× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

আন্তর্জাতিক
এটা আমেরিকা নয়
google_news print-icon

‘এটা আমেরিকা নয়’

এটা-আমেরিকা-নয়
যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটল হিলে হামলা চালানো ট্রাম্প সমর্থকদের বিরুদ্ধে অ্যাকশনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।
যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রের প্রতীক হিসেবে পরিচিত ক্যাপিটল হিলে ট্রাম্প সমর্থকদের তাণ্ডবে নিন্দা জানিছেন বিশ্ব নেতারা।

অন্য দেশের নির্বাচনী সহিংসতায় যারা বছরের পর বছর নিন্দা জানিয়ে এসেছে এবার সেই যুক্তরাষ্ট্র দেখছে উল্টো চিত্র। ওয়াশিংটন ডিসিতে ডনাল্ড ট্রাম্প সমর্থকদের নজিরবিহীন সহিংসতা চালানোর পর তাদের নিন্দায় মুখর গোটা বিশ্ব।

জো বাইডেনকে জয়ের স্বীকৃতি দিতে ক্যাপিটল ভবনে বুধবার কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনের মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল ঘুরিয়ে দেয়ার চেষ্টায় এ তাণ্ডব চালায় ট্রাম্প সমর্থকরা।

এতে চার জন নিহতের খবর দিয়েছে ওয়াশিংটন ডিসি পুলিশ। আহত হয়েছেন আরও অনেকে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানীতে আরোপ করা হয়েছে ১৫ দিনের জরুরি অবস্থা।

যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রের প্রতীক হিসেবে পরিচিত ক্যাপিটল হিলে ট্রাম্প সমর্থকদের তাণ্ডবে নিন্দা জানিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরস।

তার মুখপাত্রের দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘এমন পরিস্থিতিতে অনুসারীদের সহিংসতা থেকে বিরত রাখতে রাজনৈতিক নেতাদের ভূমিকা রাখা উচিত। সেই সঙ্গে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ও আইনের শাসনকে শ্রদ্ধা জানানো উচিত।’

‘এটা আমেরিকা নয়’
ওয়াশিংটন ডিসিতে মুখোমুখি পুলিশ ও ট্রাম্প সমর্থকরা।

ক্যাপিটল হিলে এমন সহিংসতায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের সাধারণ সভার সভাপতি বলকান বজকিরও।

মার্কিন কংগ্রেসে সহিংসার পর পরই টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট দিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাখোঁ। তিনি বলেন, ‘এটা আমেরিকা নয়।’

ফ্রান্স গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে জানিয়ে মাখোঁ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক শক্তির ওপর আমার বিশ্বাস আছে।’

এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে টুইট করেছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রী জিন-ইয়েভস লে দ্রিয়ঁ। লিখেছেন- ‘আমেরিকান প্রতিষ্ঠানগুলোতে এই সহিংসতা গণতন্ত্রের ওপর বড় আঘাত। আমি এর নিন্দা জানাই। আমেরিকার জনগণের ইচ্ছা ও ভোটকে অবশ্যই সম্মান জানানো উচিত।’

‘এটা আমেরিকা নয়’
পুলিশের বাধাতেও অনড় ট্রাম্পের সমর্থকরা।

এই ঘটনায় দুঃখ পেয়েছেন বলে জানালেন ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেল। মার্কিন কংগ্রেসকে ‘গণতন্ত্রের মন্দির’ উল্লেখ করেছেন তিনি। শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বান জানিয়েছেন ইইউর মুখপাত্র।

আর ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট টুইটারে লিখেছেন- ‘যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রের শক্তির ওপর আমার বিশ্বাস আছে।…যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কাজ করার জন্য আমি মুখিয়ে আছি।’

ন্যাটো প্রধান জিন্স স্টোলটেনবার্গ লিখেছেন, ‘ওয়াশিংটন ডিসিতে কী মর্মান্তিক দৃশ্য। গণতান্ত্রিক নির্বাচনকে অবশ্যই সম্মান জানানো উচিত।’

