাচ্ছিল না। কেউ থানায় অভিযোগও করেনি। কিন্তু তথ্য পেয়ে অনুসন্ধানে নামে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে এই ঘটনায় ১০ থেকে ১৫ জন কিশোরের সম্পৃক্ততার তথ্য মেলে।

ফাঁস হওয়া ছবি দুটিতে ধর্ষণকারীর চেহারা দেখা যায়নি। ভুক্তভোগী কিশোরী দুইজন কি না সেটাও স্পষ্ট না।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউর রহমান জিয়া বলেন, ‘এই ধর্ষণের ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছি। এখনও অনুসন্ধান চলছে। পরে বিস্তারিত জানানো যাবে।’

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামানও তিন কিশোরকে আটকের কথা নিশ্চিত করলেও বিস্তারিত জানাননি।

শেয়ার করুন