20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
হ্যারিস-পেন্স বিতর্কে করোনা

হ্যারিস-পেন্স বিতর্কে করোনা

যুক্তরাষ্ট্রে ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে একমাত্র ভাইস প্রেসিডেন্ট বিতর্কে অংশ নিয়েছেন ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী কমলা হ্যারিস ও ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান পার্টির মাইক পেন্স।

স্থানীয় সময় বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের ইউটাহ অঙ্গরাজ্যের সল্ট লেক সিটিতে মুখোমুখি হন তারা।

করোনাভাইরাসের মধ্যে চলমান বিতর্কে বর্তমান ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্স ও প্রতিদ্বন্দ্বী হ্যারিস ১২ ফুট দূরত্বে বসেন। দুজনের মধ্যে কাচের দেয়ালও ছিল।

প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ও তার ডেমোক্র্যাটিক প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের মধ্যকার প্রথম বিতর্কে যে ব্যক্তিগত আক্রমণ ছিল, তা থেকে অনেকটা ব্যতিক্রম ছিল দুই ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর তর্কযুদ্ধ।

প্রেসিডেন্ট বিতর্কে বাইডেনের বক্তব্য বারবার ব্যাহত করেছেন ট্রাম্প। তার প্রশাসনের ভাইস প্রেসিডেন্ট পেন্স অনেকটা শান্ত ছিলেন। তবে পেন্স একবারের জন্য বক্তব্য বাধাগ্রস্ত করলে পাল্টা আক্রমণ করেন হ্যারিস।

পেন্সের উদ্দেশে হ্যারিস বলেন, ‌‘মিস্টার ভাইস প্রেসিডেন্ট, আমি কথা বলছি। আমাকে স্বাচ্ছন্দ্যে বলতে দিলেই আমাদের মধ্যে আলাপ চলতে পারে।’

পেন্স করোনা মোকাবিলায় ট্রাম্প নেতৃত্বাধীন প্রশাসনের নেয়া উদ্যোগের পক্ষে কথা বলেন।

করোনায় এরই মধ্যে প্রাণ গেছে যুক্তরাষ্ট্রের দুই লক্ষাধিক নাগরিকের। হ্যারিস একে ‘যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে কোনো প্রশাসনের সর্বোচ্চ ব্যর্থতা’ বলে অভিযোগ করেন।

কর নিয়েও দুজনের মধ্যে তর্ক হয়েছে। পেন্সের অভিযোগ, হ্যারিস কর্মজীবীদের ওপর করের বোঝা বাড়িয়েছেন। তবে হ্যারিস সে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

সূত্র: বিবিসি, সিএনএন

শেয়ার করুন