ওয়াশিংটনের পরিস্থিতি তুরস্ক নজর রাখছে বলে জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এতে বলা হয়েছে, ‘ক্যাপিটল ভবনে হামলা চেষ্টাসহ যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগজনক পরিস্থিতিগুলো তুরস্ক পর্যবেক্ষণ করছে। আমাদের বিশ্বাস, যুক্তরাষ্ট্র তাদের ঘরোয়া সঙ্কট শান্তিপূর্ণভাবে কাটিয়ে উঠবে।’

তুরস্কের পার্লামেন্টের স্পিকার মুস্তাফা সেন্তফ টুইটারে লিখেছেন, ‘আমেরিকার ঘটনাগুলোতে আমরা উদ্বেগের সঙ্গে দৃষ্টি রাখছি। তাদেরকে শান্ত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। এসব সমস্যা আইন ও গণগন্ত্রের মাধ্যমেই সমাধানযোগ্য হবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’

‘এটা আমেরিকা নয়’
ক্যাপিটল হিলের সামনে মারমুখী ট্রাম্প সমর্থকরা

ক্যাপিটল হিলে এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বাইডেনের হাতে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বান জানিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘ইউএস কংগ্রেসে কী লজ্জাকর দৃশ্য। যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বজুড়ে গণতন্ত্রের পেছনে দাঁড়ায়। দেশটিতে এখন শান্তিপূর্ণ ও নিয়মতান্ত্রিকভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করা দরকার।’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি মিনিটের পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। ভাঙ্কুভারের একটি রেডিওকে তিনি বলেছেন, ‘আমি মনে করি, আমেরিকান গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো খুবই শক্তিশালী। আশা করি, সবকিছু দ্রুতই স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে।’

যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস ভবনে হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন জার্মানি, নিউজিল্যান্ড, ভেনেজুয়েলা অনেক অন্যান্য দেশের নেতারাও।

আরও পড়ুন:
ওয়াশিংটনে ১৫ দিনের জরুরি অবস্থা জারি
ট্রাম্প সমর্থকদের তাণ্ডব, নিহত ৪
ট্রাম্পের ফেসবুক-টুইটার অ্যাকাউন্ট ব্লকড

মন্তব্য

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক
The Dhaka City Committee of BNP was dissolved and the Central Committee of Jubo Dal was also dissolved

বিএনপির ঢাকা-চট্টগ্রাম সিটির কমিটি বিলুপ্ত, ভাঙল যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটিও

বিএনপির ঢাকা-চট্টগ্রাম সিটির কমিটি বিলুপ্ত,  ভাঙল যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটিও
বিএনপির জ্যৈষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আহ্বায়ক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে বিএনপি।

বিএনপির জ্যৈষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে আরও জানানো হয়, চট্টগ্রাম ও বরিশাল মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটিও ভেঙে দেয়া হয়েছে।

এছাড়া যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোনায়েম মুন্নার নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় কমিটিও ভেঙে দেয়া হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এসব ইউনিট ও যুবদলের নতুন কমিটি পরবর্তী সময়ে ঘোষণা করা হবে।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Pressure increased on Bangabandhu Expressway congestion at toll plaza

বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়েতে বেড়েছে চাপ, টোল প্লাজায় জট

বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়েতে বেড়েছে চাপ, টোল প্লাজায় জট পদ্মা সেতুর টোল প্লাজা থেকে বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়ের ছনবাড়ি পর্যন্ত দীর্ঘ যানজট। ছবি: নিউজবাংলা
সরেজমিনে দেখা যায়, শুক্রবার সকালে পদ্মা সেতু হয়ে দূর পাল্লার যানবাহনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত যান ও দুই চাকার মোটরসাইকেল করেও ঘরমুখো মানুষ ছুটছেন নিজ নিজ গন্তব্যে।

ঈদে ঘরমুখো মানুষ বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন। এ কারণে রাজধানী ঢাকা থেকে দক্ষিণবঙ্গের প্রবেশপথ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এক্সপ্রেসওয়ে হয়ে পদ্মা সেতুতে যানবাহনের চাপ বেড়েছে। পদ্মা সেতুর টোল প্লাজা থেকে বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়ের ছনবাড়ি পর্যন্ত প্রায় ৮ কিলোমিটারজুড়ে যানবাহনের জট দেখা দিয়েছে।

সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়, শুক্রবার ভোর থেকে যানবাহন চাপ বাড়তে থাকে।

এদিকে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে যানবাহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় পদ্মা সেতুর টোল প্লাজায় যানবাহনগুলোকে টোল গ্রহণে কিছুটা সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছে। এ কারণে সেতু এলাকায় যানবাহনের কিছুটা ধীরগতি রয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, শুক্রবার সকালে পদ্মা সেতু হয়ে দূর পাল্লার যানবাহনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত যান ও দুই চাকার মোটরসাইকেল করেও ঘরমুখো মানুষ ছুটছেন নিজ নিজ গন্তব্যে।

মাওয়া ট্রাফিক ইন্সপেক্টর জিয়াউল ইসলাম বলেন, ‘টোল প্লাজা থেকে প্রায় ছনবাড়ি পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার এই জট রয়েছে। ভোরবেলায় অনেক গাড়ি একসাথে আসায় এ জট বেঁধে ছনবাড়ি পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার গাড়ির ধীর গতি লক্ষ্য করা যায়।’

আরও পড়ুন:
ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়‌কে ১০ কি‌লো‌মিটার জুড়ে যানজট
বাড়ির পথে ছুটছে মানুষ
ঈদযাত্রার প্রভাব নেই সদরঘাটে, গার্মেন্টস ছুটির অপেক্ষা
ট্রেনে ঈদযাত্রা শুরু
১৪ কিলোমিটার সড়কে দুপুর পর্যন্ত যান চলাচলে ধীরগতি

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
The most polluted air is Dhaka Kampala Uganda 10th

সবচেয়ে দূষিত বাতাস উগান্ডার কাম্পালার, ঢাকা ১০তম

সবচেয়ে দূষিত বাতাস উগান্ডার কাম্পালার, ঢাকা ১০তম ফাইল ছবি
১০১ থেকে ১৫০ এর মধ্যে হলে বাতাসের মান ‘সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর’, ১৫১ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে ‘অস্বাস্থ্যকর’ বলে মনে করা হয়।

রাজধানীর বাতাসের মান শুক্রবার ‘সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর’ হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

সকাল ৯টা ১৮ মিনিটে ১০৭ এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স (একিউআই) স্কোর নিয়ে বিশ্বের দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় দশম অবস্থানে রয়েছে ঢাকা। খবর ইউএনবির

১০১ থেকে ১৫০ এর মধ্যে হলে বাতাসের মান ‘সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর’, ১৫১ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে ‘অস্বাস্থ্যকর’ বলে মনে করা হয়।

২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে খুব অস্বাস্থ্যকর বলা হয়, ৩০১+ একিউআই স্কোরকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে।

উগান্ডার কাম্পালা, গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্রের কিনশাসা ও পাকিস্তানের লাহোর যথাক্রমে ১৯৪, ১৮০ ও ১৫৫ একিউআই স্কোর নিয়ে তালিকার প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান দখল করেছে।

বাংলাদেশে একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের ৫টি বৈশিষ্ট্যের ওপর ভিত্তি করে। সেগুলো হলো- বস্তুকণা (পিএম১০ ও পিএম২.৫), এনও২, সিও, এসও২ ও ওজোন (ও৩)।

দীর্ঘদিন ধরে বায়ু দূষণে ভুগছে ঢাকা। এর বাতাসের গুণমান সাধারণত শীতকালে অস্বাস্থ্যকর হয়ে যায় এবং বর্ষাকালে কিছুটা উন্নত হয়।

২০১৯ সালের মার্চ মাসে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, ঢাকার বায়ু দূষণের তিনটি প্রধান উৎস হলো- ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলো।

ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (ডব্লিউএইচও) অনুসারে, বায়ু দূষণের ফলে স্ট্রোক, হৃদরোগ, ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ, ফুসফুসের ক্যান্সার এবং তীব্র শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণের কারণে মৃত্যুহার বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ফলে বিশ্বব্যাপী প্রতি বছর আনুমানিক ৭০ লাখ মানুষ মারা যায়।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Traffic jam on Dhaka Tangail Bangabandhu Bridge highway for 10 kilometers

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়‌কে ১০ কি‌লো‌মিটার জুড়ে যানজট

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়‌কে ১০ কি‌লো‌মিটার জুড়ে যানজট ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে এলেঙ্গা থেকে আশেকপুর পর্যন্ত অংশে শুক্রবার ভোরে যানজট দেখা দেয়। ছবি: নিউজবাংলা
বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে এই মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে শুক্রবার ভোরে এলেঙ্গা থেকে সদর উপজেলার আশেকপুর বাইপাস এলাকা পর্যন্ত প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকায় থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

যানবাহনের বাড়তি চাপ ও একাধিক দুর্ঘটনার কারণে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়‌কে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে এই মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে শুক্রবার ভোর থেকে এই যানজট শুরু হয়।

কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গা থেকে সদর উপজেলার আশেকপুর বাইপাস এলাকা পর্যন্ত প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকায় থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে অনেকেই ব্যক্তিগত যানবাহন, মোটরসাইকেল ও খোলা ট্রাকে করে গন্তব্যে যাচ্ছেন। যানজট আর বৃষ্টিতে যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ সাজেদুর রহমান জানান, মধ্যরাত থেকে যানবাহনের চাপ বেড়ে গেছে এই মহাসড়কে। তাছাড়া মহাসড়কের বিভিন্ন জায়গায় একাধিক দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে কেউ মারা যায়নি। দুর্ঘটনাকবলিত যানবাহন সরিয়ে নিতে কিছুটা সময় লেগে যাওয়ায় ধীরগতিতে যানবাহন চলাচল করছে। মহাসড়কে পর্যাপ্ত পুলিশ কাজ করছে।

ওদিকে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপাড়ে টোলপ্লাজার আগে হালকা যানজট তৈরি হয়েছে।

আরও পড়ুন:
ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যান চলাচলে ধীরগতি
বনানীর আগে বাসে যাত্রী তুললেই মামলা: ডিএমপি কমিশনার
বজ্রপাত: পদ্মা সেতুর টোল প্লাজার সামনে গাড়ির দীর্ঘ সারি
চাপ নেই ঢাকা-টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে
ঈদযাত্রা: পদ্মা সেতু দিয়ে নির্বিঘ্নে যান চলাচল

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Toll collection in 24 hours at Bangabandhu Bridge is Tk 3 crore 21 lakh

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ২৪ ঘণ্টায় টোল আদায় ৩ কোটি ২১ লাখ টাকা

বঙ্গবন্ধু সেতুতে ২৪ ঘণ্টায় টোল আদায় ৩ কোটি ২১ লাখ টাকা বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব টোলপ্লাজা।। ছবি: নিউজবাংলা
বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল জানান, বুধবার রাত ১২টা থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১২টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ৩ কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার ৩০০ টাকা টোল আদায় করেছে সেতু এবং এর বিপরীত ৪০ হাজার ৯০৬টি যানবাহন পারাপার হয়েছে।

ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে বেড়েই চলছে যানবাহন চলাচলের সংখ্যা। এর পাশাপাশি প্রতিদিনই টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেতুতে বাড়ছে টোল আদায়ে টাকার পরিমাণ।

গত ২৪ ঘণ্টায় অর্থাৎ একদিনে বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ৩ কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার ৩০০ টাকা টোল আদায় করেছে সেতু কর্তৃপক্ষ এবং এর বিপরীত ৪০ হাজার ৯০৬টি যানবাহন পারাপার হয়। এর মধ্যে কোরবানির পশু ও পণ্যবাহী পরিবহন বেশি পারাপার হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল শুক্রবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বুধবার রাত ১২টা থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১২টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ৩ কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার ৩০০ টাকা টোল আদায় করেছে সেতু এবং এর বিপরীত ৪০ হাজার ৯০৬টি যানবাহন পারাপার হয়েছে।

এরমধ্যে টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব অংশে ২২ হাজার ৬৪৫টি যানবাহন পারাপার হয়। এ থেকে টোল আদায় হয় এক কোটি ৫৮ লাখ ৮১ হাজার ৪০০ টাকা এবং সিরাজগঞ্জ সেতু পশ্চিম অংশে ১৮ হাজার ২৬১টি যানবাহন থেকে টোল আদায় হয়েছে এক কোটি ৬৩ লাখ ১৫ হাজার ৯০০ টাকা।

তিনি বলেন, ‘মহাসড়কে যানজট নিরসনে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব ও পশ্চিম উভয় অংশে ৯টি করে ১৮টি টোল বুথ স্থাপনসহ মোটরসাইকেলের জন্য চারটি বুথ স্থাপন করা হয়েছে। এবারও ঘরমুখো মানুষের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে বলে আশা করছি।’

এদিকে শুক্রবার ভোর থেকেই ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব টোল প্লাজা থেকে টাঙ্গাইলের রাবনা বাইপাস এলাকাজুড়ে কোথাও কোথাও থেমে থেমে ও ধীরগতিতে যানবাহন চলাচল করছে।

আরও পড়ুন:
প্রথম ব্যক্তি হিসেবে বঙ্গবন্ধু টানেলের টোল দিলেন প্রধানমন্ত্রী
পদ্মা সেতুতে পরীক্ষামূলক ইলেকট্রনিক টোল আদায় শুরু
বঙ্গবন্ধু সেতুতে সর্বোচ্চ যানবাহন পারাপার, টোল আদায়ে রেকর্ড
বঙ্গবন্ধু সেতুতে এক দিনে সোয়া ৩ কোটি টাকার টোল
বঙ্গবন্ধু সেতুতে এক দিনে আড়াই কোটি টাকার বেশি টোল

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
People are running on their way home

বাড়ির পথে ছুটছে মানুষ

বাড়ির পথে ছুটছে মানুষ ফাইল ছবি
নগরীর গাবতলী, সায়েদাবাদ, কমলাপুর, সদরঘাটসহ বেশ কিছু এলাকায় ঘরে ফেরা মানুষের ভিড় উপচে পড়ছে এখন। সকাল থেকে পরিবার-স্বজনদের নিয়ে বাড়িফেরা মানুষের চাপে রাজপথ। বাড়তি যাত্রীতে গতি কমে এসেছে গাড়ির চাকারও।

ঈদযাত্রা শুরু হয়েছে দু-এক দিন আগেই। তবে বৃহস্পতিবার শেষ কর্মদিবসে এই যাত্রা গতি পায়। বিকেল থেকে গন্তব্যে ছুটতে শুরু করেন কর্মজীবীরা। রাতভর রাজধানী ঢাকা ছেড়েছে মানুষ, শুক্রবার সকালে যেন ঈদযাত্রা ফিরেছে চিরচেনা রূপে।

নগরীর গাবতলী, সায়েদাবাদ, কমলাপুর, সদরঘাটসহ বেশ কিছু এলাকায় ঘরে ফেরা মানুষের ভিড় উপচে পড়ছে এখন। সকাল থেকে পরিবার-স্বজনদের নিয়ে বাড়িফেরা মানুষের চাপে রাজপথ। বাড়তি যাত্রীতে গতি কমে এসেছে গাড়ির চাকারও।

গাবতলী দিয়ে রাজধানী, গাজীপুরসহ বেশ কিছু এলাকার যাত্রী ঢাকা ছাড়ছেন। টার্মিনালে একের পর এক বাস ছাড়ছে। তবু যেন গাড়ির সংকট। যাত্রী নামিয়ে গাড়ি ফিরে আবার যাত্রী নিয়ে যাচ্ছে।

যাত্রীরা বলছেন, গণপরিবহনে নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া নেয়া হচ্ছে। অতিরিক্ত যাত্রীর চাপে গাড়িও চলছে ধীরগতিতে।

পাটুরিয়া দিয়ে রাজবাড়ী যাবেন আওলাদ ইসলাম। গাবতলীতে পরিবার নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন তিনি। নিউজবাংলাকে তিনি বলেন, ‘ডাইরেক্ট টিকিট কাটিনি। মানুষের ভিড় অনেক। লোকাল বাসে ঘাটে গিয়ে পরে নদী পার হয়ে আবার কোনো গাড়িতে যাব। তবে এখানে ভাড়া বেশি নেয়া হচ্ছে।’

চাপ বেড়েছে সায়েদাবাদেও। পদ্মা সেতু হয়ে গাড়ি যাওয়ায় এই টার্মিনালে ভিড় বেড়েছে। কেউ কেউ অভিযোগ করছেন, নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে ভাড়া বেশি নেয়া হচ্ছে। সময়মতো ছাড়ছে না গাড়িও।

গত কদিন সদরঘাট লঞ্চঘাটে ভিড় কম থাকলেও রাত থেকে আবার আগের রূপে ফিরেছে দক্ষিণবঙ্গে যাওয়া যাত্রীদের এই নৌরুট। চারদিকে শুধু মানুষ আর মানুষ। পরিবার নিয়ে বাড়ি ফিরছেন অধিকাংশই।

কমলাপুরে মানুষের ভিড় অন্য ঈদগুলোর মতোই। পুরো স্টেশন এলাকা ভরে গেছে যাত্রীতে। রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বাড়ি ফিরতে এখানে ভিড় করেছে মানুষ। নাড়ির টানে ঘরে ফিরছে সবাই।

সার্বিক পরিস্থিতিতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের ঈদযাত্রা নিরাপদ করতে প্রতিটি স্টেশনে র‌্যাবের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাহিনীটির আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার আরাফাত ইসলাম।

মন্তব্য

আন্তর্জাতিক
Train movement stopped for two days on Kolkata Khulna railway

কলকাতা-খুলনা রেলপথে দুদিন ট্রেন চলাচল বন্ধ

কলকাতা-খুলনা রেলপথে দুদিন ট্রেন চলাচল বন্ধ
রোববার (১৬ জুন) এবং বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ট্রেনটি বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে। এই রেলপথে ট্রেনটি সপ্তাহের ওই দুদিনই চলাচল করে।

আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে কলকাতা-খুলনা রেলপথে চলাচল করা যাত্রীবাহী ‘বন্ধন-এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি দুদিন বন্ধ থাকবে। রোববার (১৬ জুন) এবং বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ট্রেনটি বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে। এই রেলপথে ট্রেনটি সপ্তাহের ওই দুদিনই চলাচল করে।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, রেললাইন ও কর্মীদের ওপর চাপ কমানো এবং ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতেই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রতি বছরই এ সময় ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ রেল কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে গত ১৩ মে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষকে একটি চিঠি দিয়ে জানায়। ভারতীয় কর্তৃপক্ষ তাতে সম্মতি জানিয়ে ফিরতি চিঠি পাঠায়।

এ বিষয়ে বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার সাইদুজ্জামান জানান, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে চলাচল করা বন্ধন এক্সপ্রেস দুই দিন বন্ধ থাকবে। ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ এবং বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বেনাপোল চেকপোস্ট পুলিশ ইমিগ্রেশনের ওসি আজহারুল ইসলাম বলেন, ‘আগামী ১৬ ও ২০ জুন বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেনটি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ ব্যাপারে একটি চিঠি আমার দপ্তরে এসেছে। তবে সড়কপথে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রী চলাচল স্বাভাবিক থাকবে। এমনকি ঈদের দিনও চালু থাকবে পাসপোর্ট যাত্রীদের চলাচল।’

আরও পড়ুন:
ম্যাংগো ট্রেনের সঙ্গে ক্যাটেল ট্রেনেরও যাত্রা শুরু
চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেনের যাত্রা শুরু
এক সপ্তাহ পর চালু মোহনগঞ্জ লোকাল ট্রেন
ভাঙা লাইনে ছিপি দিয়ে চলল ট্রেন
মোহনগঞ্জ লোকাল ট্রেন বন্ধে দুর্ভোগে যাত্রীরা

মন্তব্য

p
উপরে